মেসি-রোনালদো দের মাঝে ভার্ডিও

পাঁচ বছর আগে ইংলিশ তৃতীয় বিভাগের দল ফ্লিটউড টাউনে যখন খেলতেন, তখন কি জেইমি ভার্ডি ঘুণাক্ষরেও কল্পনা করতে পেরেছিলেন লিওনেল মেসি, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোদের সাথে একই নিঃশ্বাসে উচ্চারিত হবে তাঁর নামও? বিশ্বসেরা ফুটবলার হবার বিবেচনাতে আনা হবে তাকেও? মনে হয় না। কিন্তু আপাতদৃষ্টিতে অবাস্তব স্বপ্নগুলোও যে সত্যি হয় সেটা যেন আরেকবার প্রমাণ করে দেখালেন এই ইংলিশ স্ট্রাইকার। লেস্টার সিটির হয়ে স্বপ্নের মত মৌসুম কাটানোর পুরষ্কার পেলেন ব্যালন ডি অরের প্রাথমিক তালিকায় ঠাঁই পেয়ে। মেসি রোনালদোর তোপে হয়তোবা সর্বসেরার পুরষ্কারটা বগলদাবা করা হবে না তাঁর, তাও, প্রাথমিক তালিকায় যে এভাবে স্থান পেয়েছেন, তাই বা কম কিসে?

শুধু ভার্ডিই নন, প্রাথমিক তালিকায় স্থান পেয়েছেন ভার্ডির লেস্টার সিটি সতীর্থ, আলজেরিয়ান উইঙ্গার রিয়াদ মাহরেজও। তাঁর জন্যও ঘটনাটা রূপকথার চেয়ে বিন্দুমাত্রও কম কিছু না। দু’বছর আগেও ফ্রান্সের দ্বিতীয় বিভাগে খেলা এক আলজেরিয়ান এভাবে ইংলিশ লীগকে আলোকিত করে বিশ্বমঞ্চে নিজেকে তুলে ধরবেন, সেটাই বা ভেবেছিল কে কবে?

লিওনেল মেসি-ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো তালিকায় আছেন যথারীতি। মূল লড়াইটাও হবে তাঁদের মধ্যেই। দুইজনের মধ্যে এবার একটুর জন্য হলেও এগিয়ে থাকবেন হয়তোবা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদকে চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতানোর পাশাপাশি নিজের দেশ পর্তুগালকেও ইতিহাসের প্রথমবারের মত ইউরো জয় করানোতে রেখেছেন উল্লেখযোগ্য ভূমিকা। ওদিকে চ্যাম্পিয়নস লিগ না জেতা হলেও বার্সেলোনার হয়ে গত মৌসুমে লা লিগা ও কোপা দেল রে জিতেছিলেন লিওনেল মেসি। তবে টানা দ্বিতীয়বারের মত কোপা আমেরিকার ফাইনালে উঠেও নিজের দেশ আর্জেন্টিনার শিরোপা খরা মেটাতে পারেননি তিনি, হেরে বসেছেন চিলির কাছে। মেসি ছাড়াই ব্যালন ডি অরের প্রাথমিক তালিকাতে আছেন তাঁর তিন বার্সা সতীর্থ লুইস সুয়ারেজ, অ্যান্দ্রেস ইনিয়েস্তা ও নেইমার জুনিয়র, ওদিকে রোনালদোর রিয়াল সতীর্থ পেপে, সার্জিও রামোস, টোনি ক্রুস, লুকা মডরিচ আর গ্যারেথ বেলও আছেন তালিকায়। পেপে যেমন রোনালদোর সাথে ইউরো জয়ে রেখেছেন ভূমিকা, ওদিকে ক্লাবে সাফল্য অর্জনের পাশাপাশি নিজের জাতীয় দল ওয়েলসকেও একটা স্বপ্নের ইউরো-সফর উপহার দিয়েছেন গ্যারেথ বেল। আর চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালে ক্রুস আর রামোসের বীরত্বের কথা, তা আর কার না জানা! ইউরো জয়ের ফলে স্পোর্টিং লিসবনের গোলরক্ষক রুই প্যাট্রিসিও-ও পেয়েছেন স্থান।

ইউরোর আরেক ফাইনালিস্ট ফ্রান্সের আছেন চারজন এই তালিকায়। অধিনায়ক হুগো লিওরিস টটেনহ্যামকে চ্যাম্পিয়নস লিগে নিয়ে যেতে রেখেছেন দুর্দান্ত ভূমিকা, ওদিকে মিডফিল্ডার পল পগবা ত জুভেন্টাসের হয়ে এমন অসাধারণ এক মৌসুম কাটিয়েছেন যে বিশ্বরেকর্ড ট্রান্সফার মূল্যের বিনিময়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডেই যোগ দিলেন তিনি এই মৌসুমে। আছেন অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের হয়ে দুর্দান্ত মৌসুম কাটানো, ইউরো ও চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালিস্ট আতোয়াঁ গ্রিজম্যানও। গ্রিজম্যানের অ্যাটলেটিকো সতীর্থ উরুগুইয়ান ডিফেন্ডার ডিয়েগো গোডিন, স্প্যানিশ মিডফিল্ডার কোকে রিসার‍্যাকশান, গত মৌসুমে ওয়েস্ট হ্যামের আশার বাতিঘর হয়ে থাকা ফরাসী মিডফিল্ডার দিমিত্রি পায়েতও আছেন তালিকায়। তালিকায় আছেন পগবার বর্তমান সতীর্থ সুইডিশ সুপারস্টার জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচও।

পগবার সাবেক সতীর্থ, নতুন লিওনেল মেসি নামে পরিচিত জুভেন্টাস স্ট্রাইকার পাবলো ডিবালাও আছেন তালিকায়, ডিবালার সতীর্থ ইতালিয়ান কিংবদন্তী গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি বুফনও তালিকার এক গুরুত্বপূর্ণ অংশ। বুন্দেসলিগা থেকে তালিকায় স্থান পেয়েছেন বায়ার্ন মিউনিখের আর্তুরো ভিদাল, ম্যানুয়েল নয়্যার, রবার্ট লেভান্ডোভস্কি ও টমাস মুলার, আছেন বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের গোলমেশিন পিয়েরে এমেরিক অবামেয়াংও। আছেন গত মৌসুমে সিরি আ এর সর্বোচ্চ গোলদাতা জুভেন্টাসের বর্তমান স্ট্রাইকার গঞ্জালো হিগুয়াইন। ইংলিশ ক্লাবগুলো থেকে ম্যানচেস্টার সিটির কেভিন ডে ব্রুইনিয়া ও সার্জিও অ্যাগুয়েরো পেয়েছেন স্থান।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

4 × one =