মাতুইদি-গুস্তাভো : জুভেন্টাসের নতুন লক্ষ্য

মুস্তাফি, এভান্স, ক্লস্টারম্যান, ম্যাথিউ, তোপরাক, কায়ের হয়ে আর্সেনালের সেন্টারব্যাক খোঁজ গিয়ে দাঁড়িয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের উরুগুইয়ান সেন্টারব্যাক হোসে মারিয়া জিমেনেজ। অ্যাটলেটিকো এদিকে তাঁর দাম ধরে রেখেছে ৬৫ মিলিয়ন ইউরো, এবং ধরেই নিয়েছে আর্সেনাল জীবনেও অত টাকা দিয়ে জিমেনেজকে কিনতে যাবেনা!

রিয়াল মাদ্রিদের কোচ জিনেদিন জিদান এদিকে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন যে এই দলবদলের বাজারে কেউ যদি মাদ্রিদ ছেড়ে না যায়, তবে নতুন কারোর মাদ্রিদে আসার কোন সম্ভাবনা নেই। আর ক্লাব ছেড়ে যাওয়ার ভালোই সম্ভাবনা আছে মাদ্রিদের কলম্বিয়ান অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার হামেস রড্রিগেজের। চেলসি তাঁকে পাওয়ার জন্য মুখিয়ে আছে। কোচ জিদানের পছন্দের তালিকায় না থাকলেও ক্লাব প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ আবার চাচ্ছেন না যাতে হামেস চলে যান।

লিভারপুল থেকে ২৭ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে ক্রিস্টাল প্যালেসে নাম লিখিয়েছেন বেলজিয়ান স্ট্রাইকার ক্রিস্টিয়ান বেনটেকে। জুভেন্টাস থেকে পাঁচ বছরের চুক্তিতে ওয়াটফোর্ডে এসেছেন আর্জেন্টাইন অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার রবার্তো পেরেইরা। তিন বছরের চুক্তিতে স্যান্ডারল্যান্ড থেকে ফরাসী সেন্টারব্যাক ইউনেস কাবুলকেও দলে এনেছে ওয়াটফোর্ড।

ক্লদিও ব্রাভো ক্লাব ছেড়ে যাচ্ছেন, এই অবস্থায় ক্লাবে আরেকজন গোলরক্ষক আনতে চাচ্ছে বার্সেলোনা। ভ্যালেন্সিয়ার ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক ডিয়েগো আলভেসের নাম প্রথমে শোনা গেলেও গোলরক্ষক হিসেবে আয়াক্সের ডাচ গোলরক্ষক ইয়াসপার চিলেসেনকে কোচ লুইস এনরিকের মনে ধরেছে বলে শোনা যাচ্ছে।

১১ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে ফরাসী উইঙ্গার জর্জেস-কেভিন এন’কদু মার্শেই থেকে নাম লেখাচ্ছেন টটেনহ্যামে, আর টটেনহ্যাম থেকে চুক্তির অংশ হিসেবে এক বছরের ধারে মার্শেইতে যোগ দিচ্ছেন ক্যামেরুনিয়ান উইঙ্গার ক্লিন্টন এনজিয়ে। এসপ্যানিওলের স্প্যানিশ গোলরক্ষক প লোপেজের প্রতিও আগ্রহী স্পাররা। এদিকে অ্যাশলি উইলিয়ামসের জায়গায় ডিফেন্সে উদিনেসের ফরাসী সেন্টারব্যাক থমাস হুর্তয়কে দলে আনতে চাচ্ছে সোয়ানসি সিটি।

১০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে প্রতিভাধর বেলজিয়ান মিডফিল্ডার ডেনিস প্র্যাটকে আন্দারলেখট থেকে দলে আনছে সাম্পদোরিয়া। এদিকে দুই মিডফিল্ডারের মধ্যে যেকোন একজনকে পল পগবার রিপ্লেসমেন্ট বানানোর ব্যাপারে উদ্যোগী হয়েছে জুভেন্টাস। তাঁরা হলেন – প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের ফরাসী মিডফিল্ডার ব্লেইজ মাতুইদি ও ভলফসবুর্গের ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার লুইজ গুস্তাভো।

বসে নেই দুই মিলানও। মিডফিল্ডের মান বাড়ানোর জন্য এসি মিলানের লক্ষ্য এখন এএস রোমার আর্জেন্টাইন উইঙ্গার লিওনার্দো পারেদেস, প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের বেঞ্জামিন স্ট্যাম্বুলি ও রিয়াল মাদ্রিদের মাত্তেও কোভাচিচ। কোভাচিচকে মাদ্রিদ ধারে ছাড়তে চায় না, তাই তাঁকে কিনতে হলে মিলানকে পুরো অর্থ দিয়ে পাকাপাকিভাবেই কিনতে হবে। ওদিকে পারেদেসের ক্ষেত্রেও মিলানের লক্ষ্য ধারে নিয়ে আসা। এদিকে সেন্টারব্যাক আরেকজন আনার ব্যাপারে আগ্রহী মিলান, সেক্ষেত্রে তাদের পছন্দ ব্রাজিলের সাও পাওলোর তরুণ সেন্টারব্যাক রড্রিগো কাইও। মিডফিলদার দলে আনতে আগ্রহী ইন্টার মিলানও। পর্তুগিজ মিডফিল্ডার হোয়াও মারিও ছাড়াও নিউক্যাসল ইউনাইটেডের মুসা সিসোকোকে দলে আনতে চায় তাঁরা।

এদিকে ২৫ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে তোরিনোর সার্বিয়ান সেন্টারব্যাক নিকোলা মাকসিমোভিচকে পাওয়ার জন্য চেলসির সাথে লড়াইয়ে নেমেছে নাপোলি। আর বোলোনিয়ার মিডফিল্ডার আমাদু দিয়াওয়ারাকে ৫ বছরের চুক্তিতে দলে আনছে তাঁরা।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

twenty + 13 =