মরিনহোর চাকরি ঝুলছে সুতোয়, আসতে পারেন জিদান

মরিনহোর চাকরি ঝুলছে সুতোয়, আসতে পারেন জিদান

এই মৌসুমের শুরু থেকেই আশাপ্রদ ফর্মে নেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। গতবার লিগে দ্বিতীয় স্থানে থেকে শেষ করা ইউনাইটেড এবার যেন আরও বেশী করে খাবি খাচ্ছে। লিগের সাত ম্যাচ শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও মাত্র ১০ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার দশম অবস্থানে আছে তারা, পয়েন্ট তালিকায় তাদের উপরে আছে বোর্নমাথ, ওয়াটফোর্ড, উলভারহ্যাম্পটনের মত ক্লাবগুলো। প্রত্যাশামাফিক পারফর্ম্যান্স দেখাতে পারছেন না অ্যালেক্সিস স্যানচেজ, অ্যান্থনি মার্সিয়াল, নেমানিয়া মাটিচ, পল পগবা, হেসে লিনগার্ড, মার্কাস র‍্যাশফোর্দের মত তারকারা। এদিকে মাঠের বাইরেও নেতিবাচক কারণে বারবার আলোচনায় আসছেন কোচ হোসে মরিনহো ও পল পগবার মত তারকারা। শোনা যাচ্ছে, মরিনহোর যন্ত্রণায় অতিষ্ট হয়ে ক্লাব ছাড়তে পারেন ইউনাইটেডের সবচেয়ে দামী খেলোয়াড় পল পগবা। মরিনহোর রক্ষণাত্মক কৌশলে বিরক্ত পগবার মত আরও বেশ কিছু খেলোয়াড়। এদিকে দলবদলের বাজারে ইউনাইটেড বোর্ডের কাছ থেকে প্রত্যাশামাফিক সহায়তা না পাওয়ার কারণে মৌসুমের প্রথম থেকে মরিনহো নিজেও ক্লাবের হর্তাকর্তাদের প্রতি বিরক্ত। সব মিলিয়ে এক হ-য-ব-র-ল অবস্থায় আছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। আর এই অবস্থা কাটানোর জন্য মরিনহোকে ছাঁটাই করে অন্য কোচ আনার ব্যাপারে ভাবছে ইউনাইটেডের কর্তাব্যক্তিরা। আর এই অন্য কোচ হতে পারেন সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ কোচ, ফরাসি কিংবদন্তী জিনেদিন ইয়াজিদ জিদান। শোনা যাচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদের দায়িত্ব ছাড়ার পর অবকাশে থাকা জিনেদিন জিদান এর সাথে এর মধ্যেই ইউনাইটেডের দায়িত্ব নেওয়ার ব্যাপারে প্রাথমিক কথাবার্তা সেরে রেখেছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট এড উডওয়ার্ড। গুঞ্জন সত্যি হলে এই কথা নির্দ্বিধায় বলা যায়, অবস্থার উন্নতি না হলে সহসাই চাকরি হারাচ্ছেন হোসে মরিনহো। এদিকে ফরাসি জিনেদিন জিদান বলে ইংলিশ ভাষার শিক্ষার উপর বিশেষ কোর্সও করছেন, দুইয়ে দুইয়ে চার চাইলে মিলিয়েই নিতে পারেন আপনি!

এদিকে চলমান গুঞ্জনকে উসকে দেওয়ার মত আরেকটা কাজ করেছেন জিদান, বলে শোনা যাচ্ছে। মরিনহোর পিঠ পিছে ইউনাইটেডের চাকরি নেওয়ার ব্যাপারে কোন ইচ্ছাই তাঁর নেই, এই ব্যাপারে মরিনহোকে আশ্বস্ত করতে তাকে ফোনও করেছেন বলে জিদান। এক মাসের মধ্যে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের অবস্থার কোন উন্নতি না ঘটলে, চাকরি হারাবেন মরিনহো। ওদিকে পগবাও পাবেন তাঁর স্বদেশী পছন্দসই এক কোচ।

মরিনহোর আগে ইউনাইটেডের কোচ ছিলেন তাঁরই গুরু লুই ভ্যান হাল। মরিনহোর জায়গায় যদি আসলেই জিদান আসেন তাহলে সেই লুই ভ্যান হালের মতই ভাগ্য বরণ করতে হবে মরিনহো কে। লুই ভ্যান হাল তাঁর দায়িত্বের শেষ কয়মাসে মোটামুটী জেনেই গিয়েছিলেন ইউনাইটেডে বেশী দিন নেই তাঁর, তাঁর জায়গায় আসার জন্য ওঁত পেতে আছেন মরিনহো। মরিনহোর নিজের ক্ষেত্রেও কি এখন একই পরিস্থিতির সৃষ্টি হচ্ছে না? শুধু ভ্যান হালের জায়গায় আছেন মরিনহো, আর মরিনহোর জায়গায় এখন জিদান!

হয়তোবা এই মৌসুমটা ইউনাইটেডের কোচ হিসেবে কোনভাবে পার করতে পারেন মরিনহো, তবে মৌসুমের পর ইউনাইটেড ছাড়তে হতে পারে তাকে। আর সেক্ষেত্রে মরিনহোর জায়গায় কে আসছেন, বলার অপেক্ষা রাখেনা।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

three × two =