ফিন্যান্স ফুটসাল ফিয়েস্তা টিম প্রিভিউ : হেলরেইজার্স

ফিন্যান্স ফুটসাল ফিয়েস্তা টিম প্রিভিউ : হেলরেইজার্স

আগামীকাল সকাল সাড়ে আটটা থেকে বাড্ডার ফর্টিস স্পোর্টস গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এক ফুটবলীয় মিলনমেলা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা র‍্যাংকস এমএসিএল এর সার্বিক সহযোগিতায় আয়োজন করতে যাচ্ছে “ফিন্যান্স ফুটসাল ফিয়েস্তা” এর সর্বপ্রথম আসর। ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক সিক্স-এ-সাইড এই আসরে এবার অংশ নিচ্ছে আটটি দল, প্রত্যেকটি দলের খেলোয়াড়, ম্যানেজার, সংশ্লিষ্ট বাকী সকল সম্বন্ধে সম্যক ধারণা প্রদান করার উদ্দেশ্যে আজকে গোল্লাছুট ডটকমে প্রকাশিত হবে আটটা দলের টিম প্রিভিউ। এই পর্বে থাকছে হেলরেইজার্স ফ্র্যাঞ্চাইজি সম্পর্কে প্রিভিউ। তো আসুন দেখে নেওয়া যাক এই দলে কে কে রয়েছেন!

  • রাজ শুভ নারায়ন চৌধুরী
  • রিয়াজুল ইসলাম
  • মাসুম বিল্লাহ
  • জিশান ইবনে জামান
  • মোহাম্মদ নাঈম
  • মুশফিকুর রহমান
  • হারুন
  • বীর বাহাদুর ত্রিপুরা
  • তাহমিদ ইসলাম
  • রিয়াদ

১৪ তম ব্যাচের বিখ্যাত ত্রয়ী রাজ শুভ নারায়ন চৌধুরী-রিয়াজুল ইসলাম-মাসুম বিল্লাহ যৌথভাবে মালিকানা কিনে নিয়েছেন এই ফ্র্যাঞ্চাইজিটির। মাঠে খেলোয়াড় হিসেবেও দেখা যাবে এই তিনজনকে, মাসুম বিল্লাহ খেলবেন ডিফেন্ডার হিসেবে, রাজ শুভ নারায়ন চৌধুরী মিডফিল্ডার হিসেবে, আর রিয়াজুল ইসলাম স্ট্রাইকার হিসেবে। রাজ শুভ নারায়ন চৌধুরী আবার এককালে ফিন্যান্স ফুটবল টিমের জনপ্রিয় ম্যানেজারও ছিলেন! “উড়াইয়া দিমু 😎 ” মূলমন্ত্রে দীক্ষিত এই দলটা শুধুমাত্র তাদের অফিসিয়াল স্লোগানের মত কথাতেই নয়, মাঠেও প্রতিপক্ষকে উড়িয়ে দিতে প্রস্তুত!

দলের অধিনায়ক হিসেবে রাখা হয়েছে ১৮তম ব্যাচের অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার, একাধিক এফসিএলজয়ী সফল খেলোয়াড় জিশান ইবনে জামানকে। আক্রমণভাগে জিশানকে সঙ্গ দেবেন উদীয়মান উইঙ্গার, ২৩ তম ব্যাচের রিয়াদ ও ১৯ তম ব্যাচের মোহাম্মদ নাঈম। দলটাকে ম্যানেজারদের দল বললেও ভুল বলা হয়না, কেননা রাজ শুভ নারায়ন চৌধুরীর পাশাপাশি মোহাম্মদ নাঈমও ফিন্যান্সের মূল ফুটবল দলের ম্যানেজারের ভূমিকা পালন করেছেন এক মেয়াদে। দলের মিডফিল্ডের ভার থাকবে ২০ ব্যাচের আইকন মিডফিল্ডার মুশফিকুর রহমানের উপর, সাথে থাকবেন ২৩ তম ব্যাচের বীর বাহাদুর ত্রিপুরা। দলের অভিজ্ঞতার ভাণ্ডার সমৃদ্ধ করতে হয়েছেন ১২ তম ব্যাচের হারুণ, আর গোলরক্ষক হিসেবে নেওয়া হয়েছে ২১ তম ব্যাচের তাহমিদ ইসলামকে।

রোলিং সাবস্টিটিউশান ভিত্তিতে ম্যাচগুলো মাঠে গড়াবে, অর্থাৎ একটা দল প্রয়োজনমত বিকল্প খেলোয়াড়দের মধ্যে থেকে যে কাউকে যখন ইচ্ছা মাঠে নামাতে পারে, মূল একাদশে থাকা যে কারোর বদলে।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

seventeen + 3 =