ফিন্যান্স ফুটসাল ফিয়েস্তা টিম প্রিভিউ : কে২পি টাইগার্স

ফিন্যান্স ফুটসাল ফিয়েস্তা টিম প্রিভিউ : কে২পি টাইগার্স

আগামীকাল সকাল সাড়ে আটটা থেকে বাড্ডার ফর্টিস স্পোর্টস গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এক ফুটবলীয় মিলনমেলা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা র‍্যাংকস এমএসিএল এর সার্বিক সহযোগিতায় আয়োজন করতে যাচ্ছে “ফিন্যান্স ফুটসাল ফিয়েস্তা” এর সর্বপ্রথম আসর। ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক সিক্স-এ-সাইড এই আসরে এবার অংশ নিচ্ছে আটটি দল, প্রত্যেকটি দলের খেলোয়াড়, ম্যানেজার, সংশ্লিষ্ট বাকী সকল সম্বন্ধে সম্যক ধারণা প্রদান করার উদ্দেশ্যে আজকে গোল্লাছুট ডটকমে প্রকাশিত হবে আটটা দলের টিম প্রিভিউ। এই পর্বে থাকছে কে২পি (কিল টু প্রোটেক্ট) টাইগার্স ফ্র্যাঞ্চাইজি সম্পর্কে প্রিভিউ। তো আসুন দেখে নেওয়া যাক এই দলে কে কে রয়েছেন!

  • আশরাফুল আলম ইকবাল
  • ফখরুল ইসলাম রুবেল
  • সিরাজুল ইসলাম
  • রফিক ইবনে নূর রেজা
  • মারুফ আহমেদ
  • শেখ মারুফ হাসান
  • কামরুল ইসলাম
  • শাহরুজ্জামান আকাশ
  • কাওসার হামিদ আবরার
  • আশরাফ উদ্দিন
  • শহীদুল ইসলাম রাকিব

কে২পি (কিল টু প্রোটেক্ট) টাইগার্স ফ্র্যাঞ্চাইজিটির মালিকানা কিনে নিয়েছেন রকিবুল ইসলাম রুশো। তাঁর দলে রয়েছে তারুণ্য ও অভিজ্ঞতার চমৎকার এক মিশেল। আশরাফুল আলম ইকবালের মত পুরনো পোড় খাওয়া দুর্দান্ত যোদ্ধাও যেমন আছে, আছে কামরুল ইসলাম বা কাওসার হামিদ আবরারের মত নতুন দিনের কাণ্ডারিও। অধিনায়কের দায়িত্বে রয়েছেন আশরাফুল আলম ইকবাল।

গোলরক্ষক হিসেবে দলে রয়েছে উদীয়মান গোলরক্ষক, ২২ তম ব্যাচের শহীদুল ইসলাম রাকিব। দলে রয়েছেন একাধিক ডিফেন্ডার, রক্ষণভাগ থেকে আক্রমণ গঠন করে আক্রমণভাগে বল নিয়ে গিয়ে দেওয়া হবে যাদের কাজ। এদের মধ্যে রয়েছেন ১০তম ব্যাচের সিরাজুল ইসলাম, ১৪ তম ব্যাচের ফখরুল ইসলাম রুবেল। রক্ষণভাগে আরও রয়েছেন ২১ তম ব্যাচের কাওসার হামিদ আবরার, ২৪ তম ব্যাচের আশরাফ উদ্দিন, রফিক ইবনে নূর রেজা, ১৭ তম ব্যাচের মারুফ আহমেদ। মারুফ আহমেদকে নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই, একসময় গোলরক্ষক হিসেবে খেলা এই খেলোয়াড় এখন ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার/ডিফেন্ডার হিসেবে যেন নিজেকে নতুন করে আবিষ্কার করেছেন। ছিলেন ফিন্যান্স ফুটবল দলের একসময়কার ম্যানেজারও। দলের আক্রমণ গড়ে দেওয়ার কাজটা থাকবে ফিন্যান্সের ইতিহাসের অন্যতম শ্রেষ্ঠ খেলোয়াড় ১০ম ব্যাচের আশরাফুল আলম ইকবালের উপরে। সাথে প্লেমেকার হিসেবে দলে আরও রাখা হয়েছে শেখ মারুফ হাসানকে, ২২ তম ব্যাচের সেন্ট্রাল মিডফিল্ডের অন্যতম বড় ভরসা যে খেলোয়াড়। ২২ ব্যাচের আরেক কার্যকরী মিডফিল্ডার শাহরুজ্জামান আকাশও রয়েছে দলটায়। আর স্ট্রাইকার হিসেবে ২২ ব্যাচের দুর্দান্ত টার্গেটম্যান কামরুল ইসলামের উপরে থাকবে গোল দেওয়ার দায়িত্ব।

রোলিং সাবস্টিটিউশান ভিত্তিতে ম্যাচগুলো মাঠে গড়াবে, অর্থাৎ একটা দল প্রয়োজনমত বিকল্প খেলোয়াড়দের মধ্যে থেকে যে কাউকে যখন ইচ্ছা মাঠে নামাতে পারে, মূল একাদশে থাকা যে কারোর বদলে।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

three × two =