রাইট উইংব্যাকের খোঁজে ইতালিতেই চোখ কন্তের : আসছেন জ্যাপাকস্টা

পুরো দলবদলের সময়টা জুড়েই রাইট উইংব্যাক পজিশানে খেলানোর জন্য নাইজেরিয়ান উইঙ্গার ভিক্টর মোসেসের চেয়ে ভালো কাউকে চেয়ে গেছেন চেলসি কোচ আন্তোনিও কন্তে। রিয়াল মাদ্রিদের দানিলো থেকে শুরু করে বায়ার্ন মিউনিখের রাফিনহা, আর্সেনালের অ্যালেক্স অক্সলেড চেম্বারলাইন থেকে শুরু করে সাউদাম্পটনের সেড্রিক সোয়ারেস ; অনেককেই চেয়েছেন কন্তে, কিন্তু বিভিন্ন কারণে তাঁর পছন্দের খেলোয়াড়্গুলো চেলসিতে আসেননি। দানিলোর জন্য রিয়াল মাদ্রিদ যা চেয়েছিল চেলসি সে পরিমাণ অর্থ দিতে রাজী হয়নি, ওদিকে চেম্বারলাইন নিজেই চেলসিতে আসতে চাননি, তাঁর পছন্দ ছিল লিভারপুল। তাই এবার শেষ মুহূর্তে নিজের দেশ ইতালির একজন রাইট উইংব্যাকের দিকেই নজর দিলেন চেলসি কোচ আন্তোনিও কন্তে। নাম তাঁর ডেভিডে জ্যাপাকস্টা। খেলেন ইতালির ক্লাব তোরিনোর হয়ে। ২৩ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে চেলসিতে যোগ দিচ্ছেন তিনি। ৪ বছরের চুক্তিতে প্রতি সপ্তাহে ৭০,০০০ পাউন্ড করে বেতন পাবেন তিনি বলে শোনা যাচ্ছে।

বেশ কয়েক মৌসুম ধরেই ইতালির অন্যতম সেরা রাইট উইংব্যাক এই জ্যাপাকস্টা। এমনকি আন্তোনিও কন্তে যখন ইতালি জাতীয় দলের কোচ ছিলেন তখন এই জ্যাপাকস্টার ইতালি দলে অভিষেকও তিনিই করিয়েছিলেন, তাই এই উইংব্যাককে বেশ ভালোভাবেই চেনেন কন্তে। ডান দিকে খেলা এই উইংব্যাককে মোটামুটি একটা ক্রসিং মেশিন বলা যেতে পারে। ইতালিয়ান সিরি আ তে শুধুমাত্র জুভেন্টাসের ব্রাজিলিয়ান লেফট উইংব্যাক অ্যালেক্স সান্দ্রো ছাড়া (৪৮) কেউই ডেভিডে জাপাকস্টার (৪৭) চেয়ে বেশী সফল ক্রস করতে পারেননি ২০১৬ সালের জানুয়ারী মাস থেকে। তোরিনোর হয়ে এ পর্যন্ত মোটামুটি ৮০ টার বেশী ম্যাচ খেলা জ্যাপাকস্টা গোল করেছেন ৫টি, গোলসহায়তা ৭টি। সফল পাসের হারটা ৮০.১% এর মত, যেটা কিনা মোটামুটি ভালোই বলা চলে। ট্যাকলিংয়ে অতটা পটু নন, তবে দূরপাল্লার শট নিতে বেশ পছন্দ করেন। গত মৌসুমে মোট ৪১টার মত গোলের সুযোগ সৃষ্টি করেছিলেন এই পরিশ্রমী খেলোয়াড়। জুভেন্টাস, সোয়ানসি সিটি ও স্যান্ডারল্যান্ডের মত ক্লাবগুলো এর আগে জ্যাপাকস্টার জন্য আগ্রহ দেখালেও কেউই পরে আর এগিয়ে আসেনি। এখন জ্যাপাকস্টা কি গত মৌসুমের মার্কোস আলোনসোর মত অসাধারণ কোন একটা খেলোয়াড়ে রূপান্তরিত হবেন কন্তের ছোঁয়ায়? দেখা যাক!

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

15 − four =