ইউক্রেইনের সবচেয়ে বড় সুপারস্টার এখন ডর্টমুন্ডে

ফরাসী উইঙ্গার ওসমানে ডেম্বেলেকে রেকর্ড ফি তে বার্সেলোনায় পাঠানোর পর তাঁর পরিবর্ত খেলোয়াড় পেতে বেশীদিন অপেক্ষাই করতে হল না বরুশিয়া ডর্টমুন্ডকে। ডায়নামো কিয়েভের ইউক্রেইনিয়ান সুপারস্টার উইঙ্গার, বর্তমান সময়ে ইউক্রেন ফুটবলের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপন, অ্যান্দ্রেই শেভচেঙ্কোর পর ইউক্রেইনিয়ান ফুটবলের সবচেয়ে বড় সুপারস্টার ২৭ বছর বয়সী অ্যান্দ্রেই ইয়ারমোলেঙ্কোকে চার বছরের চুক্তিতে মোটামুটি ২৫ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে দলে নিয়ে আসলো ডর্টমুন্ড। কিয়েভের হয়ে এগারো বছরের জ্বলজ্বলে ক্যারিয়ারে ৩৩৯টা মত ম্যাচ খেলে ১৩৭ গোল করেছেন ইয়ারমোলেঙ্কো, সাথে ইউক্রেইনের হয়ে খেলা ৬৮ ম্যাচে ২৯ গোল ত আছেই। ইউক্রেইনের হয়ে খেলেছেন ২০১২ ও ২০১৬ ইউরোও।

তিনবারের ইউক্রেইনিয়ান লিগজয়ী এই উইঙ্গার মূলত বামপায়ের খেলোয়াড়, ডেম্বেলের মতই ড্রিবল করে পছন্দ করতে পারেন অনেক। বামপায়ের খেলোয়াড় বলা হলেও ডানপায়েও বেশ দক্ষ তিনি। ৬ ফুট ২ ইঞ্চি উচ্চতার জন্য বাতাসে ভেসে আসা বলগুলো সামলানোর ক্ষেত্রেও বেশ পারদর্শী। প্রতিপক্ষ ফুলব্যাকের সাথে ওয়ান-অন-ওয়ান পরিস্থিতিতেও এই উচ্চতার কারণে সুবিধাজনক অবস্থায় থাকেন ইয়ারমোলেঙ্কো। ডানদিকে বল নিয়ে ড্রিবল করে বাম পায়ের সাহায্যে কাটইন করে ভেতরে ঢুকে শট নিতে প্রায়ই দেখা যায় নাকে, নাহয় স্ট্রাইকারকে থ্রু পাস দিয়ে দেন। কম জায়গার মধ্যে বল নিয়ে বের হয়ে আসার একটা ক্ষমতাও আছে তাঁর, অতটা গতিশীল না হলেও ড্রিবলের মাধ্যমে প্রতিপক্ষের এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে পারেন তিনি। বল নিয়ে কারিকুরি করে সময় নষ্ট করার চাইতে সরাসরি গোলপোস্ট বরাবর আক্রমণ করতে ও শট নিতে বেশী আগ্রহী তিনি।

২৭ বছর বয়স হবার কারণে তিনি অবশ্যই তরুণ কোন প্রতিভা নন যাকে আরও ঘষামাজা করা লাগবে। ডর্টমুন্ডে তাই তিনি একজন সুপারস্টার হিসেবেই এসেছেন। ইউক্রেইনের বাইরে এখন তিনি তাঁর জাদু দেখাতে পারেন কি না সেটাই দেখার বিষয়!

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

three × three =