ভিভা স্টেগান

২৪বছর বয়সী ফাঁকফোকরযুক্ত এক জার্মান দেয়াল শুধু ফাঁকফোকরগুলো বন্ধ করতে পারলেই যিনি হয়ে উঠবেন বিশ্বসেরাদের একজন। মার্ক আন্দ্রে টার স্টেগান তার নাম।

১৯৯২ সালের ৩০ এপ্রিল মনখেনগ্লাডব্যাচে জন্মগ্রহণ করেন ৬ফিট ১.৫ইঞ্চি উচ্চতার এ বার্সা গোলরক্ষক। যার পথচলা শুরু হয় বরুসিয়া মনখেনগ্লাডব্যাচের হয়ে মাত্র চার বছর বয়সে। ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত তেরো বছর দলটির একাডেমীতে খেলার পর দলটির যুবদলে জায়গা করে নেন তিনি। যুবদলে দুই মৌসুম খেলার পর ২০১১/১২ মৌসুমের শুরুতে তাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয় মনখেনগ্লাডব্যাচের মূল দলে। মূল দলের হয়ে হয়ে তিনি খেলেন ২০১৩/১৪ মৌসুমের শেষ পর্যন্ত। এই তিন সিজনে ১০৮ ম্যাচ খেলে তিনি হয়ে উঠেন দলটির অপরিহার্য অংশ। এভাবে ঠিকঠাকই চলার কথা ছিলো সবকিছু কিন্তু কিছুই আর ঠিক থাকেনি। ২০১৩ সালের ডিসেম্বরে যখন বার্সা গোলরক্ষক ভিক্টর ভালদেজ ঘোষণা করলেন বার্সা ছাড়ছেন তিনি তখনি বাতাসে গুঞ্জন বার্সায় আসছেন স্টেগান। সব গুঞ্জনকে সত্য করে ২০১৪ সালের ১৯ মে বার্সায় যোগ দেন তিনি। ২০১৪/১৫ মৌসুম বার্সার চ্যাম্পিয়নস লিগ এবং কোপা দেল রে জয়ে গোলরক্ষক এর দায়িত্বটা পালন করেন তিনিই। পরের মৌসুমেও বার্সাকে জিতিয়েছেন কোপা দেল রে শিরোপা। আর এ মৌসুমে তো গোলরক্ষক ক্লাদিও ব্রাভো বার্সা ছাড়ার পর চ্যাম্পিয়নস লিগের পাশাপাশি লা লিগাতেও গোলপোস্ট সামলানোর দায়িত্বটা তার কাঁধে। মনখেনগ্লাডব্যাচে থাকা কাল থেকেই তাকে ভাবা হতো জার্মানির পরবর্তী ম্যানুয়াল নয়ার কিংবা অলিভার কান। অবশ্য সেটা হওয়ার মত সবকিছুই আছে তার। সমস্যা একটাই, প্রায়ই করে বসেন শিশুতোষ ভুল। এক্ষেত্রে দোষোটা অবশ্য তার বয়সেরই। বয়সের সাথেসাথে যদি ভুলগুলো শুধরে উঠতে পারেন তিনি তবে আমরা বার্সা ফ্যানরা পাবো ফাঁকফোকরবিহীন এক জার্মান দেয়াল। ভিভা স্টেগান।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

5 × 4 =