কোয়ার্টারে মুখোমুখি বার্সা-জুভ, রিয়াল-বায়ার্ন

রিয়াল মাদ্রিদ কোচ জিনেদিন জিদান খুব সম্ভবত এই ড্র টা এড়াতে পারলেই খুশি হতেন। বায়ার্ন মিউনিখের সাথে ড্র টা, কোয়ার্টার ফাইনালে জার্মান সুপারজায়ান্ট বায়ার্ন মিউনিখের মুখোমুখি হতে হবে জিনেদিন জিদানের স্প্যানিশ সুপারজায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদকে। এখন মোটামুটি এপ্রিল মাসে ১৫ দিনের মধ্যে বায়ার্নের সাথে দুইবার, আর স্প্যানিশ লীগে বার্সেলোনা আর অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের সাথে একবার করে মুখোমুখি হতে হবে রিয়াল মাদ্রিদকে। মোটামুটি এই পনেরো দিনের পারফরম্যান্সের উপরেই যে পুরো মৌসুমের প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তির হিসাব-নিকাশ লুকিয়ে আছে, সেটা জিদানের চেয়ে আর ভালো ক’জনই বা জানেন? ওদিকে বায়ার্ন মিউনিখের কোচ কার্লো অ্যানচেলত্তিকেও ফুটবল বিশ্বের সবাই-ই ভালোমানুষ হিসেবেই চেনেন। রিয়াল মাদ্রিদকে লা-ডেসিমা জেতানো এই কোচ পরে ছাঁটাইও হন খুবই রূঢ়ভাবে। তাই এই ভদ্রতার আড়ালে যদি একটু হলেও প্রতিশোধপরায়ণতা লুকিয়ে থাকে, তাহলে অ্যানচেলত্তি অবশ্যই চাইবেন যে করেই হোক তাঁর নতুন দল যেন পুরনো দলকে হারিয়ে সেমিতে ওঠে। এদিকে টনি ক্রুস বা জাবি আলোনসো, দুই জন খেলবেন তাঁদের সাবেক দলের বিপক্ষে! জম্পেশ দুটি খেলার আশা করাই যায়!

এদিকে মাদ্রিদের আরেক দল অ্যাটলেটিকো পেয়েছে ইংলিশ লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন লেস্টার সিটিকে। নিজেদের লিগে ধুঁকতে থাকা এই লেস্টার সিটি চ্যাম্পিয়নস লিগে সম্পূর্ণই নিজেদের ভিন্নভাবে উপস্থাপন করেছে এই পর্যন্ত। দেখা যাক, ডিয়েগো সিমিওনের অ্যাটলেটিকোকে হারানোর জন্য তাঁদের অস্ত্রভাণ্ডারে কি লুকিয়ে আছে!

স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনা লড়বে ইতালিয়ান জায়ান্ট জুভেন্টাসের বিরুদ্ধে। মেসি-নেইমার-সুয়ারেজের বিশ্বসেরা অ্যাটাকিং লাইনআপের পরীক্ষা নেবে বিশ্বের কঠিনতম ডিফেন্স, জর্জো কিয়েল্লিনি-অ্যান্দ্রেয়া বারজাগলি-লিওনার্দো বোনুচ্চি। এতদিন ধরে বার্সার ডিফেন্সের অতন্দ্র প্রহরী হয়ে থাকা রাইটব্যাক দানি আলভেস এই মৌসুমেই যোগ দিয়েছেন জুভেন্টাসে, নিজের সাবেক দলের বিরুদ্ধে তাঁর লড়াইটা কিরকম হবে, কিংবা আসল লিওনেল মেসির সাথে নতুন মেসি নামে খ্যাত জুভেন্টাসের স্ট্রাইকার পাবলো ডাইবালার লড়াইটা কিরকম হবে সেটা দেখার অপেক্ষায় থাকবে বিশ্ব।

বাকী ম্যাচে জার্মান জায়ান্ট বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের সাথে লড়বে ফরাসী ক্লাব মোনাকো। তরুণ তুর্কি দিয়ে ঠাসা দল দুটো মৌসুমের শুরু থেকেই খেলছে অনেক আক্রমণাত্মক ফুটবল। যেখানে ডর্টমুন্ডের আছে রাফায়েল গেরেইরো-জুলিয়ান ভাইগেল-ক্রিস্টিয়ান পিউলিসিচ-ঔসমানে দেম্বেলে-এমরে মর এর সাথে পিয়েরে এমেরিক অবামেয়াং কিংবা মার্কো রইসের মত তারকারা, মোনাকোতেও জিব্রিল সিদিবে-কিলিয়ান এমবাপে-বেঞ্জামিন মেন্ডি-তিয়েমুয়ে বাকায়োকো-থমাস লেমারের তরুণ রক্তের উচ্ছ্বাসের সাথে মিশেছে রাদামেল ফ্যালকাওয়ের মত অভিজ্ঞদের সুপারস্টারডম। ম্যাচটার অপেক্ষায় থাকবে পাঁড় ফুটবল ভক্তরা।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

2 + 7 =