দুমিনি ! আহ দুমিনি !

গতকালকের ধর্মশালার ভারত আর দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম টি২০ ম্যাচটাতে দক্ষিণ আফ্রিকা ৭ উইকেটে জিতেছে । তবে ম্যাচটার আলাদা ফিচার হলো ম্যাচটা আরো একবার দেখিয়ে দিলো খেলাটার এই ফরম্যাট আসলে ঠিক কতোটা মশলাদার হতে পারে ঠিকঠাক দিনে ।

২০০ রানের টার্গেটে আমলা আর ভিলিয়ার্স ব্যাট করতে নেমে রোহিত শর্মার সেঞ্চুরিকে ঢেকে দেওয়ার রাস্তায় ঠিকঠাকমতোই হাঁটছিলেন । না , হাঁটছিলেন বলার চাইতে দৌঁড়াচ্ছিলেন বললেই ভালো শোনা যায় । ৬ ওভারে ৬৭ আর ৭ ওভারে ৭২ রান উঠার পরে ধোনি আক্সার আর অশ্বিনকে এনে তার মাস্টারস্ট্রোক খেলে দিলেন । ডটবলের চাপে প্রথমে আমলা রান আউট আর ডি ভিলিয়ার্স অশ্বিনের টার্ন মিস করে বোল্ড ।

তারপরে দুমিনির সাথে দু প্লেসিস শুধু আরো স্লো-ই খেলেছেন । রিকোয়ার্ড রেট আকাশে যেয়ে ঠেকেছে । দু প্লেসিস আউটের পরে বেহারদীন এসে তবু একটা দুইটা ভালো শটে রিকোয়ার্ড রেট কমিয়েছেন । কিন্তু তারপরেও রিকোয়ার্ড রেটটা ১২ এর কাছাকাছিই ঘুরেছে । ১৫ ওভার শেষে ৩০ বলে লাগে ৬৬ রান । তখনো ডুমিনি স্লো আর বেহারদীন একটু আধটু মারছেন । দুমিনির ১৪ বলে ১৫ আর বেহারদীনের ১৫ বলে ২৫ ।

তারপরে এসে গেলো আক্সার প্যাটেলের সেই ওভার …

২ ১ ১ ৬ ৬ ৬ ডট

এখন লাগে ২৪ বলে ৪৪ … টার্গেট দৃষ্টিসীমাতে …
দুমিনি-বেহারদীন তাদের ভালো দিনটা আরো অনেক বেশি ভালো করে দিলেন ম্যাচটা২ বল হাতে রেখে শেষ করে ।
২২ রানের এক ওভার । আর তাতেই সারা ম্যাচে রাজ করা ভারত ম্যাচের বাইরে ।

ক্রিকেট পন্ডিতরা কী বলবে আমি জানি না …
তবে খেলার বিশ্বায়নের জন্যে এমন ম্যাচের, এমন ফরম্যাটের বিকল্প কোথায় ???

দুমিনির ইনিংসের হাইলাইটস

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

13 − 2 =