শো-বোটিং কাণ্ড!

গতকাল ম্যাচের শেষ দিকে নেইমারের শো-বোটিং (show-boating) বা দুই পায়ের দূর্দান্ত স্কিলের পরাস্ত হয়ে বিলবাও এর খেলোয়াররা উত্তেজিত হবার একটা ব্যাখ্যা পাওয়া গেল ইয়াহু স্পোর্টসের রিপোর্টে। রিপোর্টে জানাচ্ছে দুই পা ব্যবহার করে প্রতিপক্ষের মাথার উপর দিয়ে বল পাঠিয়ে তাকে ডজ দেবার কৌশলটি স্পেনে প্রতিপক্ষের প্রতি অপমানসূচক মনে করা হয়। বার্সার স্প্যানিশ কোচ এনরিকেও একমত বিলবাও খেলোয়ারদের অভিযোগের সাথেঃ
“স্পেনে এই জিনিসটাকে একদমই পছন্দ করা হয়না। বিলবাও খেলোয়ারদের জায়গায় আমি থাকলে হয়তও আমিও এইভাবে প্রতিক্রিয়া দেখাতাম। তবে আপনাকে প্রেক্ষাপটটা বুঝতে হবে। এটা ব্রাজিলে খুবই স্বাভাবিক একটি ফুটবল স্কিল। ওরা কিন্তু এটা প্রতিপক্ষকে ছোট করার জন্য করেনা। কিন্তু আপনি যখন হারতে থাকবেন তখন সহজেই মাথা গরম করে ফেলেন। স্প্যানিশ দর্শকরা মাঠে এইধরনের স্কিল দেখতে পছন্দ করেনা। তবে সত্যি বলছি, ট্রেনিং-এ নেইমার এর চেয়েও আরো দারুণ সব স্কিল দেখাতে পারে।”


বিলবাও এর ডিফেন্ডার ইরাওলা অবশ্য এই জিনিসটাকে কোন স্কিল বলে মানতে রাজি ননঃ
“এটা ফুটবলই না। তার উচিৎ মাঠের আদব-কায়দা শিখে আসা।”


তবে অতসব উপদেশবাণী শুনতে রাজি নন নেইমার। তার সাফকথাঃ
“উত্তেজিত তারা হতেই পারে, কিন্তু আমি আমার মতো খেলি। আমরা ছোট থেকে এভাবেই খেলে আসছি। কেউ আমার খেলা দেখে উত্তেজিত হচ্ছে বলে আমি আমার খেলা পাল্টাব না।”

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

15 + eight =