“বাংলাদেশের জান-প্রাণ”- শুধুই কি বিজ্ঞাপন??

জনাব সাকিব আল হাসান,
গত ৪ বছরে বাংলাদেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে ভালো আলোচনা এবং কৌতুহলের বিষয় হচ্ছে লংগার ভার্সনে আপনার ব্যাটিং স্টাইল। আপনি পেপার পত্রিকার সমালোচনা পড়েন কিনা জানিনা, তবে যেটা জানি সেটা হচ্ছে আমি টেস্ট ক্রিকেটে সবসময় এই স্টাইলে ব্যাট করার বিরোধী না। পজিটিভনেস আর হঠকারিতার মাঝে একটা চিকন দেয়াল আছে সেটা বুঝে নেওয়াটা জরুরি। নেমে ২য় বলেই স্লটে বল পেয়ে কভার ড্রাইভ খেলাটা পজিটিভনেস, আর প্রথম ইনিংসে ২১৭ রান করে ২য় ইনিংসে নেমেই ডাউন দ্যা উইকেটে উড়িয়ে মারাটা নিদারুণ হঠকারিতা। এবি ডি ভিলিয়ার্স বা শচীন টেন্ডুলকারের উদাহরণ সবাই দেয়। কিন্তু কেউ জানে না, আপনি শচীনের মত ক্রিকেটের একনিষ্ঠ ছাত্র নন, বরং প্রয়োগবাদী ক্রিকেটার।

বোর্ড সভাপতি মাস খানেক আগে একটা স্টেটমেন্ট দিয়েছেন। সেটায় তিনি বলেন, সাকিব-মুশফিক ১০ বছরের বেশি সময় ধরে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট খেলছেন, তাদেরকে ক্রিকেট কে শেখাবে? সত্যিই তো, ১০ বছর ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট খেলা প্লেয়ারটিকে খেলার স্টাইল বদলে দেওয়া সম্ভব শুধ সাইন্স ফিকশন মুভির মাধ্যমে ব্রেইন বদলে দেওয়ার মাধ্যমেই।

আপনার গতকাল বিকালের ব্যাটিং নিয়ে মানুষ সমালোচনা করছে, পেশাদার সাংবাদিকেরা এর মধ্যে দলের অন্তর্কোন্দলের খবর খুঁজছে। সাংবাদিকরা তাদের অভিজ্ঞতা দিয়ে এসব ব্যাপারে আমাদের চাইতে একটু হলেও ভালো বোঝেন। তাই সেটার জাজমেন্টে আমি যাচ্ছি না। সে খবরের সত্য বা মিথ্যা যাচাই করার আগ্রহও আমার নেই। তবে আমি যে জিনিসটা সম্পর্কে জানি সেটা হচ্ছে গত দুই যুগ বছর ধরে যে খেলাটাকে মানুষ বাংলাদেশের প্রধান খেলার বাইরে নিজের জীবনের একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ বানিয়ে ফেলেছে, সে খেলাটাকে মানুষ কতোটা ভালোবাসে। জাতীয় জীবন আর দেশের অর্থনীতি যেখানে সমস্যায় ভরা, তার পরের জেনারেশন কীভাবে এদেশে ভালো ও নিরাপদ জীবিকার সন্ধান করবে সেটা নিয়ে একটা বড় অংশ চিন্তিত না। তারা চিন্তিত পরের দিনটা ক্রিকেট মাঠে আপনাদের দলটা কীভাবে পার করবে সেটা নিয়ে।

আপনার ব্যক্তিগত সমস্যা, দলের মধ্যে বোঝাপড়ার অভাব সবকিছু দিয়ে মানুষ এই ব্যাপারটাকে জাস্টিফাই করার চেষ্টা করছে। কিন্তু আপনার ইনিংসের দিকে তো শুধু যাদের সাথে আপনার সমস্যা তারা তাকিয়ে থাকে না। “বাংলাদেশের জান, বাংলাদেশের প্রাণ” – আপনার কাছে কি শুধুই বিজ্ঞাপনের ট্যাগলাইন?? যদি শুধুই বিজ্ঞাপনের ট্যাগলাইন হয়ে থাকে, তাহলে আপনার কষ্টগুলো ব্যাটিং এর মধ্য দিয়েই বেরোক। আর শুধু বিজ্ঞাপনের লাইন না হয়ে থাকলে ইনিংসটা টিম ম্যানেজমেন্টের বাইরে অন্য কারো কথা ভেবে হলেও স্বাভাবিক হয়ে ফিরুক।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

4 × 3 =