মিলান থেকে জুভেন্টাসে : মাত্তিয়া ডি শিলিও

বেশ কয়েকবছর আগে মিলানের হয়ে যখন অভিষেক ঘটল তাঁর, অনেকে তাঁকে ভবিষ্যৎ পাওলো মালদিনি হিসেবে অভিহিত করেছিলেন। গত কয়েকবছরে তাঁর সেই নামের প্রতি তিনি যে সুবিচার করেছেন, সেটা মোটেই বলা যাবেনা। আর এখন ত এমন এক কাজ করছেন যার ফলে তাঁকে আর কোনভাবেই মালদিনি বলাই যাবেনা! ক্লাব ছাড়ছেন মাত্তিয়া ডি শিলিও, যোগ দিচ্ছেন শত্রুশিবির জুভেন্টাসে। এই মৌসুমেই জুভেন্টাস ছেড়ে ফরাসী ক্লাব পিএসজিতে যোগ দিয়েছেন ব্রাজিলিয়ান রাইটব্যাক দানি আলভেস। মূলত তাঁর অভাব পূরণের উদ্দেশ্যেই এসি মিলান থেকে ডি শিলিওকে উড়িয়ে আনছে তারা। মোটামুটি ১২ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে এই ট্রান্সফারটা সম্পন্ন হচ্ছে, ফলে জুভেন্টাসের ডিফেন্সের ডানদিকে স্টেফান লিচটস্টাইনারের সাথে এবার দেখা যাবে মাত্তিয়া ডি শিলিওকে।

মাত্তিয়া ডি শিলিওর খেলার একটা গুরুত্বপূর্ণ দিক হচ্ছে তিনি রাইটব্যাক ছাড়াও লেফটব্যাক হিসেবেও খেলতে পারেন। খেলতে পারেন ৩-৫-২ বা ৩-৪-৩ ফর্মেশানে উইংব্যাক হিসেবেও। গত মৌসুমটা এত ভালো কাটেনি যদিও, পুরো মৌসুমে ত্রিশোর্ধ্ব ম্যাচ খেলে গোলসহায়তা করেছেন দুটি, গোল ত করেনইনি। মিলান ক্যারিয়ারে ১১০টার মত ম্যাচ খেলা ডি শিলিও ইতালির জার্সি গায়ে জড়িয়েছেন ৩১বারের মত। ওরকম গতিতারকা নন তিনি, তবে পজিশানিং সেন্স দুর্দান্ত। মাঝে মাঝে উপরে উঠতে গিয়ে ঠিকমত ডিফেন্সে না নামার ফলে নিজের দলের বিপদ ডেকে আনেন।

তবে দানি আলভেসের জায়গায় মাত্তিয়া ডি শিলিওকে আনার সিদ্ধান্তটা ঠিক কতটুকু যুক্তিপূর্ণ? দুইজনের সফল পাস দেওয়ার হার মোটামুটি সমান, ডি শিলিওর বরং একটু বেশীই – দানি আলভেসের ৮৫ শতাংশ, ডি শিলিওর ৮৬ শতাংশ। দানি আলভেসও শিলিওর মতই গত মৌসুমে লিগে গোলসহায়তা করেছেন দুটি, যদিও আলভেস গোলও করেছেন দুটি। তবে গোল করার সুযোগ সৃষ্টির দিক দিয়ে ডি শিলিওর থেকে যোজন যোজন এগিয়ে আছেন দানি আলভেস, যেখানে আলভেস ৩৩বার গোল করার সুযোগ সৃষ্টি করেছিলেন, ডি শিলিও করেছিলেন মাত্র ১৪টি। সফল ট্যাকল আবার ডি শিলিওর ৩৫টা, যেখানে আলভেসের ২৯টা। দুইজনের প্রতিপক্ষের পা থেকে বল কেড়ে নেওয়ার হারটাও মোটামুটি সমান। আবারে বাতাসে ভেসে আসা বল কন্ট্রোল করার ক্ষেত্রে ডি শিলিও আলভেসের থেকে বেশ ভালো। বল ক্লিয়ার করার ক্ষেত্রে ত আলভেস ডি শিলিওর ধারেকাছেও নেই, যেখানে ডি শিলিও ৯৪বার বল ক্লিয়ার করেছেন বিপজ্জনক এলাকা থেকে, আলভেস করেছেন মাত্র ১৫বার। তাই বলা যায়, আলভেসের মত ডি শিলিও হয়োতোবা অতটা আক্রমণাত্মক নন, কিন্তু রক্ষণের দিক দিকে আলভেসের থেকে একটু হলেও ভালো।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

13 − one =