মেসি বনাম রোনালদো, কে বেশী সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারে মাঠে?

Goodcall একটি স্ট্যাটিস্টিক্যাল এনালাইসিস গ্রুপ, যারা একটা এলগরিদম দাঁড় করিয়েছে যেটা ফুটবলারদের ক্ষেত্রে সহায়ক। একজন ফুটবলার মাঠে কতোটুক সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারে এটা তারা সেই এলগরিদমের মাধ্যমে বের করতে পারে। এরা একজন খেলোয়াড়কে নাম্বার দেয় তার দক্ষতা এবং মাঠে তড়িৎ সিদ্ধান্ত নিতে পারার ওপরে।

আক্রমণভাগের একজন খেলোয়াড়ের জন্য গোল এবং গোল তৈরি করার ওপর তার প্রতি ম্যাচের দক্ষতা নির্ভর করে (Efficiency Per Match (EPM))। সুতরাং একজন ফরোয়ার্ড যদি প্রতি ম্যাচে একটি করে গোলের জন্য রেস্পন্স করে তাহলে তার Efficiency Per Match (EPM) দাঁড়ায় ১০০! আবার যদি দুটি গোলের জন্য রেস্পন্স করে তাহলে তার Efficiency Per Match (EPM) দাঁড়ায় ২০০! এছাড়াও খেলার মধ্যে গোলের জন্য নেয়া শট, পাস, চান্স, কী পাস এসব সিদ্ধান্ত নিতে পারার মধ্য থেকে goodcall একজন কোয়ালিটি খেলোয়াড় বের করে আনে।

এই এলগরিদমে কিছু জটিল ম্যাথমেটিক্যাল টার্ম ব্যবহার করা হয়েছে, যার ফলে মাঠে একজন খেলোয়াড়ের অবদান তুলে ধরার ক্ষেত্রে এটা প্রত্যাশিত ফলাফলটাই তুলে আনে।

GoodCall metrics ব্যবহারের মাধ্যমে আমরা দেখতে পাবো মাঠে কে কতটুক সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

লিও মেসি’র সিদ্ধান্তগুলোকে মাইক্রোস্কোপের নিচে আনার পর আশ্চর্যজনক ফলাফল দেখা গেছে। তার Efficiency Per Match (EPM) মোটামুটি ধরাছোঁয়ার বাইরে। প্রতি ম্যাচে ২.৩৮টা গোলের জন্য সে রেস্পন্স করে। এবং তার নেয়া ০.৬৩% সিদ্ধান্তই সঠিক হয়।

বড় পাঁচটি লীগে খেলা average আক্রমণাত্মক খেলোয়াড়দের থেকে মেসি কতোটা ভালো? পাঁচটি লীগে খেলা average আক্রমণাত্মক খেলোয়াড়দের Efficiency Per Match (EPM) হচ্ছে ৩৪, অর্থ্যাৎ তারা প্রতি ম্যাচে ০.৩৪ গোলের জন্য রেস্পন্স করে। এবং মাঠে তাদের নেয়া সিদ্ধান্তের ০.১২% সঠিক হয়।

দেখা যাচ্ছে মেসি দক্ষতায় প্রায় ৭ গুণ এগিয়ে আছে তাদের থেকে। অন্যান্যদের তুলনায় মাঠে মেসি’র সিদ্ধান্ত মোটামুটি ৫০০% সঠিক।

এখন আসা যাক, যারা সাধারণ নয় তাদের তুলনায় মেসি কেমন? যেমন, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো বা আরিয়েন রোবেন।

রোনালদো’র Efficiency Per Match (EPM) হচ্ছে ১১৮, অর্থ্যাৎ প্রতি ম্যাচে সে ১.১৮টি গোলের জন্য রেস্পন্স করে। রোবেন খুব বেশি পিছিয়ে নেই রোনালদো’র চেয়ে। তার প্রতি ম্যাচে Efficiency Per Match (EPM) হচ্ছে ১১৫, অর্থ্যাৎ প্রতি ম্যাচে গোলের জন্য তার রেস্পন্স ১.১৫। মাঠে রোনালদোর নেয়া সিদ্ধান্তগুলো সঠিক হয় ০.৪৩%। এই জায়গায় রোবেন এগিয়ে গেছে, তার সঠিক সিদ্ধন্তানের পরিমাণ ০.৫২%।

বড় পাঁচটি লীগে খেলা average আক্রমণাত্মক খেলোয়াড়দের চেয়ে রোনালদো এবং রোবেন প্রায় ৩গুণ এগিয়ে আছে। কিন্তু মেসি’র সাথে তুলনায়? যাই হোক তারা মেসি নয়।

GoodCall খেলাকে আরও নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বিশ্লেষণ করতে পারে, ফলে আমরা পরিষ্কারভাবে দেখতে পারি কখন এবং কোথায় খেলোয়াড়রা সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়।

উদাহরণ স্বরুপ বলা যায়, পজেশনের ক্ষেত্রে মেসি’র Efficiency Per Match (EPM) হচ্ছে ৮৭, যেটা রোনালদোর EPM পজেশন থেকে অনেকগুণ বেশী, রোনালদো’র ২৩। পজেশনের ক্ষেত্রে মেসি’র নেয়া সিদ্ধান্ত প্রায় ০.৫৭% সঠিক, যেটা রোনালদো’র ০.৩০%।

একজন প্লেমেকার হিসেবে কোয়ালিটির দিক দিয়ে রোবেনের চেয়ে অনেক এগিয়ে আছে মেসি। পজেশনের ক্ষেত্রে রোবেনের EPM হচ্ছে ১৯ এবং ০.৩৫% সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

উপরের স্ট্যাটগুলো প্রমাণ করে মেসি শুধুমাত্র গোলস্কোরার ফেনমেনন নয়, তার চেয়ে বেশী চমৎকার প্লেমেকার।

যখন আক্রমণের সময় আসে, অর্থ্যাৎ পজেশন ছেড়ে যখন ডিফেন্স লাইন ভেঙে এগিয়ে যাওয়ার প্রয়োজন পরে রোনালদো’র তুলনায় মেসি অনেক বেশী আক্রমণ করে। আক্রমণের ক্ষেত্রে মেসি’র Efficiency Per Match (EPM) থাকে ১১৯, রোনালদো এবং রোবেনের যথাক্রমে ৪১ এবং ৬৬।

আক্রমণের ক্ষেত্রে মেসি’র সঠিক সিদ্ধান্তের পরিমাণ ০.৭৪% যেটা রোনালদো’র তুলনায় প্রায় ১.৫ গুণ বেশী। রোনালদো’র সঠিক সিদ্ধান্ত .০.৪৯% এবং রোবেনের ০.৫৫%।

তবে GoodCall কাউন্টার এটাকের এলগরিদমে রোনালদো এগিয়ে গেছে। কাউন্টার এটাকের ক্ষেত্রে রোনালদো’র Efficiency Per Match (EPM) ৪১ যেটা মেসি’র থেকে ২.৭৩ গুণ বেশী। কাউন্টার এটাকের ক্ষেত্রে রোনালদো’র সিদ্ধান্ত ০.৮৯% সঠিক হয়, মেসি’র সঠিক সিদ্ধান্তের পরিমাণ ০.৪২%।

ক্লিয়ার কাট চান্সের ক্ষেত্রেও রোনালদো এগিয়ে আছে মেসি’র থেকে। এক্ষেত্রে রোনালদো’র Efficiency Per Match (EPM) হচ্ছে ১৮ এবং ০.৫১% সঠিক সিদ্ধান্ত। মেসি’র ক্লিয়ার কাট চান্স Efficiency Per Match (EPM) হচ্ছে ১৫ এবং ০.৩৯% সঠিক সিদ্ধান্ত।

সবদিক বিবেচনায় Goodcall প্লেমেকার হিসাবে মেসির ডিসিশন একইসাথে আক্রমণে অন্য প্লেয়ারের সহায়ক হয়ে ওঠার ক্ষমতা মেসিকে রোনালদোর চেয়ে কার্যকর এবং বৈচিত্র্যময় ফরোয়ার্ড বানিয়েছে।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

five × 2 =