উত্তরটা থাকুক নেইমারের হাতেই

৩৫ ম্যাচে ৩ হাজার মিনিট, সিজন যখন শেষ হবে তখন প্রায় খেলা হয়ে যাবে ৫০ ম্যাচে সাড়ে ৪ হাজার মিনিট! আমি আপনি এমন প্রেশারে কন্টিনিউ প্লে করলে সোজা হাই প্রেশার হয়ে যাবে কিন্ত নেইমার এখনো বেচে আছে! ক্লাবে খেলার পর বাছাইপর্বে ও তারে লাগবে কোপায় ও তারে লাগবে অলিম্পিকেও তারে লাগবে লাগবে বলে নিবেন চাপের জোরে শরীরে না নিতে পারলে ক্রিকেটার সাকিবের মত তারেও রাজাকার, টাকার পাগল বলে আখ্যা দিবেন ইহা কোন বালোবাসা???
সিজনের শুরুতে যেই নেইমার দেখা গিয়েছিল এখন সেই নেইমার কই? সিজনের শুরুর পর অক্টোবর থেকে নভেম্বর পর্যন্ত ১০ ম্যাচে ১৩ গোল সাথে ৮ এসিস্ট! কিন্ত মাঝখানে এসে গত জানুয়ারি মাস থেকে আমার লিখা পর্যন্ত মাত্র ২ গোল! ভাবা যায়? সিজন শুরুর সেই ক্রিয়েটিভিটি, ওয়ান টু ওয়ান, এক্সিলারেশন, ফিনিশিং, কাট ইন করে দ্রুতগতিতে ডুকে পড়া সেই আগের মত নেই! না নেইমারকে ব্লেম দিচ্ছিনা এটা ন্যাচারাল প্রত্যেকটা প্লেয়ারিরি হয়। নেইমারের বেলায় আরেকটু বেশীই হবে! ড্রিবলিংয়ের জন্যে যতটানা তার বডিটা ইউজফুল তার চেয়ে বেশী হার্মফুল তার লং পিরিয়ড ফর্ম কনসিস্টেন্সির জন্যে।
এখন আপনার যদি মনে হয় যে না নেইমারের দুটোতে পারফর্ম করার চাইতে একটিতে করলে বেটার হবে, বেটার পারফর্ম করতে পারবে তাহলে কোনটা চুজ করবে? ১০০ বছরের পুর্তির বড়দের কোপা নাকি আন্ডার ২৩ অলিম্পিক?
আমি বলবো কোপা আ্যমেরিকা! অনেক শক্ত লজিক থাকতে পারে অনেকের! না কোপা না আমাদের এখনো পর্যন্ত না জিতা অলিম্পিক স্বর্ণের আকাঙ্খাটাই বেশী! তাদের দোষ দিচ্ছি না হয়তো তাদের আবেগটা বেশী কাজ করছে। অলিম্পিক হচ্ছে বৈশ্বিক ক্রীড়ার আসর, ফুটবলের আসর না! যেখানে ইয়থ প্লেয়াররা পারফর্ম করবে একটি স্বর্ণের জন্যে হাজারো স্বর্ণের ভিতর এটাও একটি স্বর্ণ! এটা জিতলে যে খুব বেশী একটা মাতামাতি হবে তা না! না জিতার জন্যে এইটার চাহিদা আমাদের কাছে আলাদীনের চেরাগ হয়ে গেছে! আর নেইমার হাতের কাছ থেকে হারানোয় তার আগ্রহটা আরো বেশী! বারবার বলছেও সে! নেইমার ব্রাজিলের ক্যাপ্টেন মানে ব্রাজিল ন্যাশনাল টিমের, আন্ডার ২৩ এর না একজন ন্যাশনাল টিমের ক্যাপ্টেন, ওয়ান অফ দি ওয়ার্ল্ড বেস্ট আন্ডার ২৩ প্লেয়ারদের সাথে খেলে কতটুকু ম্যাচ করতে পারবে আদৌ জিতবে কিনা সন্দেহ থাকবেই সেখানে জাতীয় দলকে বিপদে ঠেলে দিয়ে ক্যাপ্টেন কিভাবে যাবে তার দায়িত্ববোধ নিয়েও কিন্ত ঠিক বিরাট প্রশ্ন দাড়াবে! ব্রাজিল জাতীয় দল এখন যে দুর্গম অবস্হা পাড়ি দিচ্ছে কোপা আ্যামেরিকা জয় হতে পারে ঘুরে দাড়ানোর বিশাল প্ল্যাটফর্ম! আর নেইমার ছাড়া এটা আচাবুয়ার বোম্ভাচাক!
অন্যদিকে আমাদের ইয়থ টিমটা এবার যথেষ্ট শক্তিশালী রাফিনহা, পেরেইরা, এন্ডারসন, তালিস্কা, গ্যাব্রিয়েল সহ অনেক মানসম্মত প্লেয়ার আছে নিজেদের দেশের মাটিতে হওয়ায় এদের কনফিডেন্স লেভেল হাই থাকবে! তাদের সাথে বড়দের থেকে লুইজ, আলভেজ, উইলিয়ানদের পাঠালেই এনাফ। ভাগ্য ফিরে তাকালে অনায়াসে জিতবো আর ভাগ্য না থাকলে নেইমার কেন পেলে আসলেও হবেনা! আর সেখানে ন্যাশনাল লেভেলে বড়দের টুর্নামেন্টে মান ইজ্জতের প্রশ্নে ১০০ বছরের পুর্তির অনেক গুরুত্ত্বপুর্ণ আর ঐতিহ্যবাহী কোপায় দলকে বিপর্যয়ে ফেলে ক্যাপ্টেন নেইমারের অলিম্পিকে যাওয়াটাতো বোকামিই হবে!!!!

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

5 − two =