মরিনহোর মাদ্রিদ-হতাশা

গতকাল ইউরোপা লিগজয়ী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে ২-১ গোলে হারিয়ে ইউয়েফা সুপার কাপের শিরোপা ঘরে তুলেছে ইউয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ী রিয়াল মাদ্রিদ। এ কথা সকলেরই জানা। কিন্তু এই ম্যাচের মাধ্যমে একটা চমকপ্রদ রেকর্ডের জন্ম দিয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পর্তুগীজ ম্যানেজার হোসে মরিনহো। রেকর্ডটা ম্যানেজার হিসেবে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে জয়শূণ্য থাকার রেকর্ড।

এ পর্যন্ত ম্যানেজার হিসেবে পাঁচবার রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হয়েছেন এককালে রিয়াল মাদ্রিদকে কোচিং করানো এই হোসে মরিনহো। এই পাঁচবারের মধ্যে একবারও জয়ের মুখ দেখতে পারেনি মরিনহোর ম্যানেজ করা ক্লাব, জয়ের মুখ দেখতে পারেননি হোসে মরিনহো। চারবার হেরেছেন, আর ড্র করতে পেরেছেন একবার। এই পাঁচটা ম্যাচের মধ্যে চারটা ম্যাচেই মরিনহো ম্যানেজার ছিলেন পর্তুগিজ ক্লাব এফসি পোর্তোর, আর এক ম্যাচে (কালকেরটায়) ম্যানেজার ছিলেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের। দেখে নেওয়া যাক রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে মরিনহোর ক্লাবগুলোর পারফরম্যান্সের কড়চা –

  • এফসি পোর্তো বনাম রিয়াল মাদ্রিদ ; ২০০১-০২ চ্যাম্পিয়নস লিগ দ্বিতীয় গ্রুপপর্ব প্রথম লেগ – (০-১) 

আর্জেন্টাইন লেফট উইঙ্গার সান্তিয়াগো সোলারির ৮৩ মিনিটের গোলে মরিনহোর এফসি পোর্তোকে মত হারায় রিয়াল মাদ্রিদ।

  • এফসি পোর্তো বনাম রিয়াল মাদ্রিদ ; ২০০১-০২ চ্যাম্পিয়নস লিগ দ্বিতীয় গ্রুপপর্ব দ্বিতীয় লেগ – (১-২) 

দ্বিতীয় লেগেও মরিনহো-হন্তারক হিসেবে আবির্ভুত হল সান্তিয়াগো সোলারি। সাত মিনিটের গোলে মাদ্রিদকে এগিয়ে দেন সোলারি, ২০ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুন করেন স্প্যানিশ ডিফেন্ডার ইভান হেলেগুয়েরা। ২৮ মিনিটে মরিনহোর পোর্তোর হয়ে সান্ত্বনাসূচক গোল করেন পর্তুগীজ উইঙ্গার কাপুচো।

  • এফসি পোর্তো বনাম রিয়াল মাদ্রিদ ; ২০০৩-০৪ চ্যাম্পিয়নস লিগ গ্রুপপর্ব প্রথম লেগ – (১-৩) :

পোর্তোর মাঠ এস্তাদিও দ্রাগাওতে ৩-১ গোলে জিতে আসে এই ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদ। আগেরবারের মত এই ম্যাচেও গোল করেন সান্তিয়াগো সোলারি ও ইভান হেলেগুয়েরা। রিয়ালের বাকী গোলটি আসে মাদ্রিদের বর্তমান ম্যানেজার জিনেদিন জিদানের পা থেকে। সাত মিনিটে পর্তুগিজ মিডফিল্ডার কস্টিনহা গোল করে পোর্তোকে এগিয়ে দিয়েও তাই কোন লাভ হয়নি।

  • এফসি পোর্তো বনাম রিয়াল মাদ্রিদ ; ২০০৩-০৪ চ্যাম্পিয়নস লিগ গ্রুপপর্ব দ্বিতীয় লেগ (১-১) :

এই ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে প্রথম ড্রয়ের স্বাদ পান হোসে মরিনহো, যেটা কিনা এখন পর্যন্ত রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে মরিনহোর সর্বোচ্চ সাফল্য। এই ম্যাচেও গোল করেন সান্তিয়াগো সোলারি ; ফলে মরিনহোর পোর্তোর বিরুদ্ধে খেলা চারটা ম্যাচের প্রত্যেকটাতেই গোল করার অনন্য রেকর্ড করেন এই আর্জেন্টাইং লেফট উইঙ্গার। ৩৫ মিনিটে পোর্তোর হয়ে পেনাল্টিতে সমতাসূচক গোল করেন ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার দেরলেই।

  • ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড বনাম রিয়াল মাদ্রিদ ; ২০১৭ ইউয়েফা সুপার কাপ (১-২) :

প্রথমার্ধে ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ক্যাসেমিরোর গোলে এগিয়ে যাওয়া মাদ্রিদ ব্যবধান দ্বিগুণ করে স্প্যানিশ মিডফিল্ডার ইসকোর গোলে। ৬২ মিনিটে বেলজিয়ান স্ট্রাইকার রোমেলু লুকাকু ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে গোল করে ব্যবধান কমান।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

five × 3 =