“মাদ্রিদ ডার্বি নাকি ফুটবলীয় রেসেলম্যানিয়া”!

গতরাতে উয়েফা চ্যাম্পিয়ান্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে এথলেটিকো মাদ্রিদের মাঠ ভিসেন্তে কালদেরনে তাদের মুখোমুখি হয় বর্তমান চ্যাম্পিয়ান রিয়াল মাদ্রিদ।হাই ভোল্টেজ ম্যাচে কোন দল ই গোল করতে না পারলে 0-0 তে শেষ হয় প্রথম লেগের খেলা।ম্যাচে বল দখলের চেয়ে প্রতিপক্ষ খেলোয়ারকে টেকেল বা ফাউল করাই যেন মুল লক্ষ্য ছিল দুদলের খেলোয়ারদের।যাতে এগিয়ে ছিল রিয়াল মাদ্রিদ প্লেয়ারেরাই!পুরো ম্যাচে কেবল  মারিও মানডুকিজ ই ৭ বার ফাউলের শিকার হয়েছেন!এর মধ্যে ৫১ মিনিটে রিয়াল ডিফেন্ডার সারজিও রেমস কুনুয়ের গুতায় নাক থেকে রক্ত বের করে ফেলেন এথলেটিকো মাদ্রিদ এ ফরোয়ার্ডের!যদিও এতে রেফ্রি কোন ফাউল দেন না এথলেটিকো মদ্রিদকে!এর খানিক বাদেই ডিবক্সের ভিতর আবারও সেই  মারিও মানডুকিজকেই হাঁত দিয়ে টেনে ফেলে দেন আরেক রিয়াল ডিফেন্ডার দানি কারভাজাল!এবারও রেফ্রি মাজিক,ফাউলের কোন বাশি দেন না! রিয়াল খেলোয়াড়দের ফাউল দেখে মনে হচ্ছিলো “বড় ভাই-বেরাদারদের(রিয়াল মাদ্রিদ) কাছে একটু আধটু শাসন(কুনুইয়ের গুতা বা ধাক্কা) না পেলে খেলা শিখবেই বা ক্যামনে এথলেটিকো মাদ্রিদ!আর বড় দলই বা হবে ক্যামনে! বলেন”? যদিও টুইটার বার্তায় ম্যাচের পর রেমস ও কারভাজার স্বেচ্ছায় ফাউলের কথা অস্বীকার করেছেন! আগামী ২২ এপ্রিল বুধবার রিয়ালের মাঠ সান্থিয়াগো বার্নাবুতে দ্বিতীয় লেগে মুখোমুখি হবে দুদল!

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

5 × 2 =