কম টেস্ট খেলার আক্ষেপ

শুধুমাত্র মুরালি, স্টেইন, হেরাথ আর আমাদের সাকিবের যতগুলো দলের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ খেলেছে সব দলের বিপক্ষে ইনিংসে ৫ উইকেট নেওয়ার রেকর্ড রয়েছে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রায় এক যুগের কাছাকাছি কাটিয়ে দিলেও এখনো অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট খেলা হয় নাই সাকিবের তাই ওদের বিপক্ষে ৫ উইকেটও নাই।

২৭ তারিখ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশ খেলতে নামলে সে ম্যাচ হবে আমাদের ৫০০ তম আন্তর্জাতিক ম্যাচ। এছাড়া হবে দুই বন্ধু সাকিব তামিমের ৫০ তম টেস্ট ম্যাচ। এসব সংখ্যাভিত্তিক ম্যাচগুলো আমরা বেশ ভালো করি, আশাবাদী অজিদের বিপক্ষে ভালো করা যাবে।

সাকিব তামিমদের সারাজীবনের আফসোস হলো আমরা খুব কম টেস্ট খেলি, বছরে হাতেগণা কয়েকটা। সাকিবের মাত্র এক বছর আগে অভিষেক হওয়া এলিস্টার কুক খেলে ফেলেছে ১৪৪ টেস্ট। আর আমাদের সাকিব তামিমদের ৫০ টেস্ট ম্যাচ খেলার কোটা পূর্ণ করতে ক্যারিয়ারের প্রায় অনেক সময় শেষ। এই সময়ে যদি ওরা অন্তত ৮০ টেস্ট খেলতে পারতো তাইলে সাকিব তামিমের অবস্থান সেরাদের কাতারে থাকতো।

কম টেস্ট খেলে হয়তো সমকালীন সেরা হওয়া যায়, সর্বকালের সেরা না। কম টেস্ট খেলার আক্ষেপ পোড়াবে বেশ।

@রিফাত এমিল

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

4 − 1 =