#যদিকিছুমনেনাকরেন

এখন যেহেতু আমরা অফিশিয়ালি সেমিতে, তাই কিছু “কতা কইতাম চাই!”
আমরা র‍্যাংকিংয়ের ছয় নম্বর দল হিসেবে যথেষ্ট যোগ্যতা দেখিয়েই সেমিতে গিয়েছি। হয়তো ভারত বাদ পড়ে যাবে সেমিতে যাবার আগেই। আর আমাদেরকে নিয়ে কুকথা বলা অনেক দল অলরেডি বাদ পড়ে গিয়েওছে। এই আনন্দের সময়ে সব কিছু মিলিয়ে মাত্র তিনটি কথা বলতে চাইছিলামঃ
১। আমাদের সাফল্য মানে অন্য কাউকে যেনো গণহারে গালি দেওয়া না হয়। দল হিসেবে আমাদের জাতীয় দল যেমন ম্যাচিওরড হয়েছে সেরকম সমর্থক হিসেবে আমাদেরকেও ম্যাচিওরড হতে পারতে হবে। নচেৎ আমাদের আর আমাদের প্রতিবেশীদের সমর্থকদের ভেতরে কোন পার্থক্য থাকবে না।
২। আকাশ কুসুম প্রত্যাশা পরিহার করা দরকার। অন্য যেকোন দক্ষতার মতন খেলায় দক্ষতা এবং সাফল্য অর্জন একটি লং-টার্ম এবং চলমান প্রক্রিয়া। ছয় নম্বর দল হয়ে সেমিতে চলে গিয়েছি মানেই ট্রফি জিতে ফেলবো এধরণের আশাবাদ থাকতেই পারে কিন্তু সেটা পূরণ না হলে হার্ট-ব্রোকেন হয়ে যা খুশি তাই বলবো সেটা মোটেই ভালো কথা নয়।
৩। আজ সাফল্যের আর আনন্দের দিনে আমাদের টাইগারদের যেমন আমরা মাথায় তুলে নাচছি, কাল একটা ম্যাচ/একটা সিরিয খারাপ করলেই কোন প্লেয়ারকে নিয়ে যাচ্ছেতাই বলে আমাদের বংশের পরিচয়টা না দিলেও বোধহয় হয়।

একসময় কোন একটা ম্যাচ জিতলেই আমাদের দল ভিক্টরি ল্যাপ দিতো মাঠে। এখন সেমিতে গেলেও বোধহয় দেয় না। আমাদেরও সেরকম অভ্যাস রপ্ত করার সময় এসেছে মনে হয়। দিনশেষে তো এটা একটা খেলা-ই, তাই না? 🙂 ::

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

eleven + 18 =