হ্যাটস অফ ক্লার্ক!

হাতে ৮ উইকেট, দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যানের একজনের ম্যাচে জোড়া সেঞ্চুরির হাতছানি। লিড ৩৯১ রানের। টেস্টের মাত্র তৃতীয় দিন। আমাদের উপমহাদেশের তথাকথিত ভালো অধিনায়করা তো বটেই, অারও বেশির ভাগ অধিনায়কই চাইবেন, আরও দুই-আড়াই সেশন ব্যাট করে লিড ৫০০-৬০০ করে রানটাকে ধরাছোঁয়ার বাইরে নিয়ে তবেই ইনিংস ছাড়তে। কিন্তু ক্লার্ক কি করলেন? এই অবস্থায়ই ইনিংস ঘোষণা করে দিলেন!

ভাবনাটা পড়তে কষ্ট হওয়ার কথা নয়। সামনেই অ্যাশেজ, আরও কঠিন চ্যালেঞ্জ। ক্লার্ক নিজেদেরই চ্যালেঞ্জ করলেন। পারসোনাল মাইলস্টোনের জন্য পুতপুতু ক্রিকেট খেলে লাভ নেই। ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য ৩৯১ রান যথেষ্টরও বেশি। ক্লার্ক বোলারদের কাছে বার্তা দিলেন, এই রানেই অনায়াসে জিতে দেখাতে হবে!

ক্লার্কের ক্যাপ্টেন্সি ক্যারিয়ারে অবশ্য এসব নতুন কিছু নয়। আক্রমণাত্মক ক্যাপ্টেন্সির ধারণাটাকে নতুন উচ্চতায় নিচ্ছেন নিত্যই। ক্রিকইনফো লাইভ কমেন্ট্রিতে এক পাঠকের কমেন্ট আমার দারুণ পছন্দ হইছে, “I like aggressive declarations, but this one is turbo-aggressive.”

টেস্ট ক্রিকেট শিশু-কিশোরদের খেলা নয়, পুরুষদের খেলা। ইয়ান চ্যাপেল, মার্ক টেলর, মাইকেল ক্লার্কের মতো ক্যাপ্টেনরাই আসল পুরুষ..!

লেখকের ফেইসবুক স্ট্যাটাস অবলম্বনে…

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

5 − 1 =