ইউ মে হেইট দেম, বাট কান্ট আন্ডারএস্টিমেইট দেয়ার স্পিরিট!

১৯৫৪ সালে হাঙ্গেরির লিজেন্ড পুসকাস ইনজুরি নিয়ে নেমেও দলকে জিতাতে পারেননি বিশ্বকাপ। প্রতিপক্ষ জার্মানি।
১৯৭৪ সালে ডাচ লিজেন্ড ইয়োহান ক্রুইফ প্রথমে গোল করেও দলকে জিতাতে পারেননি বিশ্বকাপ। প্রতিপক্ষ জার্মানি।
১৯৯০ সালে দশজনের আর্জেন্টিনা আনতে পারেনি ম্যারাডনার দ্বিতীয় বিশ্বকাপ।
প্রতিপক্ষ জার্মানি।
২০১৪ সালে টানা চারবারের বর্ষসেরা লিওনেল মেসি দলকে এনে দিতে পারেননি বিশ্বকাপ। এবারেও প্রতিপক্ষ জার্মানি।
এই জার্মানিই বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রানার্সআপ, সর্বোচ্চ সেমিফাইনালিস্ট। জার্মানির ইতিহাসে হয়তো কোনো পেলে, ম্যারাডোনা, রোনালদো, মেসি বা জিদান পর্যায়ের কিংবদন্তী নেই।( বেকেনবাওয়ার, রুমিনিগে, জার্ড মুলার ) কিন্তু বরাবরই তাদের থাকে টিম স্পিরিট।বারবার একজন লিজেন্ড এর দলকে পরাজিত করিয়ে তারা দেখিয়ে দেয়, “Football is not a one man show”

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

17 + seven =