আমাদের এগিয়ে যাওয়া

ম্যাচটা হলে খুব ভালো লাগত। কার্টেইলড ওভার না, ভালো লাগত পুরো ম্যাচ হলে…

আমাদের ওয়ানডে দল এখন পরের লেভেলটায় পা রেখেছে। এখান থেকে এবার এগিয়ে যাওয়ার পালা। প্রায় প্রতিটি ম্যাচই ক্রিকেট বিশ্বকে নতুন কোনো বার্তা দেওয়ার সুযোগ। নিজেদেরও আরেকটু চেনা, নিজেদের সামর্থ্য জানার সুযোগ। বিদেশের মাটিতে আমরা তিনশ রান তাড়া করতে পারি কিনা, করতে পারলেও সেটা কতটা গুছিয়ে, কতটা পেশাদারীত্বে, কতটা অথোরিটি নিয়ে করতে পারি, সেটা দেখার-দেখানোর সুযোগ ছিল…

আজকের রানটা একদম পারফেক্ট ছিল এসব পরখ করে নেওয়ার জন্য। ৩১২ মানে পরিকল্পনা করে গুছিয়ে এগোনো যায়। ৩৩০-৩৩৫ হয়ে গেলে আবার অনেক যদি-তবে-কিন্তুর ওপর নির্ভর করে… তবে সুযোগ শেষ হয়ে যাচ্ছে না। সামনেও আসবে। এসএসসিতে খেলা, এই মাঠের উইকেট ট্র্যাডিশনালি শ্রীলঙ্কা তো বটেই, বিশ্ব ক্রিকেটেরই সবচেয়ে ভালো ব্যাটিং উইকেটগুলোর অন্যতম। যদিও এবার কেমন উইকেট জানি না। আর ফ্লাডলাইট নেই, ডে ম্যাচ। গরম-টরমও ফ্যাক্টর হতে পরে। তবে আরেকটি বড় রানের ম্যাচ হলেও হতে পারে…

তাসকিনকে অভিনন্দন। ম্যাচের প্রেক্ষিতে যদিও খুব বড় প্রভাবক কিছু ছিল না, তবে হ্যাটট্রিক তো হ্যাটট্রিকই। কত কত গ্রেট বোলারের হ্যাটট্রিক সৌভাগ্য হয়নি! তাসকিন হ্যাটট্রিকের স্বাদ পেয়েছে, আশা করি একদিন গ্রেটনেসও অর্জন করবে…

বাংলাদেশের পাঁচটি হ্যাটট্রিক হয়ে গেল…ইংল্যান্ড,দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউ জিল্যান্ড, ভারত, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, জিম্বাবুয়ের চেয়ে বাংলাদেশের হ্যাটট্রিক বেশি। দারুণ ব্যাপার!

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

19 + nineteen =