কোপা আমেরিকায় দুঙ্গার রণকৌশল কি হতে পারে?

প্রীতি ম্যাচ দুটোই ছিলো দুংগার এক্সপেরিমেন্ট নেওয়ার শেষ সময়! সেই এক্সপেরিমেন্ট থেকে আমরা কি পেলাম?

১। সিলভা নাকি লুইজ হু উইল বি স্টার্টার?

: এই প্রীতি ম্যাচ ২ টার আগে বিশ্বকাপের স্টার্টার সিলভা এবং লুইজ একসাথে দলে ফিট ছিলোনা একবার এ ইঞ্জুরিতে বাদ পড়েতো আরেকবার ও! একই সাথে ২ জনেই দলে ফিট থাকলে দুংগার আনডাউটলি চুজ মিরান্ডার সাথে কে স্টার্ট করবে তা নিয়ে যথেষ্ট মিস্ট্রি ছিলো সবার! অনেকেই প্রায় ধরেই নিয়েছিল, চ্যাম্পিয়ন্স লীগে পিএসজির হয়ে, বার্সার সুয়ারেজের ২ নাটমেগ হজম করা লুইজ কে প্লেস লিভ করতে হবে এবং সিলভা – মিরান্ডার সলিড ডিফেন্স বিল্ড আপ হবে। কিন্ত আশায় গুড়োবালি। দুংগাকে যথেষ্ট শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেই বলছি, দুংগার এখানে একরোখা সিদ্বান্ত, সে সিলভার প্রতি যথেষ্ট ক্ষোভের বশবর্তী হয়ে পক্ষপাতিত্ব করেছে। ক্লিন শিট তত্ত্বে দুংগা যতই বাহবা ছাড়ুক গুস্তাভো, দানিলো, অস্কারের অনুপস্থিতিতে এগেইনেষ্ট বিগ টিম সাচ লাইক আর্জেন্টিনা, উরুগুয়ে হি উইল সাফার্ড আ লট। সিলভার মত সলিড ডিফেন্ডার কে দল থেকে বাদ দেওয়ার সাহস একমাত্র দুংগাই করতে পারেন। মিরান্ডা পারফেক্ট এজ ওয়েল, বাট লুইজ এহেড অফ সিলভা – এটা মামার বাড়ির আবদার না হলে ঠিক আছে!! উই ব্যাডলি নিড হিম! কিন্ত মিস করতে যাচ্ছি। কারন লুইজ গুড বাট সিলভা বেটার।

২। অস্কার দুংগার মিডে অটো চয়েজ ছিলো! অস্কারের ইঞ্জুরিতে দুংগা কিভাবে ব্যাক আপ নিবে সেটা এই ২ টি প্রীতি ম্যাচের আরেকটি গুরুত্ত্বপুর্ণ ফ্যাক্ট ছিলো। কৌতিনহো থাকা সত্ত্বেও কেন এ্যাটাকিং মিডি নিয়ে চিন্তা করতে হবে তা সহজ সরল মনের সমর্থকদের সরল প্রশ্ন হলেও, দুংগার গেম প্ল্যানে এটাই সবচেয়ে আলোচিত বিষয় বলা যায়। এখনো পর্য্ন্ত কিন্ত কিছুটা সেই ধোঁয়াশার ভিতরেই আছি একরকম, স্টার্টার হিসেবে কৌতিনহো স্টার্টার এবং তার চান্স ক্রিয়েশন, পাসিং একুরেসি, প্লেয়ার বিল্ড আপ, গোল স্কোর নিয়ে সে তার এবিলিটি শো করেছে যে হোয়াট হি ক্যান ডু সেই দিক থেকে বলা যায় ও ৭০% কনফার্মড। আর ৩০% দিতে পারছিনা একারনে যে এমনিতেই দুংগা মাত্রাতিরিক্ত ডিফেন্সিভ মাইন্ডেড কোচ, সেই হিসেবেই টিম কম্বিনেশন বিল্ড আপ করবে। তার উপর অস্কার লুইজ গুস্তাভো নেই। মিড ডিফেন্সিভলী উইক হয়ে যাওয়াতে সে চাইবে সেটা ফিল আপ করতে, আর সেখানেই বাজিমাত করে বসে আছে ফ্রেড। গত ২ টি ম্যাচের বেস্ট পারফর্মার ও! সারা মাঠ জুড়ে খেলেছে ! ডিফেন্সিভলী কৌতিনহো থেকে মাচ বেটার ছিলো! এ দিক চিন্তায় হয়তো কৌতিকে লিভ দিতে হবে। তবে কৌতির পারফর্মটা এ দিকটাও বেশীই হাইলাইটস হতে পারেনি। ২ জন ডিফেন্সিভ মিডি থাকলে একজন প্রফেশনাল এ্যাটাকিং মিডি নিয়েই খেলা বেটার। ফিরমিনো কে এ্যাটাকিং মিডি হিসেবে কিংবা রিবেইরোর স্টার্টার হওয়াটা আপাতত হচ্ছে না।

ফিরমিনো
ফিরমিনো

৩।ফিরমিনো না তারদেল্লি। তারদেল্লি দুংগা দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই ফার্স্ট চুজ ছিলো ফলস নাইন হিসেবে, কিন্ত চীনে যাওয়া, ইঞ্জুরিতে পড়া, এদিকে ফিরমিনো নিজেকে প্রুভড করে প্লেস ক্রিয়েট করে নেওয়ায় একটা কনফিউশন থাকলেও এখন মনে হচ্ছে ওই তারদেল্লিই স্টার্টার হবে! এবং সেটাই বেটার হবে! আর ফিরমিনো সাব হিসেবে থাকবে। পজিশনিং, ভিশন, স্কোরিং এবিলিটি, এরিয়াল ডুয়েল ভালোই আর অভিজ্ঞতায় এগিয়ে থাকবে অত্যন্ত হার্ডওয়ার্কার এই তারদেল্লি। ফিরমিনো কে স্টার্টার হিসেবে দেখলে খারাপ হতোনা, কিন্ত দুংগার প্লে ওয়েতে তারদেল্লিই বেশীই এজাস্ট হতে পেরেছে। ৪। আলভেজকে দলে নিলেও ও স্টার্টার হিসেবে খেলবেনা ফ্যাবিনহো ই খেলবে, এলিয়াস আর ফার্নান্দিনহো স্টার্ট করবে ডিএম হিসেবে। ৩-৪ জন স্টার্টার না থাকা সত্বেও আমরা হোপলেস হচ্ছিনা এই কারনে যে, দুংগা আমাদেরকে একটি দল হিসেবে গড়ে তুলতে পেরেছে, কোন প্লেয়ারের উপর অতিরিক্ত নির্ভরশীল না হয়ে, যার পরিনাম গত বিশ্বকাপে দেখা হয়ে গেছে। সেই তুলনায় এই দলটি নেইমার ছাড়াও অনেক ব্যালেন্সড এবং সংঘবদ্ধ। কাতিয়ে কুতিয়ে হলেও যদি জয়রথ দিয়ে কোপা শেষ করতে পারি, তাহলে হয়তো বিশ্বকাপের লজ্জা মুছে দিয়ে বুক উচু করে কয়দিন হাটতে পারবো। আপাদত শুভ কামনা।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

2 + four =