কেমন হল দল? ঢাকা ডিনামাইটস

ঢাকা আগে ছিল গ্ল্যাডিয়েটর, এখন নাম দিয়েছে ডিনামাইট। বেক্সিমকো গ্রুপের মালিকানায় ঢাকা বিভাগের নতুন প্রতিনিধি এবার বিপিএল এ। কেমন হল তাদের দল?
দলটা দেখে একটা কথাই মনে হল, এর মূল শক্তি বোলিং। মুস্তাফিজ এদের এক নম্বর তুরুপের তাস। বলের গতি ইচ্ছামতো বাড়িয়ে কমিয়ে, কাটারে প্রতিপক্ষের বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানকে কচুকাটা করে তিনি বাংলাদেশের ক্রিকেটের নতুন দিনের প্রতিনিধি। বাঁহাতি পেসার এমনিতেই রহস্যময়, তার বোলিং চোখের জন্য প্রশান্তি এনে দেয়, কিন্তু বিপক্ষের ব্যাটসম্যানরা চোখে দেখতে থাকেন সরষে ফুল! শুধু মুস্তাফিজেই শেষ মনে করলে ভুল করবেন, বিরাট ভুল! কারণ ইরফান আছেন। ৭ ফুট উচ্চতার এই বাঁহাতি পেসার নিজের উচ্চতার কারনে বাড়তি বাউন্স পেয়ে থাকেন, তার সাথে সমীহ জাগানিয়া গতি নিয়ে তিনিও ডিনামাইটের বড় অস্ত্র।
বাংলার উইকেট সব সময়ই ঘূর্ণির জাদুকে বেশি আপন করে নেয়, তাই ইয়াসির শাহ আছেন, আছেন মশাররফ হোসেন রুবেল। চিনতে পারলেন না তো? তিনি ছিলেন বিরাট এক সম্ভবনার নাম এদেশের ক্রিকেটে, পরে আইসিএলে গিয়ে হারিয়েই গেলেন দৃশ্যপট থেকে। দুজন লেগ স্পিনার থাকাতে এবারো তার যে সব ম্যাচে সুযোগ হবেনা, সেটা বলাই যায়।
এদের আইকন ক্রিকেটার রংপুরের বাহে- মানে নাসির হোসেন। এই সব্যসাচী একাই ম্যাচ ঘুরিয়ে দিতে পারেন। ব্যাট আর বল দুটি হাতেই তার বর্তমান ফর্ম আশা জাগাতে পারে ঢাকাইয়াদের মনে। তবে ফরহাদ রেজা আর আবুল হাসান রাজুর অন্তর্ভুক্তি প্রশ্নের উদ্রেক করে। তারা কতটা ভুমিকা রাখতে পারেন, সেটা সময়ই বলে দেবে।
এদের অধিনায়ক এদের সবথেকে বড় শক্তি। ৪০ বছরের চিরতরুণ কুমার সাঙ্গাকারা। তিনি এখনও একাই ম্যাচ জেতানোর যোগ্যতা রাখেন, অল স্টার ক্রিকেটে কদিন আগেও দেখিয়েছেন, অবসর নিলেও ব্যাটের ধার কমেনি একটুও। তাকে ঘিরেই আবর্তিত হবে ঢাকার ব্যাটিং, যেমন শিল্পিত শটে চোখ জুড়িয়ে দিতে পারেন, তেমনি পারেন স্লগ করতে। ২০১৪ টি২০ বিশ্বকাপের ফাইনালে দলকে তিনি যেভাবে জিতিয়েছিলেন, সেটা এখনও স্মৃতিতে অম্লান হয়ে আছে। আছেন নাসির জামশেদ, তবে তার ব্যাটের সাথে সাথে পকেটও কথা বলে কিনা, তাই সাবধান থাকতে হবে একটু! ছোট দলের বড় তারকা টেন দোসাটে ব্যাটিঙে গতি আনতে পারেন, সাথে তার মিডিয়াম পেস কার্যকরী হবে বলেই আশা করা যায়।
সব মিলিয়ে একটা মোটামুটি ভারসাম্যপূর্ণ দল, তবে ব্যাটিং আর একটু ভালো হতে পারতো। আইরিশ স্লগার পল স্তারলিং কিংবা কেভিন ও ব্রায়েন কে নিলে ১০০ তে ১০০ দিতে পারতাম।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

5 × five =