কোপা আমেরিকা টিম প্রিভিউঃ চিলি

কোপা আমেরিকাতে যদি নিরপেক্ষ মানুষদের জিজ্ঞাসা করা হয়, “কোন দল সাপোর্ট করবেন?”, নিশ্চিত থাকেন তাদের বেশিরভাগের উত্তর হবে চিলি।

hi-res-224e2bc1e486ed4f7ef8f6a681015ba3_crop_north

শুরুটা হয়েছিল মারসেলো বিয়েলসাকে দিয়ে। মৃতপ্রায় এক ফুটবল দেশের পুরো ফুটবল সিস্টেমকেই সম্পূর্ণ পাল্টে চিলিকে করে তুলেন এক অসাধারণ দল। কোন ধরণের পরিচয়বিহীন চিলিকে তিনি নতুন একটি পরিচয় দান করেন। চিলির নাম বলতেই মানুষ বুঝে এমন এক দল, হাই প্রেসিং আলট্রা এটাকিং ফুটবল যাদের রক্তে। পুরো স্কোয়াড ভর্তি স্টার প্লেয়ার না থাকলেও তাঁদের ফুটবল সাহসী, যেকোনো সিচুয়েশনে তাঁদের এটাকিং ফুটবল খেলতে দেখা যাবে।

মারসেলো বিয়েলসা চলে গিয়েছেন, কিন্তু তাঁর লেগাসি এখনো বেঁচে আছে আরেক আর্জেন্টাইন সেম্পাওলির মাধ্যমে। বিয়েলসারই এক ডিসিপল এই সেম্পাওলি, তাই বিয়েলসার এক্সেন্ত্রিক ফুটবলকে না ঝেড়ে ফেলে বরং একে উন্নত করার দিকেই মনোযোগ দিয়েছেন সেম্পাওলি। ২০১৪ ওয়ার্ল্ড কাপের মতই সেম্পাওলির চিলিকে ৩ ম্যান ডিফেন্স খেলতে দেখার সম্ভাবনাই বেশি। তবে সুযোগ বুঝে ৪ ম্যানে শিফট করতেও সেম্পাওলি বিন্দুমাত্র দ্বিধাবোধ করবেন না। আর সাথে ইন্টেন্স প্রেসিং, মিডফিল্ডে ক্রাউড সৃষ্টি করা, এবং খুব দ্রুতগতিতে বল জিতার সাথে সাথে সামনে শিফট করা, এগুলো সেম্পাওলির চিলির সিগ্নেচার মেন্যুভার।

দলে স্টার প্লেয়ারেরও কমতি নেই। বার্সেলোনায় কখনো নিজের সেরা না দিতে পারা এলেক্সিস সানচেজ নিজের জাত চিনিয়ে দিয়েছেন আর্সেনালে এসে। ইংলিশ ফুটবলে নিজের প্রথম মৌসুমেই ২৫ গোল ও ১২ এসিস্ট করেছেন তিনি।

Bleachereport

ইনজুরির কারণে অফ-ফর্মে থাকলেও কোন সন্দেহ নেই যে আরটুরো ভিদাল বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা সেন্ত্রাল মিডফিল্ডার। বরাবরই আন্ডার-রেটেড কিপার ক্লোডিও ব্রাভো নিজেকে লাইমলাইটের নিচে নিয়ে এসেছেন বার্সেলোনাই অসাধারণ এক মৌসুম কাটিয়ে।

ব্রাভো, "খায়্যা দিমু সবডিরে!!"
ব্রাভো, “খায়্যা দিমু সবডিরে!!”

তাঁদের পুরো স্কোয়াডঃ

Screenshot_1

কখনো কোপা আমেরিকা শিরোপার মুখ না দেখা চিলি আয়োজক দেশ হিসেবে এবার জিতার স্বপ্ন দেখতেই পারে।

গ্রুপ পর্বে চিলির প্রতিপক্ষ যথাক্রমে ইকুয়েডর, মেক্সিকো ও বলিভিয়া।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

5 × 4 =