বায়ার্ন মিউনিখ : চ্যাম্পিয়নস লিগে যত রেকর্ড

বায়ার্ন মিউনিখ : চ্যাম্পিয়নস লিগে যত রেকর্ড

::: আরাফাত আলিফ ::: উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সর্বোচ্চ ট্রফি রিয়াল মাদ্রিদের থাকলেও , কিছু আর্কষণীয় রেকর্ড শুধু বায়ার্ন মিউনিখ এর আছে। রেকর্ডগুলি হল -   ২০০৬/২০০৭ মৌসুমে রাউন্ড অফ ১৬ এ রিয়াল মাদ্রিদ এর বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগ ইতিহাসে সবচেয়ে দ্রততম গোল ১০.১২ সেকেন্ডে করেন বায়ার্ন মিউনিখ এর ডাচ স্ট্রাইকার রয় মাকায়।   ২০০৮/২০০৯ মৌসুমে

যেখানে ওয়েঙ্গার সবার উপরে!

যেখানে ওয়েঙ্গার সবার উপরে!

গত বছর এফএ কাপ জেতার মাধ্যমে রেকর্ড তের বারের মত এফএ কাপ জয় করেছিল আর্সেনাল, যার মধ্যে কোচ আর্সেন ওয়েঙ্গার এর অধীনেই সাত-সাতবার জিতেছে তারা। এর মাধ্যমে দুটো রেকর্ড গড়েছে আর্সেন ও আর্সেনাল। ইংলিশ ইতিহাসে আর্সেনালের চেয়ে বেশী এফএ কাপ এখন আর কোন দল জেতেনি, আর অন্য কোন ম্যানেজারও আর্সেন

আর্সেন ওয়েঙ্গার বনাম আপনার ক্লাব : কার রেকর্ড ভালো?

আর্সেন ওয়েঙ্গার বনাম আপনার ক্লাব : কার রেকর্ড ভালো?

টানা ২২ বছর আর্সেনালের দায়িত্বে থাকার পর আর্সেনালের ম্যানেজার হিসেবে অব্যাহতি নিতে যাচ্ছেন কিংবদন্তী ম্যানেজার আর্সেন ওয়েঙ্গার। পুরো ক্যারিয়ারে আর্সেনালের ম্যানেজার হিসেবে ১২৪ টা ভিন্ন ভিন্ন ক্লাবের মুখোমুখি হয়েছেন ওয়েঙ্গার, যাদের মধ্যে ৫টা ক্লাব বাদে বাকী সবাইকে হারিয়েছেন তিনি। প্রিমিয়ার লিগে আপনার পছন্দের দল যদি আর্সেনাল বাদে অন্য কোন ক্লাব হয়,

আর্সেন ওয়েঙ্গার এর অজানা যত রেকর্ড!

আর্সেন ওয়েঙ্গার এর অজানা যত রেকর্ড!

টানা ২২ বছর দায়িত্বে থাকার পর এই মৌসুম শেষে ইংলিশ ক্লাব আর্সেনালের দায়িত্ব ছাড়ছেন "এল প্রফেসর" আর্সেন ওয়েঙ্গার। তিনবারের ইংলিশ লিগ, সাতবার করে এফএ কাপ ও কমিউনিটি শিল্ড জয়ী এই ম্যানেজারের রয়েছে আরও বেশ কিছু চমকপ্রদ রেকর্ড! কি সেগুলো? এক নজরে দেখে নেওয়া যাক! প্রিমিয়ার লিগে এই ওয়েঙ্গারই একমাত্র ম্যানেজার

চ্যাম্পিয়নস লিগে মাদ্রিদের হয়ে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো : ১০০ গোলের যত কাহিনী

চ্যাম্পিয়নস লিগে মাদ্রিদের হয়ে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো : ১০০ গোলের যত কাহিনী

গত রাতে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ইউয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডের প্রথম লেগের খেলায় প্যারিস সেইন্ট জার্মেইকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচে জোড়া গোল করে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে ১০০ ও ১০১তম গোল করেছেন পর্তুগিজ রাজপুত্র ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।  দেখে নেওয়া যাক মাদ্রিদের হয়ে শততম গোলের মাইলফলক ছোঁয়ার পথে আর কোন কোন

ডাক কথন!

ডাক কথন!

ক্রিকেট ইতিহাসে এখন শহীদ আফ্রিদি একমাত্র ক্রিকেটার যার কিনা ওয়ানডে, টেস্ট, টি২০, আইপিএল, বিপিএল, পিএসএল, টি২০ ব্লাস্ট এবং আইস ক্রিকেটে ডাক রয়েছে। আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি ডাক (বা শূণ্য রান) সাবেক শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক ও ওপেনার মাতারা হারিকেন সনাথ জয়সুরিয়ার ৩৪ টি; সনাথ জয়সুরিয়ার চেয়ে ৬৪ ইনিংস কম খেলা শহীদ আফ্রিদি

ক্রিস গেইল ঝড়ে লণ্ডভণ্ড হল যত রেকর্ড!

ক্রিস গেইল ঝড়ে লণ্ডভণ্ড হল যত রেকর্ড!

মিরপুর স্টেডিয়ামে ছক্কার বন্যা বইয়ে দিয়ে কাল বিপিএল ফাইনালে বলতে গেলে একাই ঢাকা ডায়নামাইটসকে ধসিয়ে রংপুর রাইডার্সকে শিরোপা এনে দিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান সুপারস্টার ক্রিস গেইল। এক ইনিংসের পথে গেইলের যত কীর্তি: টি-টোয়েন্টিতে এটি ক্রিস গেইলের ২০তম সেঞ্চুরি। ৭টির বেশি সেঞ্চুরি নেই আর কারও প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্রিস গেইল ছুঁয়েছেন ১১

নতুন চূড়ায় রবিচন্দ্রন অশ্বিন

নতুন চূড়ায় রবিচন্দ্রন অশ্বিন

সকাল বেলায় ৩ উইকেট নিয়ে টেস্ট ক্যারিয়ারে ২৯৯ উইকেট হয়ে গিয়েছিল বেশ দ্রুতই রবিচন্দ্রন অশ্বিন এর। এরপর শেষ উইকেটের অপেক্ষা। সেশনকে বাড়িয়ে নেওয়া অতিরিক্ত ১৫ মিনিটও পার হয়ে গেল। অপেক্ষা দীর্ঘায়িত করল লাঞ্চ ব্রেক। লাঞ্চ ব্রেকের পর এক পর্যায়ে দলের জয়ের জন্য প্রয়োজন মাত্র ১ উইকেট, তারও প্রয়োজন সেই একটিই।

মরিনহোর মাদ্রিদ-হতাশা

গতকাল ইউরোপা লিগজয়ী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে ২-১ গোলে হারিয়ে ইউয়েফা সুপার কাপের শিরোপা ঘরে তুলেছে ইউয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ী রিয়াল মাদ্রিদ। এ কথা সকলেরই জানা। কিন্তু এই ম্যাচের মাধ্যমে একটা চমকপ্রদ রেকর্ডের জন্ম দিয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পর্তুগীজ ম্যানেজার হোসে মরিনহো। রেকর্ডটা ম্যানেজার হিসেবে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে জয়শূণ্য থাকার রেকর্ড। এ পর্যন্ত ম্যানেজার

বার্সায় নেইমারের যত রেকর্ড

ম্যাচ খেলেছেন - ১৮৬ গোল করেছেন - ১০৫ গোলসহায়তা করেছেন - ৫৯ লা লিগায় ১২৩ ম্যাচে ৬৮ গোল চ্যাম্পিয়নস লিগে ৪০ ম্যাচে ২১ গোল স্প্যানিশ সুপার কাপে ২ ম্যাচে ১ গোল কোপা দেল রে তে ২০ ম্যাচে ১৫ গোল ট্রফি জিতেছেন - ৮ ; লা লিগা (২), কোপা দেল

সর্বাধিক প্রিমিয়ার লীগ মেডেল জয়ী ৩০ খেলোয়াড়

১. রায়ান গিগস (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড) = ১৩ ২. পল স্কোলস (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড) = ১১ ৩. গ্যারি নেভিল (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড) = ৮ ৪. ডেনিস আরউইন (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড) = ৭ ৫. রয় কিন (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড) = ৬ ৬. ডেভিড বেকহ্যাম (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড) = ৬ ৭. নিকি বাট (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড) = ৬ ৮. ফিল নেভিল (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড) = ৬ ৯. গানার

শ্লথ গতির এ কোন ধোনি?

ক্যারিয়ারের প্রথম থেকেই হার্ডহিটিং ব্যাটসম্যান হিসেবেই পরিচিত হয়ে এসেছেন সাবেক ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। ভারতের টি২০ উত্থানের পেছনে তাঁর অবদানই সর্বাধিক। কিন্তু কালকে তিনি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চলমান সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে যে ইনিংসটা খেললেন, সে ইনিংসের মধ্যে চিরপরিচিত বিধ্বংসী সেই ধোনিকে দেখা গেল কই? লো-স্কোরিং এক ওয়ানডেতে পরিস্থিচি-পিচ বিবেচনা