দুটো ম্যাচ, চারটা কথা

পিকনিক আর ফ্রেন্ডলি শেষ । আমাদের সবার প্রিয় হলুদ ব্রাজিলের এবার আসল ফুটবল শুরু হয়ে গেলো । দুটো প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ অনেক কিছু খুলে দিয়ে গেলো । অনেক ডিসিশন আরো সহজ করে দিয়ে গেলো । আবার অনেক ডিসিশন কঠিনও করে দিয়ে গেলো । একটা একটা করে বলার চেষ্টা নেই ।
১) আমাদের ডিফেন্সে ভদ্র ভাষাতে বলতে গেলে ব্যাকফোরে ভেনিজুয়েলা ম্যাচে ফেলিপে লুইস ছাড়া কাউকে চারটা স্টারও দেওয়া যাবে না । প্রথম ম্যাচে কাউকেই থ্রি স্টারও দেবো না । আর ২য় ম্যাচে শুধুই ফেলিপে লুইস ।
এত খেলার পরেও ভেনিজুয়েলা ম্যাচে আলভেজের শিশুতোষ ভুলটা আসলে বোঝায় দ্যানিলো কতোটা দরকারি দলের এই মুহূর্তে ।
দুইটা বটমলাইন রেখে গেলো । প্রথমত, থিয়াগো সিলভাকে ফেরাতেই হবে আর দ্যানিলোর সেরে উঠাটা দরকারি । দ্বিতীয়ত, আমাদের এই ডিফেন্সে এখনো নিশ্চিত স্টার্টার বলে কিছুই নাই। খুবই স্ট্যাবল একটা ডিফেন্স লাইন আপ পাওয়াটা দরকারি । যদিও দ্যানিলোর ঘন ঘন ইনজুরি এই কাজে বাঁধা দিয়েছে ।
২) মিডফিল্ডে গুস্তাভোর সাথে আসলেই কাকে খেলানো দরকার এটা খুঁজে পাওয়া জরুরি । ক্যাসেমিরোকে এই সিজনে অল্প যা দেখেছি ক্লাব ফুটবলে তাতে আমার মনে হয়েছে সে দলে কমপক্ষে ডাক পাওয়াটা ডিজার্ভ করে । ইনজুরি ফেরত গুস্তাভোর সেরাটা বের করতে আরো সময় দরকার । তবে তাকে খেলানো বন্ধ করা যাবে না । আরো সময় দরকার অস্কারেরও । সে ম্যাচ উইনার । দুই লুকাসের প্রতি অবিচার হয়েছে । লুকাস লিমা আর লুকাস মৌরা – দুজনই আরো বেশি প্লেয়িং টাইম ডিজার্ভ করে ।
দুঙ্গার একমাত্র ভালো পিক আমি বলবো লুকাস লিমাকে ।
৩) এর বাইরে উইলিয়ানের উত্থান চোখে পড়ার মত । অনেক নিচে থেকে বল নিয়ে আসে , দ্বায়িত্ব নেওয়ার প্রবণতা আছে আর সবচেয়ে দরকারি কথা খুব উচ্চভিলাষী কিছু করার চেষ্টাটা কম । এটা ডগলাস কস্তাকে ভুগিয়েছে । আর সে আরও একবার দেখিয়ে দিয়েছে, নেইমার আসলে নেইমারই । অনেক কম বয়সে অনেক বেশি ডিসাইসিভ । ম্যাচের ফল বদলে দেওয়ার পাওয়ারটা বাকি সবার চেয়ে বেশি ।
৪) হাল্ককে কি তার নতুন জায়গায় আরেকটু সুযোগ দেওয়া উচিত ছিলো না ? রাশান লিগ ইউরোপের টপ লিগ না হলেও জেনিত কিন্তু ইউসিএলেও ভালো করছে এই হাল্ককে ভরসা করেই । নামের পাশে অনেক অনেক গোল আসছে হাল্কের । রিকার্দো অলিভিয়েরার চাইতে হাল্কের মত স্টার্টার কি বেশি দরকারি ছিলো না ? আমি আশা করবো , আর্জেন্টিনার সাথে অলিভিয়েরাকে স্টার্ট করানোয় ম্যাচ শেষে আমাদের এটা নিয়ে চুল ছিঁড়তে হবে মা ।
একটা সত্য কথা বলি
বর্তমান অবস্থায় চিলির সাথে ড্র আর আর্জেন্টিনার সাথে পরাজয় সমান রেজাল্ট ।
মেসি ছাড়া আর্জেন্টিনার সাথে ড্র করলেও আমি অনেক ব্যাকফুটে ফেলে দেওয়া রেজাল্ট বলবো সেটাকে ।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

five × three =