বিশ্বাস হারাচ্ছি না

এক. আপীল নাকচ হবে বুঝেই আপীল শেষ করার আগেই সাকিবের রিভিউ। হক আই দেখালো শেষমেশ বলের সামান্য অংশ লেগস্ট্যাম্পের বাইরে পিচ করেছে। আর এতেই ডিসিশন থেকে গেলো। ব্যাটসম্যান বেঁচে গেলেন। হতাশা!

দুই. হাতে থাকা শেষ রিভিউটাও শেষ। জোরালো আপীলের পরে আম্পায়ারের রেসপন্স নেই। পরে রিপ্লেতে দেখা গেলো ডিসিশন একদম পারফেক্ট লেগবিফোর। হতাশার পর আরেক রাউন্ড হতাশা।

দুটো ক্ষেত্রেই একটা কমন জায়গা হলো দুটো বলই লেগস্ট্যাম্প থেকে ঢোকা ডেলিভারি। আমার মতে, এই ডেলিভারিটা ফিল্ড আম্পায়ারের জন্য লেগবিফোর ডিসিশন দেবার জন্যে খুব একটা কমফোর্ট জোনের জায়গা না। এক ইঞ্চি এদিক ওদিক Pitching outside leg বানিয়ে আম্পায়ারকে মিস্টার বিন বানিয়ে দিতে পারে। অফস্ট্যাম্পের ব্যাপারটা আলাদা। এক আধ ইঞ্চি এদিক ওদিক ডিসিশনকে একদম ১০০% ঠিক থেকে ১০০% ভুল বানিয়ে দেয় না। সেই হিসাবে, ঐ দুটো ভুলের জন্যে ভাগ্যকে অনেক বেশি মাত্রায় দুষবো।

কবিগুরু বলেন, “মানুষের উপর বিশ্বাস হারানো পাপ।”
বিশ্বাস তাই একদম হারাচ্ছি না। তবে ডি আর এস জিনিসটার আরো পারফেকশন দরকার। স্নিকো ছাড়া জিনিসটা হাস্যকর। আর রিভিউ এর সংখ্যা বা লেগবিফোর দেওয়ার নিয়মেও আরো মডিফিকেশন দরকার।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

sixteen + 7 =