জন্মদিনের শুভেচ্ছা, লিও মেসি!

জন্মদিনের শুভেচ্ছা, লিও মেসি!

আজি হতে শতবর্ষ পরে,
কে যেন স্মার্ট টিভিতে দেখছ মেসির ভিডিও খানি,
দেখে অবাক হয়ে বলছ,
তুমি কেমন করে পারো হে গুণী!

তিনি ফুটবল পেলেই হয়ে যান জাদুকর। তার পায়ে বল মানেই অসাধারণ কিছু মুহূর্তের প্রতীক্ষা এবং তিনি হতাশ করেন না। তার পায়ে বল মানে, মাঠটা যেন একটা সবুজ ক্যানভাস আর তিনি আপন মনে কাজ করে যাওয়া এক শিল্পী, যার একেকটা সৃষ্টি জন্ম দেয় নতুন বিস্ময়ের। হরমোনের অভাবে একসময় বৃদ্ধি থেমে যাওয়া এই মানুষটি এখন আনন্দ দেন বিশ্বের শত কোটি মানুষকে। তার সহজ সরল হাসি দেখলে যেন মন জুড়িয়ে যায়, আর তার চোখে পানি দেখলে চোখের পানি ধরে রাখতে পারেনা অগণিত মানুষ। সহজ সরল বিনয়ী জীবনযাপন আর ফুটবল পায়ে একের পর এক কীর্তি তাকে করেছে তারুণ্যের আইডল।

জাতীয় দলের হয়ে এখনো তিনি কিছু জিততে পারেননি বলে অনেকে তাকে তার প্রাপ্য মর্যাদা দিতে চান না। কিন্তু ফুটবল ১১ জনের খেলা। গত বিশ্বকাপে তিনি কিভাবে দলকে টেনেছেন, সেটার সাক্ষী কোটি দর্শক। কোপা ২০১৫ তে তার দল ফাইনালে হারলো টাইব্রেকার নামের লটারিতে। ২০১০ এ খেললেন জ্বর নিয়ে, কিন্তু পাড়ার দলের চেয়েও খারাপ ডিফেন্স এর জন্য জার্মান যন্ত্রে পিষ্ট হল তার স্বপ্ন। সেদিনের মেসির কান্না এখনো অনেকের চোখে পানি এনে দেয়। ২০০৬ এ পেকারম্যান তাকে কেন বেঞ্চে বসিয়ে রাখলেন, সেটা কোটি টাকার প্রশ্ন। তিনবার ই জার্মান যন্ত্রে স্বপ্ন পিষ্ট হয়েছে মেসির।

জন্মদিনের শুভেচ্ছা, লিও মেসি!

কিন্তু তাতে কি মেসির মাহাত্ম্য কমে? মোটেই না! মেসি বললে চোখের সামনে ভেসে ওঠে হাসতে হাসতে বলিভিয়ান গোলকিপারকে বোকা বানানো, ইরানের বিপক্ষে সেই ফ্রি কিকে গোল, কোপা ডেল রে ফাইনালে করা দুর্দান্ত সেই উড়ন্ত পাস, পানামার বিপক্ষে ১৯ মিনিটে করা হ্যাট্রিক, ইকুয়েডরের বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে দুর্দান্ত সেই হ্যাটট্রিক, সান্তিয়াগো বার্নাব্যু স্তব্ধ করে দেওয়া শেষ মূহুর্তের সেই গোল, অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে মাঝমাঠ থেকে একাই বল টেনে নিয়ে গিয়ে গোল করা – এরকম অমর হয়ে যাওয়া আরও কিছু মুহূর্ত।

চলমান বিশ্বকাপের শিরোপা জিতলে তার অতৃপ্তি কিছুটা হলেও কমতো, আশা করি এবার তিনি আর পরাজিত সেনাপতি হবেন না, হবেন সমরজয় করা তৃপ্ত, গর্বিত নেতা।

শুভ জন্মদিন মেসি, শুভ জন্মদিন আমাদের ফুটবল দেখার অভিজ্ঞতাটাকে এত মধুময় করিয়ে দেওয়ার জন্য!

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

19 − fourteen =