আসল অপেক্ষা বিশ্বকাপ বাছাইয়ে জন্যে

কার কী অবস্থা জানি না । একদম নিজের কথা বলতে গেলে বলবো , এইসব ফ্রেন্ডলি কিংবা চ্যারিটি ম্যাচ আর ভালো লাগে না একদম । একদমই না ।
গেল তিন চার বছরে আমাদের অবস্থাটা দেখেন । যেই কোচই আসুক … স্কোলারি কিংবা দুঙ্গা- তারা আরামসে ফ্রেন্ডলি জিতে , এক গোল কিংবা দুই গোল কিংবা তিন গোলও করে দেয় দল মাঝে মাঝে… তারা ম্যাচের পরে নানান রকম আশার বুলি ছড়াতে থাকে , আমরা একটা দুইটা প্লেয়ার নিয়ে দারুন মাতামাতি করতে থাকি। ভবিষ্যত রোনালদো বলি, ভবিষ্যত রিভালদো বলি, দিনহো বলি …আর দিনের শেষে প্রতিযোগিতামূলক ফুটবলে গেলে আমরা একদম দারুন গোবেচারার মত মুখ থুবড়ে পড়ি । তারপরে সময়মত দলকে বকাঝকা করি ।

বকাঝকার পরে আবার এক মাস গ্যাপ দিয়ে ফ্রেন্ডলি ম্যাচ থাকে, তাতে আবার জিতে আগের কাজগুলোই করতে থাকি । একটা চক্রের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি । খেলোয়াড় কিংবা ফ্যান- দুই গোষ্ঠীরই এই চক্র থেকে বেরিয়ে আসাটা দারুন ক্রুশাল ।

কনফেডারেশন্স কাপের চ্যাম্পিয়নশিপ এসেছে, তাতে কি আদৌ লাভের লাভ কিছু হয়েছে ?? একদম না ।

কোস্টারিকার সাথে ম্যাচেও হয়তো নতুন চান্স পাওয়া হাল্ক বা লুকাস খুব ভালো কিছু করে দেবে । কিন্তু জায়গামতো গিয়ে ঠিকঠাক হতাশ করবে । খুব করে কম্পিটিটিভ ম্যাচ দরকার এই দলটার । রক্তে বারুদ যোগানো ফুটবল । যেখানে ম্যাচের আগে প্রীতি ম্যাচ কথাটা লেখা থাকবে না । দল গঠনের প্রক্রিয়াটা চলতে থাকুক আসল

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

3 × 1 =