নিজেদের ফিরে পাচ্ছে এসি মিলান ?

ট্রান্সফারের সময়টাতে বেশ সরব ছিলো এসি মিলান বেশ কয়েকটা বড় বড় ট্রান্সফারের সাথে তাদের নামও জড়িয়ে ছিলো । তবে শেষমেষ কার্লোস বাক্কাই হয়ে ছিলেন মিলানের মেগা সাইনিং । সেভিয়াতে শেষ সিজনে সাড়া জাগানো স্ট্রাইকার কার্লোস বাক্কার সাথে মিলান নিয়ে আসে শাখতারের ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার লুইজ আদ্রিয়ানোকে । আর স্ট্রাইকিং ফোর্সের ধার বাড়াতে একদম শেষমেষ লিভারপুল থেকে চলে আসেন ফুটবলের ব্যাডবয় বলে খ্যাত মারিও বালেতোল্লি । এর বাইরে জেনোয়ার কুচকার সাথে রোমা থেকে রামাগ্নোলি আর বার্তোলেচ্চিকে নিয়ে শক্তি বাড়ায় এসি মিলান । সবকিছু মিলিয়ে গত সিজন থেকে একটূ হলেও ভালো দল গড়েছিলো এসি মিলান ।

লিগ শুরু হবার পরে লিগে তাদের পজিশন হয়তো তাদের উন্নতির সূচক হয়ে ধরা দিচ্ছে না । ৪ ম্যাচে ২ জয় আর ২ হার মিলিয়ে লিগে তারা ১০ নাম্বারে । হারের মধ্যে একটা রয়েছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ইন্টারের সাথেও । তবে মিলানের খেলায় যে আত্মবিশ্বাস আর জেতার মানসিকতার অভাব গত সিজনে ছিলো সেটা খুঁজে পাওয়া গেছে ইন্টার মিলানের সাথে ম্যাচেই । সেটাই মূলত আশাবাদী করে তোলে মিলান সমর্থকদের । আর তার ফলাফলটাও হাতেনাতে মিলান পেয়েছে গতরাতে পালের্মোর সাথে ম্যাচে । এর আগে্ ছিলো ১টি গোল । আর গতরাতে পালের্মোর সাথে ২ গোল করে নিজের গোল সংখ্যাকে ৩ এ উঠিয়ে দিলেন কলম্বিয়ান স্ট্রাইকার বাক্কা । আর তাতে মিলানও জয় পেয়েছে ৩-২ গোলে । আর তার সাথে ছিলো বনাভেনচুরার দারুন ফ্রি কিক গোল ।

একটা সময় ছিলো যখন মিলান সিরি আতে তো বটেও ইউরোপিয় পর্যায়েও পেয়েছে নিয়মিত সাফল্য । মাঝের দুই সিজন তারা ইউসিএল খেলতেই পারছে না । কোচ হিসেবে চেষ্টা করা হয়েছে সিডর্ফ ও ইনজাঘির মত হাই প্রোফাইল সাবেকদের । কাজ হয় নি তাতে । নতুন কোচ মিহালোভিচ ভালো করছেন; আশা দেখাচ্ছেন নতুন দিনের । নিজেদের কি ফিরে পাচ্ছে মিলান ???

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

fifteen − one =