একটি ক্যারিবিয় রুপকথা

আহা কি আনন্দ আকাশে বাতাসে! হিরো হবার অদম্য আকাঙ্খাকে বশে রাখতে না পেরে শেষ ওভার করতে এলেন বিরাট, আশা বিরাট কীর্তির, কিন্তু যেই রাসেলের ছক্কা গ্যালারি স্পর্শ করলো, হয়ে গেল রুপকথা! ১৯৩ রান করেও পরাজিত দলের নাম ভারত! ভারতের ইশারায় ক্রিকেট পুতুল নাচ নাচবে- এই কথাকে কিছুটা হলেও ভুল প্রমাণ করা গেল। মুশফিক রিয়াদ আবেগের কাছে হারলেও এরা সংযত, ম্যাচ শেষেই দেখা গেল উদ্দাম নৃত্য। আর সব থেকে আনন্দের কথা হল ভারতের পরাজয়! বিরাটের হার! আহা!
ব্যাট হাতে দুর্দান্ত বিরাটের উপর ভর করেই ভারত ১৯৩ রান করে, এরপর গেইল ৫ রানে বুম্রার বলে বোল্ড হলে ভারতীয়রা ভেবেছিলো ম্যাচ শেষ! কিন্তু ফ্লেচার আর সিমন্স মাথা নত করেননি, আস্কিং রেটের সাথে পাল্লা দিয়েই রান করেছেন, ওয়াঙ্খেরের দর্শকদের মুখের হাসি মিলিয়ে গেছে চোখের জলে, যার আসল নায়ক সিমন্স হলে পার্শ্বনায়ক ফ্লেচার আর রাসেল। ভারতীয় বোলাররাও কি নন? একের পর এক নো বল করে গেছেন, সিমন্স দুবার বেঁচে গেছেন এই নো বলের কারনে। এর মধ্যে একটিতে নিজে ফেরত এসে বলকে উড়িয়ে দিলেন গ্যালারীতে! এক উইকেটের জায়গায় খরচ সাত রান!
যাই হোক, ফাইনালের মতো একটা ফাইনাল হবে। একদিকে সাহসী ইংলিশ সিংহ আর অন্যদিকে চ্যাম্পিয়নের সুরে মাতোয়ারা ক্যারিবিয়রা। ক্রিস গেইলের ঘুম কি ভাঙবে?

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

twenty + fourteen =