উপভোগ করতে দিন ছেলেদের

"অনেক চাপ আমাদের ওপর। একটা ম্যাচ হারলেই অনেক কথা হবে..." চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে প্রথম ম্যাচের আগে আমাদের অধিনায়কের অনেক কথার একটি কথা। কেন এত চাপ? হ্যাঁ, ক্রিকেটারদের চাপ নিয়েই খেলতে হবে। আমাদের উপমহাদেশে এটা সত্যি। আমাদের দেশে আরও বেশি সত্যি। তবে সেই চাপ কেন এমন হবে যে আমাদের দলটাই হাঁসফাঁস করবে? সেই চাপের

দু:খিত আমরা ফেবারিট নই!

বড় টুর্নামেন্ট খেলতে যাবার অভিজ্ঞতা বাংলাদেশের এটাই প্রথম নয়। তবে ২০১৭ সালের আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফির গুরুত্ব আগের সব টুর্নামেন্টের চেয়ে একটু অন্যরকম। এই অন্যরকমটা মূলত দুটো কারণে। প্রথমত, শুধুমাত্র সেরা আটটা দল খেলায় টুর্নামেন্টে কোয়ালিফাই করাটা স্বভাবতই প্রেস্টিজিয়াস ছিলো এবং এই কোয়ালিফাই করা নিয়ে ২০১৫/১৬ তে খেলা সিরিজগুলোতে জল্পনা কল্পনাও

ক্রিকেটের জন্মভূমিতে জমকালো আয়োজন

আমি কিন্তু ট্রফি দেখছি কেন উইলিয়ামসনের হাতে! কোন সময় ভবিষৎবাণী করিনা। ক্রিকেটের প্রতি আমার অনুরাগ সেই ছোট্ট বেলা থেকে, কিন্তু কখনো এমন কথা প্রকাশ করিনি, মনে যা ছিল তা ভিন্ন কথা। এবার বলেই দিলাম। কেন উইলিয়ামসনের বুদ্ধিদীপ্ত অধিনায়কত্ব, ব্যাটসম্যান হিসাবে তার নির্ভরযোগ্যতা, চাপের মুখে অবিচল থাকা আর দলে সব্যসাচীর সমাহার- সব

আরও দুই বছরের জন্য আর্সেনালে ওয়েঙ্গার

এতশত ওয়েঙ্গার-আউট ব্যানার বানিয়ে কি লাভ হল তাহলে বিশ্বব্যাপী আর্সেনাল সমর্থকদের? গোটা মৌসুম জুড়েই আর্সেনালের মুন্ডুপাত করা সমর্থকদের মনের আশা পূরণ হচ্ছে না এখনই। এই মৌসুমেই আর্সেনালের সাথে চুক্তি শেষ হতে যাওয়া ওয়েঙ্গার ক্লাবের সাথে চুক্তি নবায়ন করেছেন আরও দুই বছরের জন্য। গত চার বছরের মধ্যে তিন-তিনবার এফএ কাপ জিতলেই লিগে

আর্সেনালে আসছেন নতুন অঁরি!

গ্রীষ্মকালীন দলবদলের বাজারের কার্যক্রম শুরু করে দিয়েছে আর্সেনাল। বেলজিয়ান ক্লাব ইউপেন থেকে নাইজেরিয়ান স্ট্রাইকার হেনরি ওনিয়েকুরুকে ৬.৮ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে দলে আনছে তারা। সেল্টিক, এভারটন, সাউদাম্পটন, আন্ডারলেখট, ওয়েস্টব্রম, মোনাকো, রোমার মত ক্লাবকে হটিয়ে ১৯ বছর বয়সী এই নাইজেরিয়ান তারকাকে দলে আনল তারা। সদ্য শেষ হওয়া মৌসুমে ৪১ ম্যাচে ২৪ গোল করা

ডমিনিক সোলাঙ্কে – চেলসি থেকে লিভারপুলের পথে

১৯ বছর বয়সী ইংলিশ স্ট্রাইকার ডমিনিক সোলাঙ্কে কে দলে আনছে ইউর্গেন ক্লপের লিভারপুল। ২০১৪ সালে মাত্র ১৭ বছর বয়সে চেলসির মূল দলে অভিষিক্ত এই তরুণ স্ট্রাইকার মূল দলে ডিয়েগো কস্টা, মিচি বাতশুয়াইদের কারণে সুযোগ পাচ্ছিলেন না তেমন। তাই চেলসির সাথে চুক্তি শেষ হতে যাওয়া এই স্ট্রাইকার আবারো নতুন করে চেলসির

বরুশিয়া ডর্টমুন্ড থেকে টমাস টুখেলের বিদায়

মাত্র দুইদিন আগেই জার্মান কাপ জিতলেন, এখন কিছুদিন স্বস্তিতে থাকার কথা ছিল। কিন্তু না, স্বস্তি আর পেলেন কোথায়! ম্যানেজমেন্টের সাথে রেষারেষির জের ধরে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের দায়িত্ব থেকে অব্যহতি নিয়েছেন জার্মান কোচ টমাস টুখেল। দুই বছরে ডর্টমুন্ডের ৬৮টা ম্যাচের দায়িত্বে থাকা টুখেল হারের মুখ দেখেছেন মাত্র ১০ বার। ৪৩ বছুর বয়সী এই

রোমা ছাড়লেন স্প্যালেত্তি, অপেক্ষায় ইন্টার মিলান

ক্লাব কিংবদন্তী ফ্র্যানসেস্কো টট্টির অবসরের বেদনা যেতে না যেতে আরেকটা খাবার খবর শুনলো ইতালিয়ান ক্লাব এএস রোমা। তাদের ইতালিয়ান কোচ লুসিয়ানো স্প্যালেত্তি কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন, শোনা যাচ্ছে খুব শীঘ্রই আরেক ইতালিয়ান জায়ান্ট ইন্টার মিলানের দায়িত্ব নিতে চলেছেন তিনি। এর আগেও ২০০৫ সাল থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত স্প্যালেত্তি রোমার ম্যানেজারের

এসি মিলানের মিডফিল্ডে আইভোরিয়ান পাওয়ারহাউজ : ফ্র্যাঙ্ক কেসি

মালিকানা পরিবর্তনের পর থেকেই নিজেদেরকে ঢেলে সাজাতে শুরু করেছে ইতালির কিংবদন্তী ক্লাব এসি মিলান। ডিফেন্সে ভিয়ারিয়াল থেকে মাতেও মুসাচ্চিও ও ভলফসবুর্গ থেকে রিকার্ডো রড্রিগেজকে আনার পর এবার তাদের লক্ষ্য মিডফিল্ড শক্তিশালী করা, এবং সেই লক্ষ্যেই ২৮ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে আইভোরিয়ান সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার ফ্র্যাঙ্ক কেসি কে আরেক ইতালিয়ান ক্লাব আটালান্টা থেকে

সেই আর্নেস্তো ভালভার্দেই হলেন বার্সেলোনার কোচ

মৌসুম শেষেই বার্সা কোচ লুইস এনরিকে ক্লাব ছাড়ছেন, এ কথা বহু আগে থেকেই জানা ছিল। সামনের ২৯ মে কোপা দেল রে এর ফাইনালের পরেই যে নতুন কোচের নাম ঘোষণা করবে বার্সেলোনা, সেটাও তারা কয়েকদিন আগেই টুইটারে ঘোষণা করে দিয়েছে। লুইস এনরিকের সম্ভাব্য উত্তরসূরি হিসেবে উঠে এসেছে আর্নেস্তো ভালভার্দে, হুয়ান কার্লোস

আসছেন এডারসন – ম্যানসিটির গোলপোস্ট থেকে ব্রাভোর বিদায়?

গত মৌসুমে ম্যানচেস্টার সিটির ম্যানেজার হবার পর সর্বপ্রথম যে কাজটি করেছিলেন পেপ গার্দিওলা, সেটা হল এমন এক গোলরক্ষককে আনা, যেটা কিনা পেপ গার্দিওলার "বল প্লেয়িং" ফিলোসফির সাথে যায়। এ উদ্দেশ্যেই সিটির বহুদিনের সেনানী ইংলিশ গোলরক্ষক জ্যো হার্টকে সরিয়ে ক্লাবে এনেছিলে বার্সেলোনার চিলিয়ান গোলরক্ষক ক্লদিও ব্রাভোকে। ওদিকে জ্যো হার্ট সিটি থেকে

হোক ভারতবধ রিয়াদ-মুশির ব্যাটে

ভারতের প্রস্তুতি ম্যাচ দেখাবে তাদের চ্যানেল স্টার স্পোর্টস! ভারতের বিপক্ষে আমাদের প্রস্তুতি ম্যাচ থকার সুবাদে সে ম্যাচ আমরাও টিভিতে উপভোগ করবো। বাংলাদেশ বনাম ভারতের প্রস্তুতি ম্যাচের বিজ্ঞাপন হিসেবে তারা ব্যবহার করতেছে গত টি২০ বিশ্বকাপে মুশি আর রিয়াদের ব্যর্থতার জন্য এক রানে হেরে যাওয়া ম্যাচ। যা দেখার পরে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের