আক্ষেপ থাকত না!

অবসর নেওয়ার আগে আগে শচীনের বিশ্বকাপ জয়, আইপিএল ট্রফি জয় আর সাঙ্গাকারার টি-২০ বিশ্বকাপ জয় সবগুলোই আমার কাছে নাটকের কাহিনীর মত মনে হয়েছে। যাওয়ার আগে লিজেন্ডদের যাতে কোন আক্ষেপ না থাকে এই জন্য এই ব্যবস্থা করা হয়েছিল। বিশেষ করে শচীনের আক্ষেপ বলতে কিছু নাই। পরিপূর্ণ ক্যারিয়ার। সব আবার ক্যারিয়ারের শেষে পাওয়া। বিঃদ্রঃ

আনবিলিভেবল কোহলি

সুপার টেনে সবচেয়ে বেশি সিঙ্গেলস এবং ডাবলস নেওয়া প্লেয়ারটার নাম বিরাট কোহলি। একদম প্রথাগত ক্রিকেট শট খেলে দুর্দান্ত স্ট্রাইক রেটে রানের পর রান করে যাচ্ছে। খুব সামান্য ইম্প্রোভাইজেশন। এত দ্রুত রান করতে স্কুপ, ইভার্স সুইপ, সুইচ হিট, আপার কাটের মত শটগুলো খেলে না। সুইপই তো খেলে না! অথচ মাঠের সব

জয়তু ইংল্যান্ড!

  অনেকে ভেবেছিলেন, তারা উড়ে যাবে খড়কুটোর মতো। তারা উড়ে যায়নি, খড়কুটোর মতো উড়িয়ে দিয়েছে কিউইদের, মনে করিয়ে দিয়েছে ৯২ এর স্মৃতি। সাধারন হিসাবে গণ্ডগোল করে কেন উইলিয়ামসন বুঝিয়ে দিলেন, তার আরও সময় লাগবে তুখোড় অধিনায়ক হতে। আর যাদেরকে শুরুতে হিসাবেই ধরা হয়নি, সেই ইংল্যান্ড পৌঁছে গেল ফাইনালে। শুরুটা কিউইদের, কিন্তু শেষটা?

ক্রিস রজার্স – অন্তরালের মহানায়ক

স্যার আইজ্যাক নিউটন । সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বিজ্ঞানীদের একজন । মহাকর্ষ ও অভিকর্ষ, গণিতের ইন্টিগ্র্যালের মত যুগান্তকারী আবিস্কারের পর তিনি হাত দিলেন 'ডিফারেন্সিয়াল ক্যালকুলাসের' কাজ । দীর্ঘ কয়েক বছর খেটে ডিসি থিওরীর উপর রচনা করলেন এক বিশাল পাণ্ডুলিপি । কিন্তু জলে গেল সবটাই । পাণ্ডুলিপি তৈরির কয়েকদিনের একদিন তার পোষা কুকুরটি এক

ভালো থাকবেন ওয়াট্টো

সুরেশ রায়নাকে ফিরিয়ে দিয়ে সেই হুংকার । মোহাম্মদ আমিরের বলে সেই টিপিক্যাল ওয়াটসনিক এক্স-ফ্যাক্টরীয় শট । শেষ বারের মত দেখলাম প্রিয় খেলোয়ারটির দুই দফার শেষ যাত্রা । পরাজয়েই যবনিকা বর্ণাঢ্য এক ক্যারিয়ারের । তবে বিদায় বেলাতেই আপন রবিতে উদ্ভাসিত প্রিয় ওয়াট্টো । ভীষণ মিস করবো আপনাকে । মিস করবো চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে আপনার সেমি এবং ফাইনালে

ওয়াট্টোকে দেখতে চাই আরও

মোহালিকে মেলবোর্ন বলে ভ্রম হচ্ছে। একটা ইন্ডিয়ান মাঠের স্কয়ার অফ দ্যা উইকেট এত বড়! এসব মাঠে হিসাব সোজা। ডিপে ফিল্ডার রাখো আর ক্রমাগত শর্ট বল করে যাও। ভারতের শর্ট বলে দুর্বলতা সর্বজন বিদিত। ইনিংসের প্রোগ্রেসের সাথে সাথে বল খানিক ধীরে ব্যাটে আসছে। বল নিচুও হচ্ছে বেশ। এই উইকেটে ১৬০ রান

ধন্যবাদ মাশরাফি!

আমি খেলা দেখা শুরু করেছিলাম যখন, বাংলাদেশের ক্রিকেটে তখন দুঃসময় চলছে। ২০০২ সাল চলছে তখন। জিম্বাবুয়ে, এমনকি কেনিয়াও তখন আমাদের কাছে প্রবল পরাক্রমশালী দল। হিতেশ মোদি, তন্ময় মিশ্রা, ওবুইয়া ব্রাদার্সরাও আমাদের কাছে লিজেন্ডারি খেলোয়াড় বলে অনুভূত হতেন। আর আমরা একের পর এক ম্যাচ হারতাম। ২০০৩ বিশ্বকাপে একটা ম্যাচ জেতার কথা ভেবে

সকল বাংলাদেশি অভদ্রতার শিকল থেকে মুক্তি পাক

পাকিস্তানের সাথে হোমসিরিজে তামিমের সেঞ্চুরির পরে তামিমের সেলিব্রেশনের কথাটা মনে আছে ? একটু বাঁধনহারা আর অনেকটা আক্রমণাত্মক ! অনেক বেশি আক্রমণাত্মক ! পরে তামিম যখন সেই সেলিব্রেশনের ব্যাখ্যা দিলেন, লজ্জায় পরে যেতে হয় সমগ্র ক্রিকেট কমিউনিটিকে আর দেশের প্রত্যেকটা বাংলাদেশিকে। তামিমের অফফর্মের সময় নাকি মানুষ তামিম ইকবালের ওয়াইফের নাম্বারে ফোন দিয়ে

দুই গোলে এগিয়ে থেকেও ড্রঃ ব্রাজিলকে চিন্তায় রাখলো ডিফেন্স

FT BRASIL 2-2 URUGUAY (COSTA, AUGUSTO)(CAVANI, SUAREZ) কিছু কিছু জিনিস দেখতে লাগে দুঃস্বপ্নের মত , কিন্তু আসলে সেগুলো খুব নিয়মতান্ত্রিক উপায়ে প্রকৃতির সাধারণ নিয়মানুসারে আসে । জার্মানির সাথে আমাদের ৭-১ গোলের হারকে একদিনের নিছক দুর্ঘটনা মনে হলেও আসলে একটু ভালোমতো আমাদের আজকের গেইমের প্যাটার্ন দেখলেই বুঝবেন আসলে কেন হয়েছিলো ? ডেভিড লুইজের

ব্রাজিল-উরুগুয়ে ম্যাচ প্রিভিউ

প্রায় ৪ মাস পর নিজেদের মাটিতে ল্যাটিন অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব-২০১৮ এর ৫ম রাউন্ডে উরুগুয়ের মুখোমুখি হচ্ছে ব্রাসিল। খেলাটি শুরু হবে আগামীকাল সকাল ৬টা ৪৫ মিনিটে..! সরাসরি দেখাবে Sony Espn..! . দুঙ্গার ২য় মেয়াদী কোচিং এর অধীনে ২০১৮ বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের বিগত ৪টি ম্যাচের মধ্যে ২টি জয়, ১টি হার ও ১টি ড্র

দুঙ্গার উরুগুয়ে পরীক্ষা

এই পর্যন্ত কনমেবল বাছাইপর্বে আমরা খেলেছি চারটা ম্যাচ,দুইটা ম্যাচ জিতেছি,একটা হেরেছি আর একটা ড্র করেছি । এমন কঠিন বাছাইপর্বে চার ম্যাচে সাত হয়তো অতটা খারাপ না কিন্তু সত্যি বলতে এটা মোটেও আহামরি কিছু না কারণ এই সাত পয়েন্টের মধ্যে ছয় পয়েন্টই আমরা পেয়েছি এই অঞ্চলের সবচেয়ে দূর্বল দুইটা দলের সাথে

জয়তু ক্রুইফ

কালকে খেলায় ওইভাবে হারলো। আজকে আবার জোহান ক্রুইফ মারা গেল! দিন খুন খারাপ যাচ্ছে। এই জোহান ক্রুইফ না থাকলে বার্সেলোনা কখনোইই আজকের বার্সেলোনা হতে পারতো না। কখনোই না। যেই লা মাসিয়া নিয়ে এত গর্ব আমাদের,যেই লা মাসিয়া থেকে পুয়োল,পিকে,আলবা,ভালদেস,জাভি,ইনিয়েস্তা,বুস্কেটস, মেসি, ফ্যাব্রিগাস,পেদ্রোর মত প্লেয়াররা উঠে এসেছে, সেই লা মাসিয়ার শুরুটা এই ক্রুইফের