ইউরো টিম প্রিভিউ : আয়ারল্যান্ড

এর আগে দুইবার ইউরোতে অংশ নিয়ে একবারের জন্যেও গ্রুপপর্বের বাধা পেরোতে পারেনি আইরিশরা। তাই এবার ফ্রান্সে অনুষ্ঠেয় ইউরোতে আইরিশদের মূলত হারানোর কিছু নেই, যতদূরই যাবে, লাভ ততটুকুই। যদিও বেলজিয়াম, ইতালি ও সুইডেন নিয়ে গড়া গ্রুপ ‘ই’ তে আয়ারল্যান্ডের স্থান হয়েছে, দেখেই বোঝা যাচ্ছে গ্রুপটা কতটা কঠিন। কোচ মার্টিন ও’নিল কিছুদিন আগে ইউরোর জন্য ২৩ সদস্যের আয়ারল্যান্ড দল ঘোষণা করেছেন। কিরকম হল দলটা? দেখে নেওয়া যাক।

  • গোলরক্ষক

কাইরেন ওয়েস্টউড (শেফিল্ড ওয়েনসডে)

শ্যেই গিভেন (স্টোক সিটি)

ড্যারেন র‍্যানডলফ (ওয়েস্টহ্যাম ইউনাইটেড)

 

  • ডিফেন্ডার

শ্যেমাস কোলম্যান (এভারটন)

কিয়ারান ক্লার্ক (অ্যাস্টন ভিলা)

জন ও’শ্যেই (স্যান্ডারল্যান্ড)

রিচার্ড কিওফ (ডার্বি কাউন্টি)

শ্যেইন ডাফি (ব্ল্যাকবার্ন রোভার্স)

সাইরাস ক্রিস্টি (ডার্বি কাউন্টি)

স্টিফেন ওয়ার্ড (বার্নলি)

রবি ব্র্যাডি (নরউইচ সিটি)

 

  • মিডফিল্ডার

গ্লেন হুইলান (স্টোক সিটি)

এইডেন ম্যাকগিডি (এভারটন)

জেইমস ম্যাকার্থি (এভারটন)

জেইমস ম্যাকক্লিন (ওয়েস্ট ব্রমউইচ অ্যালবিওন)

জেফ হেনড্রিক (ডার্বি কাউন্টি)

ডেভিড মেইলার (হাল সিটি)

ওয়েস হুলাহান (নরউইচ সিটি)

স্টিফেন কুইন (রিডিং)

গোলবারে থাকছেন পরিচিত মুখ শ্যেই গিভেন
গোলবারে থাকছেন পরিচিত মুখ শ্যেই গিভেন

 

  • স্ট্রাইকার

রবি কিন (লস অ্যাঞ্জেলস গ্যালাক্সি)

শ্যেইন লং (সাউদাম্পটন)

জোনাথান ওয়াল্টার্স (স্টোক সিটি)

ড্যারিল মার্ফি (ইপসউইচ টাউন)

 

  • উল্লেখযোগ্য যারা বাদ পড়লেন

রব এলিওট (গোলরক্ষক, নিউক্যাসল ইউনাইটেড)

মার্ক উইলসন (ডিফেন্ডার, স্টোক সিটি)

ড্যারন গিবসন (ডিফেন্ডার, এভারটন)

অ্যান্থনি পিলকিংটন (মিডফিল্ডার, কার্ডিফ সিটি)

কেভিন ডয়েল (স্ট্রাইকার, কলোরাডো র‍্যাপিডস)

অ্যান্থনি স্টোকস (স্ট্রাইকার, হিবারনিয়ান)

 

দলে আছেন অবিসংবাদিত সুপারস্টার রবি কিন, আয়ারল্যান্ডের ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতা – এবং অভিজ্ঞ পোড় খাওয়া গোলরক্ষক শ্যেই গিভেন ও ডিফেন্ডার জন ও’শ্যেই। তাঁর সাথে আছেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে নিয়মিত পারফর্ম করা কিছু ফুটবলার – জেইমস ম্যাকার্থি, জেইমস ম্যাকক্লিন, শ্যেমাস কোলম্যান, ওয়েস হুলাহান, এইডেন ম্যাকগিডি, শ্যেইন লং, গ্লেন হুইলান ইত্যাদি। আয়ারল্যান্ডের সকল আশা ভরসা নির্ভর করছে তাঁদের ভালো পারফর্ম্যান্সের উপরেই।

দলের প্রাণভোমরা - রবি কীন
দলের প্রাণভোমরা – রবি কীন

 

সাধারণত ৪-৪-২ ও ৪-২-৩-১ ফর্মেশানে খেলা আইরিশদের গোলবারের নিচে স্টোক সিটির গোলরক্ষক শ্যেই গিভেনের খেলা নিশ্চিত। তাঁর ব্যাকআপ হিসেবে দলে নেওয়া হয়েছে ওয়েস্টহ্যাম ইউনাইটেডের ড্যারেন র‍্যানডলফ ও শেফিল্ড ওয়েনসডের কাইরেন ওয়েস্টউডকে। সেন্ট্রাল ডিফেন্সে স্যান্ডারল্যান্ডে খেলা সাবেক ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কিংবদন্তী অভিজ্ঞ জন ও’শ্যেই এর খেলা মোটামুটি নিশ্চিত, স্টোক সিটির মার্ক উইলসন দলে জায়গা না পাওয়ার কারণে তাঁর সাথে জুটি বাঁধবেন অ্যাস্টন ভিলার কিয়ারান ক্লার্ক ও ডার্বি কাউন্টির রিচার্ড কিওফের মধ্যে যেকোন একজন। রাইটব্যাকে এভারটনের শ্যেইমাস কোলম্যানের খেলাটা মোটামুটি নিশ্চিত, তাঁর ব্যাকআপ হিসেবে দলে রাখা হয়েছে হাল সিটির মিডফিল্ডার ডেভিড মেইলার ও ডার্বি কাউন্টির সাইরাস ক্রিস্টি কে। লেফটব্যাক পজিশানে খেলার জন্য জোর লড়াই হবে বার্নলির স্টিফেন ওয়ার্ড ও নরউইচ সিটির রবি ব্র্যাডির মধ্যে।

 

সেন্ট্রাল মিডফিল্ডে জুটি বাঁধার সম্ভাবনা সবচাইতে বেশী স্টোক সিটির গ্লেন হুইলান ও এভারটনের জেইমস ম্যাকার্থির। ব্যাকআপ হিসেবে থাকছেন ডার্বি কাউন্টির জেফ হেনড্রিক ও নরউইচ সিটির ওয়েস হুলাহান। যদিও ৪-২-৩-১ ফর্মেশানে খেললে সেক্ষেত্রে হুইলান-ম্যাকার্থির সেন্ট্রাল মিডফিল্ডের সামনে অ্যাটাকিং মিডফিলডার হিসেবে খেলবেন ওয়েস হুলাহান। দুই উইংয়ে এভারটনের এইডেন ম্যাকগিডি ও ওয়েস্টব্রমের জেইমস ম্যাকক্লিনের খেলার সম্ভাবনা সর্বাধিক। তাঁদের ব্যাকআপ হিসেবে দলে আছেন স্টোক সিটির স্ট্রাইকার জোনাথান ওয়াল্টার্স, হাল সিটির রবি ব্র্যাডি ও জেফ হেনড্রিক।
1456579_Torquay_United

স্ট্রাইকার হিসেবে কোচ মার্টিন ও’নীলের প্রধান পছন্দ কিংবদন্তী রবি কিন ও সাউদাম্পটনের হয়ে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা স্ট্রাইকার শ্যেইন লং। সাথে ব্যাকআপ হিসেবে স্টোক সিটির জন ওয়াল্টার্স ত থাকছেনই।

বেলজিয়াম, ইতালি, সুইডেন নিয়ে গড়া গ্রুপে আয়ারল্যান্ডের দৌড় কদ্দুর হতে পারে, সেটা দেখার জন্য বসে থাকতে হবে ইউরোর জন্য!

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

15 + thirteen =