সাফ ফুটবল ২০১৮ : গ্রুপপর্বে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান, নেপাল ও ভুটান

সাফ ফুটবল ২০১৮ : গ্রুপপর্বে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান, নেপাল ও ভুটান
সেপ্টেম্বরে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ – স্পন্সরের জন্য যার নাম হয়েছে সাফ সুজুকি কাপ ২০১৮। ৪ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া এ টুর্নামেন্ট ১১ দিনব্যাপি চলে শেষ হবে ১৫ সেপ্টেম্বরে। দক্ষিণ এশিয়ার ফুটবল শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ের ড্র অনুষ্ঠিত হলো আজ, বুধবার। সাত জাতির এই আসরে ‘এ’ গ্রুপে পড়েছে বাংলাদেশ। গ্রুপ সঙ্গী হিসেবে আয়োজক বাংলাদেশ পেয়েছে নেপাল, পাকিস্তান ও ভুটানকে। ‘বি’ গ্রুপের তিন দল- ভারত, মালদ্বীপ ও শ্রীলঙ্কা। আজ রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে সাফ ফুটবল ২০১৮ এর ড্র। সাফের বর্তমান সভাপতি কাজী মোহাম্মদ সালাউদ্দিন, সাফের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলাল, সাফ ও বাফুফের প্রতিনিধিবৃন্দ ড্র অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
 
২০১৫ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় শিরোপা জিতেছিল স্বাগতিক দেশ। রানার্সআপ হয়েছিল আফগানিস্তান। আফগানিস্তান এবার সাফে নেই। দক্ষিণ এশীয় অঞ্চল থেকে বেরিয়ে তারা এখন মধ্য এশীয় অঞ্চলের সদস্য। ফলে আট দলের টুর্নামেন্ট না হয়ে সাত দলের টুর্নামেন্ট হচ্ছে এই সাফ সুজুকি কাপ। সর্বশেষ আসরটিও অবশ্য সাত দলেরই ছিল। সেবার সাফ ফুটবল ভারতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে দেখে পাকিস্তান অংশ নেয়নি।
 
২০০৯ সালে সর্বশেষ ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয়েছিল সাফ ফুটবলের আসর। সেবারই শেষবারের মতো সেমিফাইনালে খেলেছিল বাংলাদেশ। ভারতের বিপক্ষে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হওয়ার পর পরের তিনটি আসরে বাংলাদেশের বিদায় হয়েছে গ্রুপ পর্ব থেকেই। তারও আগে নিজের মাটিতে ২০০৩ সালে সাফ ফুটবলে একমাত্র শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশ। এবার কি পারবে বাংলাদেশ সেই সফলতার পুনরাবৃত্তি করতে? দলের সর্বশেষ কোচ অ্যান্ড্রু অর্ড কোচের দায়িত্ব ছেড়ে চলে যাওয়ার পর বর্তমানে একরকম অভিভাবকহীন হয়েই আছে বাংলাদেশ দল। সাফের আগে যোগ্য কোন কোচকে বাংলাদেশের জন্য আনতে পারবেন তো কাজী সালাউদ্দিন?
২০১৬ সালের অক্টোবরে ভুটানের বিপক্ষে এএফসি এশিয়ান কাপ বাছাইপর্বের প্লে অফে হেরে গিয়েছিল বাংলাদেশ। যে ম্যাচের পর এক রকম কালো অধ্যায়ই নেমে এসেছিল বাংলাদেশের ফুটবলে। স্থবির হয়ে পড়েছিল জাতীয় দলের কার্যক্রম। প্রায় ১৭ মাস পর গেল মার্চের শেষ দিকে লাওসের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আবারো মাঠে ফিরে জাতীয় দল। সাফের গ্রুপ পর্বেই সেই ভুটানের বিপক্ষে ম্যাচ বলে বাড়তি একটা আগ্রহ তৈরি হচ্ছে বাংলাদেশের দর্শকদের মনে।
 
বাংলাদেশ অবশ্য তুলনামূলকভাবে সহজ গ্রুপেই পড়েছে এবারের সাফ ফুটবল এ। সবচেয়ে শক্তিশালী দুই দল ভারত ও মালদ্বীপ পড়েছে অন্য গ্রুপে। বাংলাদেশের গ্রুপে বাংলাদেশ ছাড়া নেপাল, ভুটান ও পাকিস্তান কেউই সাফ ফুটবল এর শিরোপার স্বাদ এখনো পায়নি।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

8 − 3 =