সঠিক পরিকল্পনা ছাড়া কিছু হয়না

আগেই বলেছি, এই দলের খেলার ইচ্ছা নিয়ে আমি সন্দিহান! এরা গেছে সরকারি টাকায় কেরালা ঘুরতে আর আমাদের রেশমি চুলের মেঘবালকেরা গেছেন নিজেদের চুল দেখাতে!!! মামুনুল, ওয়ালি ফয়সাল, রায়হান হাসান- আমাদের তিন মেঘবালক!
বোলার ভাষা আর খুঁজে পাচ্ছিনা আসলে। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ডিফেন্সে ইচ্ছা করে বাঁধা দেওয়া, যেটা না দিলেও চলে, সেটা বারবার করার অর্থ কি? অর্থ একটা হতে পারে এরা নিয়ম জানেনা। আরেকটা হতে পারে এদের মনে আগেই পরাজয়ের ভূত ঢুকে গেছে। আফ্রিকানদের নাগরিকত্ব দিয়ে খেলানোর ব্যাপারটা আবার ভেবে দেখার অনুরোধ থাকবে।
আসলে কি জানেন, অদ্ভুত উটের পিঠে চলেছে ফুটবল! এই মালদ্বীপকে আমরা এক সময় গুনে গুনে গোল দিতাম! আজ তাদের খেলা দেখে মুগ্ধ হতে হয়। আর আমাদের গোল করার মতো কেউ নেই, এটাই বড় সমস্যা। সুযোগ নষ্ট করতে সবাই আছে!
এডসন সিল্ভা Dido, ডি ক্রুইফ এর মতো মারুফুল হক কে বাদ দেওয়াটা সবথেকে সহজ কাজ এখন! আসলে Dido প্রথম বের করেছিলেন এদের সমস্যা, এরা দম ধরে রাখতে পারেনা ৯০ মিনিট। ক্রুইফের সময়ও আমরা পাসিং ফুটবল খেলতাম। বেতন নিয়ে ঝামেলা করে এদেরকে তাড়ানো হল। টাকা কোথা থেকে আসবে সেটা চিন্তা না করে একাডেমী শুরু করে আবার বন্ধ করতে হল!
সঠিক পরিকল্পনা ছাড়া কিছু হয়না, গোল্লায় যাওয়াটাই শুধু সহজে হয়!

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

five × 1 =