শুভ জন্মদিন নেইমার

২০১০ বিশ্বকাপের সময়কার কথা । ইন্টারনেট মানে তখন জাভা ফোনের নেট । সাথে সাথে নেটের দামও অনেক বেশি। বিশ্বকাপের খবর মানে তখন প্রথম আলোর সাংবাদিকদের নেট থেকে অনুবাদ করা খবরগুলো বেশ ভালোভাবে পড়ে ফেলা আর টিভিতে বাংলা চ্যানেলগুলোর বিশ্বকাপের শো অনেক মনোযোগ দিয়ে দেখা। এর মধ্যেই একদিন ব্রাজিল দল ঘোষণার পরে সাইড কলামে ছোট করে একটা খবর আসলো । খবরটার সারমর্ম অনেকটা এমন… ব্রাজিল লীগে এক তরুণ স্কিল দেখিয়ে সবার নজর কেড়েছে বেশ করে । তবে কোচ দুঙ্গা অনেকে অনুরোধ করার পরেও ছেলেটাকে দলে নেয় নি ।
আমরা বিশ্বকাপে গিয়েছি র‍্যাংকিং এ ১ নাম্বারে থেকে । সাথে সাথে নিয়ম করে কনফেড কাপ জিতে । বাছাইপর্বেও সমস্যা হয় নি । দুঙ্গার ব্রাজিলের । ডিফেন্সের মাইকন কিংবা লুসিওরা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ উইনার । ফ্যাবিয়ানো রেগুলার গোল পাচ্ছিলো । তাই ঐ তরুণ ছেলেকে না নেওয়ার খবরে আমি আলাদা কিছু খুঁজে পাই নি । ভ্রূক্ষেপ করি নি …
ছেলেটি নেইমার । ব্রাজিল ফুটবলের কাকা-দিনহোদের জেনারেশনের পরের জেনারেশনের একমাত্র সুপারস্টার ।
২০১০ থেকে আজকের ২০১৬
এই ৫/৬ বছরে ২০১০ এর প্রথম আলোর সাইড কলামের সেই ছেলেটি হেডলাইন হতে শিখেছে । বিশ্বের লাখো কোটি ভক্তের রক্ত কখনো টগবগ করে ফুটেছে তার পারফরম্যান্সের কারণে , কখনো মারাত্নক ট্যাকেলের শিকার হয়ে মাঠের বাইরে গিয়ে সেই লাখো কোটি ভক্তকে কাঁদিয়েছেন । কখনো কোপা আমেরিকায় মেজাজ হারিয়ে বহিষ্কারাদেশ পেয়ে আশাহত করেছেন । যারা খেলা নিয়ে থাকতে ভালোবাসে, তাদের ব্যক্তিগত জগতের বাইরে আলাদা একটা জগত থাকে । সেই জগতের আবার দুই-তিন-চারজন রাজা থাকে । যাদের নিয়ে সব সময় আলাদা করে ভাবতে হয় । আলাদা করে ভাবা যায় ! এই পাঁচ বছরে নেইমারের সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি ব্যালন ডি অরে টপ থ্রিতে থাকা বা ব্রাজিলের হয়ে এত এত গোল করা নয় । নেইমারের সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি আমার মত লাখো তরুণ আর কিশোরের সেই খেলাধুলার রাজ্যটায় নিজের একটা অনেক বড় জায়গা করে নেওয়া । যেখানে আমার ক্ষেত্রে নেইমারের চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ শুধুমাত্র দুইজন। সাকিব আল হাসান আর মাশরাফি বিন মুর্তজা । এই একদম “কিছু না ” থেকে সবকিছু হয়ে উঠা তার কাঁধে চাপ যেমন বাড়িয়েছে , মানুষ হিসেবে তাকে করে তুলেছে আরো অনেক বেশী পরিণত । দুটো ড্রিবলিং দিয়ে মানুষকে খুশি করতে পারার হানিমুনটা নেইমার সেরে উঠেছে । এবার জেতার পালা ! নিজেকে আসলেই রাজা ঘোষণা করার পালা নেইমারের ! প্রত্যাশার পারদ তাই আকাশছোঁয়া ।
আগামীকাল ৫ ফেব্রুয়ারি তার জন্মদিন । কত তম জন্মদিন তা বলতে চাই না । কারণ একটা বিশ্বকাপের আমাদের খুব দরকার । সেই বিশ্বকাপটা এনে দেবার আগে ওর বয়স নিয়ে কোন কথা অন্তত বলতে চাই না ।
শুভ জন্মদিন নেইমার !

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

9 + 14 =