লাইক করার বিড়ম্বনা!

নিজের চাকরি নেই। এএস রোমার কোচের পদ থেকে ছাঁটাই হয়েছেন বেশীদিন না। এবার নিজের গার্লফ্রেন্ডও চাকরি হারালেন, ছাঁটাই হলেন রোমা টিভির উপস্থাপিকার পদ থেকে।
 
হ্যাঁ, বলা হচ্ছে এএস রোমার সাবেক ফরাসী কোচ রুডি গার্সিয়া ও তাঁর বান্ধবী ফ্র্যানসেস্কা ব্রিয়েঞ্জার কথা। রোমার পড়তি ফর্মের কারণে কিছুদিন আগেই ছাঁটাই হয়েছেন গার্সিয়া। তাঁর জায়গায় এসেছেন রোমারই সাবেক কোচ লুসিয়ানো স্প্যালেত্তি। যিনি কিনা রোমার হয়ে আগেও টানা দুইবার কোপা ইতালিয়া ও সুপারকোপা ইতালিয়ানা জিতেছেন। স্প্যালেত্তি এবার তুমুল সমালোচনার মুখোমুখি হয়েছেন এ দফা রোমায় এসেই রোমার কিংবদন্তী অধিনায়ক ফ্র্যানসেস্কো টট্টির সাথে ঝামেলায় জড়িয়ে। ৩৯ বছর বয়সী টট্টি স্প্যালেত্তির অধীনে বলতে গেলে খেলতেই পারেননি। গত বুধবার রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে ম্যাচেও ৮৭ মিনিটে সাবস্টিটিউট খেলোয়াড় হিসেবে নামানো হয়েছে তাঁকে। বিষয়টা টট্টির যথেষ্টই গায়ে লেগেছে। মোটামুটি খোলাখুলিভাবেই বলেছেন স্প্যালেত্তি এখন আর তাঁকে তাঁর প্রাপ্য সম্মানটুকু দিচ্ছেন না। এ কথা স্প্যালেত্তির কানে যাওয়ামাত্রই তিনি ক্লাবের অনুশীলন থেকে একদিনের বহিষ্কার করেছেন টট্টিকে। ব্যস, আগুনে ঘি ঢালার কাজ তাতেই হয়ে গেছে।
133330397-4c822e59-e315-4e96-9c36-4adf652831de
 
এই ঘটনার রেশ ধরে রোমার ভক্তদের এক বিশাল অংশ স্প্যালেত্তির উপর অনেক ক্ষেপে গেছে। তাদেরই কারোর একজনের ফেইসবুক পোস্টে লাইক দিতে গিয়েই বিপাকে পড়েছেন ব্রিয়েঞ্জা। পোস্টে লেখা ছিল – “আমরা টট্টির জন্য সম্মান চাই, যেমন সম্মান সে এতদিন রোমা ও তাঁর জার্সির প্রতি দিয়ে এসেছে। স্প্যালেত্তি, পন্তে ভেচ্চিও থেকে লাফ দিয়ে পড়ে যাও”। প্রসঙ্গত, পন্তে ভেচ্চিও হল ইতালির ফ্লোরেন্স শহরের একটি সেতু।
 
এই পোস্টে লাইক দিতে গিয়েই চাকরি খোয়ালেন এবার গার্সিয়ার বান্ধবী ব্রিয়েঞ্জা, সাবেক মিস ইতালি প্রতিযোগী।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

three + 2 =