রুবেন নেভেস : লিভারপুলে আদৌ আসার সত্যতা কতটুকু?

রুবেন নেভেস : লিভারপুলে আদৌ আসার সত্যতা কতটুকু?

গত মৌসুম থেকেই দলের সেন্ট্রাল মিডফিল্ডে নতুন মিডফিল্ডার আনার ব্যাপারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন লিভারপুল কোচ ইউর্গেন ক্লপ। তাঁর হাতে সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার হিসেবে বর্তমানে যারা আছেন – লিভারপুল অধিনায়ক জর্ডান হেন্ডারসন, জার্মান মিডফিল্ডার এমরে চ্যান, ইংলিশ মিডফিল্ডার জেইমস মিলনার ও অ্যালেক্স অক্সলেড চেম্বারলিন, ডাচ মিডফিল্ডার জর্জিনিও ভাইনাল্ডাম, সার্বিয়ান মিডফিল্ডার মার্কো গ্রুইচ – কেউই দলকে লিগ শিরোপা এনে দেওয়ার মত অতটা দক্ষ মিডফিল্ডার নন। ৪-৩-৩ ফর্মেশানে যে তিনজন মিডফিল্ডারকে ক্লপ নিয়মিত খেলান, সেই হেন্ডারসন, চ্যান আর ভাইনাল্ডাম বলতে গেলে একই রকম খেলোয়াড়। খেলার স্টাইলে সেরকম বৈচিত্র্য নেই তাদের মধ্যে। ফলে ইউর্গেন ক্লপ গত মৌসুম থেকেই চাচ্ছেন দলের সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার পজিশনে আরও মানসম্পন্ন খেলোয়াড় আনতে, যা তাঁর স্টাইলের সাথে যায়। এই লক্ষ্যে সবার প্রথমেই তাঁর পছন্দ হয়েছিল জার্মান ক্লাব র‍্যাসেনবলস্পোর্ত লাইপজিগের সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার নাবি কেইটাকে। গত মৌসুমে কেইটাকে না পেলেও লাইপজিগের সাথে লিভারপুল চুক্তি করে রাখে যেন সামনের মৌসুমে অবশ্যই কেইটা লিভারপুলেই আসে। তাই, সামনের মৌসুম থেকে কেইটাকে লিভারপুলের জার্সিতে দেখতে পাবেন লিভারপুল সমর্থকেরা। এ ছাড়াও লিভারপুলের হয়ে নতুন চুক্তি স্বাক্ষর না করায় আসছে জুনেই ফ্রি এজেন্ট হয়ে যাচ্ছেন মিডফিল্ডার এমরে চ্যান, খুব সম্ভবত লিভারপুল ছেড়ে পাড়ি জমাচ্ছেন জুভেন্টাসে। তাঁর জায়গাতে আরেকটি মিডফিল্ডার আনার জন্য এখন থেকেই তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছেন ইউর্গেন ক্লপ।

তাঁর তালিকায় পছন্দসই মিডফিল্ডারদের মধ্যে রয়েছেন নাপোলির ইতালিয়ান সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার জর্জিনিও, লাজিওর সার্বিয়ান মিডফিল্ডার সার্গেহ মিলিঙ্কোভিচ-সাভিচ, ওয়াটফোর্ডের ফরাসী মিডফিল্ডার আব্দুলাই ডোকোরে ইত্যাদি। তবে গত কয়েকদিন থেকেই শোনা যাচ্ছে, পর্তুগিজ মিডফিল্ডার রুবেন নেভেস কে দলে নেওয়ার ব্যাপারে আগ্রহী হয়েছেন ইউর্গেন ক্লপ। এফসি পোর্তোর ইতিহাসের সর্বকনিষ্ঠ এই অধিনায়ক গত মৌসুমেই পর্তুগিজ জায়ান্টদের ছেড়ে চমকপ্রদ এক চুক্তিতে ১৫.৮ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে ইংলিশ দ্বিতীয় বিভাগের দল উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্সে যোগ দেন – যে দলবদলটাকে গত মৌসুমে নেইমারের পর সবচেয়ে আশ্চর্যজনক দলবদল বললেও ভুল বলা হবেনা।

কিন্তু এ মৌসুমে দ্বিতীয় বিভাগ থেকে প্রথম বিভাগে উত্তরণ হওয়া উলভারহ্যাম্পটন ছেড়ে লিগের অন্যতম বড় দল লিভারপুলে কি আসবেন বর্তমান সময়ে পর্তুগিজ ফুটবলের অন্যতম সেরা তারকা – রুবেন নেভেস? এ প্রশ্নের জবাব লুকিয়ে আছে সুপার এজেন্ট হোর্হে মেন্ডেজের কাছে।

হোর্হে মেন্ডেজ কে, সেটা না জানলে বিজ্ঞ পাঠকদের জানিয়ে দিচ্ছি। পর্তুগিজ ফুটবলের সবচেয়ে বড় এই এজেন্ট পর্তুগিজ ফুটবলের বলতে গেলে বড় বড় সব তারকারই প্রতিনিধি। হোর্হে মেন্ডেজ ও তাঁর এজেন্সি ‘গেস্তিফুত’ এর মক্কেলের তালিকা বেশ দীর্ঘ – ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো (রিয়াল মাদ্রিদ), হোসে মরিনহো (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড), ডেভিড ডা হেয়া (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড), হামেস রড্রিগেজ (বায়ার্ন মিউনিখ), রাদামেল ফ্যালকাও (মোনাকো), অ্যানহেল ডি মারিয়া (পিএসজি), ডিয়েগো কস্টা (অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ), এডারসন (ম্যানচেস্টার সিটি), বার্নার্ডো সিলভা (ম্যানচেস্টার সিটি), গনক্যালো গুয়েদেস (ভ্যালেন্সিয়া), নেলসন সেমেদো (বার্সেলোনা), নিকোলাস ওটামেন্ডি (ম্যানচেস্টার সিটি), অ্যান্দ্রে সিলভা (এসি মিলান), হোয়াও ক্যানসেলো (ইন্টার মিলান), রেন্যাটো স্যানচেস (সোয়ানসি সিটি), ফাওজি গুলাম (নাপোলি), এলিয়াক্যুইম মাঙ্গালা (ভ্যালেন্সিয়া), পেপে (বেসিকতাস) ইত্যাদি। বুঝতেই পারছেন বর্তমান সময়ে পর্তুগিজ ফুটবলের সবচেয়ে বড় বড় তারকারা বলতে গেলে সবাই-ই এই হোর্হে মেন্ডেজের মক্কেল। রুবেন নেভেসও এর ব্যতিক্রম নন। মাত্র ১৮ বছর ২২১ দিন বয়সেই রুবেন নেভেস এর ম্যাকাবি তেল আবিবের বিপক্ষে ২০১৫ সাথে পোর্তোর হয়ে অধিনায়ক হওয়াটা হোর্হে মেন্ডেজের নজর এড়ায়নি। উলভারহ্যাম্পটনে নিজের অনেক মক্কেলকে নিয়ে আসার পাশাপাশি গত বছর এই রুবেন নেভেস কেও পোর্তো থেকে উড়িয়ে এনেছিলেন এই মেন্ডেজ। লিভারপুল যে এই মৌসুমে একজন আদর্শ সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার চাচ্ছে, আর বেশ কয়েক বছর ধরেই যে রুবেন নেভেস কে পাওয়ার জন্য তারা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, এ কথা মেন্ডেজ বেশ ভালোই জানেন। এমনকি ক্লপের সাবেক সহকারী পেপিন লিন্ডার্সও রুবেন নেভেস কে আগে পাওয়ার জন্য নেভেসের প্রতি তাঁর ভক্তির কথা জানিয়েছেন। তাই ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় বিভাগ উলভসের হয়ে মাতানোর পর এবার এই রুবেন নেভেস কে লিভারপুলে নিয়ে আসার জন্য তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছেন তিনি এই মৌসুমে। এর মধ্যে রুবেন নেভেস এর হয়ে এক প্রতিনিধিদল ইংল্যান্ডে এসে এই বিষয়ে কথাবার্তা বলা শুরুও করে দিয়েছে। দুয়ে দুয়ে চার মিলে গেলে তাই সামনের আগস্ট থেকে রুবেন নেভেস কে যদি লিভারপুলের জার্সিতে দেখেন, আশ্চর্য হবেন না যেন!

রুবেন নেভেস : লিভারপুলে আদৌ আসার সত্যতা কতটুকু?
রোনালদো ও মরিনহো’র সাথে এজেন্ট হোর্হে মেন্ডেস

এর মধ্যেই রুবেন নেভেস এর পরিবর্ত হিসেবে মেন্ডেজ কাকে উলভসে আনবেন – সেটা ঠিক করে ফেলেছেন। তিনি ব্রাজিলের অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার অ্যান্ডারসন টালিস্কা। বেনফিকার এই মিডফিল্ডার এই মৌসুমে ধারে খেলছেন বেসিকতাসের হয়ে। এই মৌসুম শেষ হলেই বেসিকতাস চাইলে টালিস্কাকে ১৮ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে পাকাপাকিভাবে নিজের দলে নিয়ে আসতে পারবে, কিন্তু এটা সম্ভব হবেনা দুটো কারণে – এক, টালিস্কা নিজেই প্রিমিয়ার লিগে খেলার জন্য পাগল হয়ে আছেন, যে কারণে চাইনিজ ক্লাব চাংচুং ইয়াতাই অনেক চাওয়ার পরেও টালিস্কা সেখানে যাননি, আর দুই, বেসিকতাস এই ১৮ মিলিয়ন পাউন্ড কিস্তিতে পরিশোধ করতে চায়, একবারে না। যেটাও একটা বড় সমস্যা। এদিকে অর্থ দেওয়ার দিক দিয়ে নতুন মালিকানাধীন উলভসের সমস্যা নেই। তাই রুবেন নেভেসের জায়গায় উলভারহ্যাম্পটনে সামনের মৌসুম থেকে মেন্ডেজের আরেক মক্কেল টালিস্কাকে দেখা যেতেই পারে!

এখন সবকিছু নির্ভর করছে ক্লপ ও লিভারপুল বোর্ডের ওপর – তারা কি শেষ মুহূর্তে রুবেন নেভেস কে পাওয়ার জন্য উলভসের চাহিদামত অর্থ দিতে রাজী হবে?

মূল – মার্কাস আলভেস

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

15 + 6 =