রিয়ালের জয়

বার্নাব্যুর ঐতিহাসিক জয়ের পর উজ্জ্বীবিত রিয়াল মাদ্রিদ দল গেতাফে সফরটা পঞ্চকেই সারলো । বিবিসি আর জেমস, ইস্কোর গোলে স্বাগতিক হেতাফেকে ৫-১ গোলে উড়িয়ে দিলো জিদান শিষ্যরা । কলেসিয়াম আলফান্সোয় রিয়াল মাদ্রিদ তাদের নিয়মিত একাদশে খানিকটা রদবদল আনে শুরুতেই । নিয়মিত অধিনায়ক সার্জিও রামোস, মধ্যমাঠের প্রাণ লুকা মদ্রিচ ও সাম্প্রতিক নিয়মিত স্পেশালিষ্ট সিডিএম ক্যাসিমিরো ছিল বিশ্রামে । বিবিসির পিছে তাই টনি ক্রুসের সাথে জেমস-ইস্কো জুটি । প্রতিপক্ষ হিসেবে হেতাফে সহজ হলেও মৌসুমে মাদ্রিদের এ্যাওয়ে জুজুর একটা কালো মেঘ শুরু থেকেই ছিল । যদিও লীগা টেবিলে রাতারাতি পয়েন্ট ব্যবধান হ্রাসে রিয়াল মাদ্রিদের পেছনের ফেরার সুযোগ কিংবা ইচ্ছে কোনটাই ছিলোনা । শুরু থেকেই তাই জিজু শিষ্যরা চড়াও হলো । হেতাফের তীব্র শীতে প্রথমেই উষ্ণতা আনে জেমস রদ্রিগেজ । ১২ মিনিটে হেতাফের বাম বাহু ভেংগে দারুন একটা ক্রস করলে তাতে পা লাগাতে ব্যর্থ হোন রোনালদো । মিনিট দুয়েক পর আবারও রন-জেমস জুটির চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে যায় । সাফল্যর প্রথম তারা ওঠে জেমসের হাত ধরেই । কলম্বিয়ান তারকার ঈশান কোণীয় ক্রসে হেতাফের জালে বল জড়ান ফ্রেঞ্চম্যান করিম বেঞ্জেমা । নিজের স্কোরশীটে নাম লেখানোর মিনিট নয়েক পর এবার ইস্কোকে দিয়ে গোল করান বেঞ্জেমা । ইস্কোর শেষ মুহুর্তের টাচে তখন হুয়ান এসনাইডারের অভিষেক দুঃস্বপ্নের বার্তা শোনাচ্ছিলো । ২-০ তে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যাওয়া মাদ্রিদে ফিরে এসেও গোল উত্‍সবে মাতে । ৪৯ মিনিটে এক ফিরতি আক্রমণে বেঞ্জেমার ভাসানো পাস থেকে পাওয়া বল নিয়ে ভোঁ দৌড় গ্যারেথ বেলের । স্পিডস্টার বেলকে আর ধরা যায়নি । ওয়েলশম্যান তার দ্বিগীজ্বয়ী দৌড়ে দলকে এগিয়ে দেন ৩-০ তে । এরপর মাদ্রিদের মধ্যমাঠ অনেকটা ঝিঁমিয়ে পড়ে । সুযোগটা নিতে চেয়েছিল স্বাগতিকরা । তবে ভারানে-নাভাসের দৃঢ়তায় তা নস্যাত্‍ হয় কয়েক দফায় । ৬৪ মিনিটে স্বাগতিকরা একটি গোল পেয়ে যেত । সারাবিয়ার শটটি নাভাস এক হাতে ফিরিয়ে দিলে গোলশূণ্যই থাকতে হয় হেতাফেকে । ৭৫ মিনিটে সিক্স ইয়ার্ড ব্যবধানে ইনডাইরেক্ট ফ্রি-কিক পেয়ে যায় পেদ্রো লিওনরা । মাদ্রিদ ক্যারিয়ারে নতুন চ্যালেঞ্জটা নিতে প্রস্তুতই ছিল দস্তানা মানব নাভাস । নাভাসে এবারও ব্যর্থ স্বাগতিক দল । তবে তাদের স্বান্তনা সূচক গোলটি এসেছে ম্যাচের ৮৪ মিনিটে । পাবলো সারাবিয়ার আকস্মিক লং রেঞ্জ শটে এবার পরাস্ত কোস্টারিকান বাঁজপাখি । গোল হজম করে মাদ্রিদ এবার আধিপত্যর চ্যালেঞ্জ নিলে ফলাফল আসে হাতেনাতে । ৮৭ মিনিটে বদলী খেলোয়ার লুকাস ভাসকুয়েজের ট্রায়াংগুলার পাস সুনিপূণভাবে জালে জড়ান রদ্রিগেজ । ওদিকে গোটা দুয়েক সহজ মিসে মাদ্রিদের প্রাণ ভোমড়া তখনও গোল বঞ্চিত বিরস বদনে । হেতাফের বিপক্ষে মাদ্রিদের লড়াইয়ে রোনালদো গোলশূণ্য থাকাটা সম্পূর্ণ অপরিচিত এক দৃশ্য । ৯২ মিনিটে ম্যাচের অন্তিম দৃশ্যপটে তাই এবার রোনালদোর গোল । জেসে রদ্রিগেজের নিঃস্বার্থ এক পাসে চলতি লীগায় ৩১তম গোল করেন এই পর্তুগীজ উইংগার । রনের এই গোলের সাথে সাথে আবারও বিবিসির একসঙ্গে গোল উত্‍সবের দেখা মিললো । সেই সাথে এ্যাওয়ে জুজুকে সরিয়ে ৫-১ এর বড় জয় নিয়ে মাদ্রিদে ফেরার অপেক্ষায় জিজুর শিষ্যরা ।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

eighteen − 13 =