মুলার-কিনের পাশে রোনালদো

পর্তুগালের আশা-ভরসার বাতিঘর হয়ে আছেন বহুদিন ধরেই। সেটারই প্রতিফলন ঘটে পর্তুগালের হয়ে তাঁর পারফরম্যান্সে, বিভিন্ন রেকর্ডে। পর্তুগালের হয়ে আরেকটি রেকর্ড করে এবার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো বুঝিয়ে দিলেন কেন পর্তুগীজ রাজপুত্র তিনি। ২০১৮ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে লাটভিয়াকে ৪-১ গোলে হারানোর ম্যাচে পর্তুগালের হয়ে জোড়া গোল করে দেশের হয়ে তিনি নিজের গোলসংখ্যাকে নিয়ে গেছেন ৬৮ তে। ফলে ইউরোপীয় দেশগুলোর সর্বোচ্চ গোলদাতাদের তালিকার জার্মান কিংবদন্তী স্ট্রাইকার জার্ড মুলার ও আইরিশ লেজেন্ড রবি কিনের পাশে বসেছেন তিনি। মুলার-কিনেরও আন্তর্জাতিক গোল ৬৮টা করে।

সেদিন লাটভিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে ২৮ মিনিটে পেনাল্টিতে গোল করে পর্তুগালকে এগিয়ে দেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। দ্বিতীয়ার্ধের ৬৭ মিনিটে আর্তুর জুজিনস সমতায় ফেরান লাটভিয়াকে, কিন্তু সাথেসাথেই পর্তুগালকে আবারো এগিয়ে দেন স্পোর্টিং লিসবনের তরুণ মিডফিল্ডার উইলিয়াম কারভালহো। তারপরে ৮৫ মিনিটে রোনালদো ম্যাজিকে দুই গোলের লিড নেয় পর্তুগাল, রোনালদোও মোট ৬৮ গোল করার মাধ্যমে অংশীদার হন অনন্য এই রেকর্ডের। ম্যাচ শেষ হবার ঠিক আগ মুহূর্তে ব্রুনো আলভেসের গোলে ৪-১ গোলের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ইউরো চ্যাম্পিয়নরা।

ইউরোপীয় দেশগুলোর সর্বোচ্চ গোলদাতাদের তালিকায় ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর উপরে এখন শুধু আছেন জার্মান গোলমেশিন মিরোস্লাভ ক্লসা (৭১), আর হাঙ্গেরির দুই কিংবদন্তী স্যান্দর ককসিস (৭৫) ও ফেরেঙ্ক পুসকাস (৮৪)।

মূল – জীবন থেকে নেয়া

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

2 × four =