বিশ্বকাপ ২০১৮ : টিম প্রিভিউ – মিশর

বিশ্বকাপ ২০১৮ : টিম প্রিভিউ - মিশর

১৯৯০ সালের পর এবারই প্রথম বিশ্বকাপের মূল পর্বে খেলার সুযোগ পেয়েছে মিশর। কোচ হেক্টর কুপারের অধীনে খেলতে আসা মিশর এর মূল তারকা এবার লিভারপুল উইঙ্গার মোহামেদ সালাহ। চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে কাঁধের চোটে পড়া মো সালাহ বিশ্বকাপের প্রথম থেকেই মিশর দলের হয়ে খেলতে পারবেন কি না, সে নিয়ে এখনো সন্দেহ রয়েছে। সব সন্দেহকে মাথায় নিয়েই কোচ কুপার ২৩ সদস্যের মূল মিশর দল ঘোষণা করেছেন। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক কে কে আছেন সেই দলে!

গোলরক্ষক

  • এসাম এল হাদারি (আল তাউন)
  • শেরিফ একরামি (আল আহলি)
  • মোহামেদ এল শেনাউইয়ি (আল আহলি)

ডিফেন্ডার

  • আলী গাবর (ওয়েস্ট ব্রম)
  • আহমেদ হেগাজি (ওয়েস্ট ব্রম)
  • আহমেদ এলমোহাম্মদি (অ্যাস্টন ভিলা)
  • ওমার গাবের (লস অ্যাঞ্জেলস)
  • আহমেদ ফাতি (আল আহলি)
  • আয়মান আশরাফ (আল আহলি)
  • মোহামেদ আবদেল শাফি (আল ফাতেহ)
  • এল ওয়েনশ (জামালেক)
  • সাদ সামির (আল আহলি)

মিডফিল্ডার

  • স্যাম মর্সি (উইগান অ্যাথলেটিক)
  • তারেক হামেদ (জামালেক)
  • রামাদান সোবহি (স্টোক সিটি)
  • মোহামেদ এলনেনি (আর্সেনাল)
  • শিকাবালা (আল রাঈদ)
  • ত্রেজেগে (কাসিমপাসা)
  • আমর ওয়ার্দা (পিএওকে)

স্ট্রাইকার

  • মোহামেদ সালাহ (লিভারপুল)
  • কাহরাবা (আল ইত্তিহাদ)
  • মারওয়ান মোহসেন (আল আহলি)

সাবেক ভ্যালেন্সিয়া ও ইন্টার মিলান কোচ হেক্টর কুপার সাধারণত মিশর দলকে ৪-২-৩-১ ফর্মেশনে দলকে খেলাতে পছন্দ করলেও দল অতটা আক্রমণ নির্ভর খেলে না, পুরো আক্রমণে মূল দায়িত্ব মোহামেদ সালাহ কে দিয়ে একটু রক্ষণাত্মক খেলতে পছন্দ করে তারা। দলের গোলরক্ষক হিসেবে খেলবেন মিশর দলের অধিনায়ক এসাম এল হাদারি। বিশ্বকাপে মাঠে নামার সাথে সাথেই এই এসাম এল হাদারি হয়ে যাবেন বিশ্বকাপের সবচেয়ে বর্ষীয়ান খেলোয়াড়, ৪৫ বছর বয়স যে তাঁর! হাদারির মূল বিকল্প  হিসেবে দলে যে গোলরক্ষক রয়েছেন, তাঁর বয়সও কিন্তু কম নয়। আল আহলির গোলরক্ষক শেরিফ একরামির বয়স ৩৪ বছর। দলের বাকী গোলরক্ষক মোহামেদ এল শেনাউইয়ি।

বিশ্বকাপ ২০১৮ : টিম প্রিভিউ - মিশর
gollachhut.com

চারজনের ডিফেন্সে রাইটব্যাক হিসেবে মূল একাদশে খেলবেন দলের সহ-অধিনায়ক আহমেদ ফাতি। বিকল্প রাইটব্যাক হিসেবে দলে আছেন ইংলিশ ক্লাব অ্যাস্টন ভিলায় খেলা আহমেদ এলমোহাম্মদি আর লস অ্যাঞ্জেলস এফসির ওমার গ্যাবের। ওদিকে লেফটব্যাকে কোচ কুপারের মূল পছন্দ মোহামেদ আবদেল শাফি কে। বিকল্প লেফটব্যাক হিসেবে দলে আছেন আল আহলির সাদ সামির। ইংলিশ ক্লাব ওয়েস্ট ব্রমে খেলা দুই সেন্টারব্যাক আহমেদ হেগাজি আর আলী গাবর মিশরের সেন্ট্রাল ডিফেন্সেও জুটি বেঁধে খেলবেন। বিকল্প সেন্টারব্যাক হিসেবে দলে আছেন এল ওয়েনশ, আল আহলির আয়মান আশরাফ প্রমুখ।

দুইজন সেন্ট্রাল মিডফিল্ডারের মধ্যে আর্সেনালের মোহামেদ এলনেনি আর জামালেকের তারেক হেমেদ অবশ্যই খেলবেন। বিকল্প সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার হিসেবে দলে আছেন উইগান অ্যাথলেটিকের স্যাম মর্সি। সেন্ট্রাল অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার, উইঙ্গার আর স্ট্রাইকার মিলিয়ে জায়গা বাকী থাকে আর চারটা। এই চার পজিশনের মধ্যে দুই উইংয়ে অবশ্যই খেলবেন মোহামেদ সালাহ আর স্টোক সিটির রামাদান সোবহি। সেন্ট্রাল অ্যাটাকিং মিডফিল্ডে খেলার জন্য লড়বেন শিকাবালা, ত্রেজেগে ও আমর ওয়ার্দা। দলের মূল স্ট্রাইকার হিসেবে আল আহলির মারওয়ান মোহসেনের খেলার সম্ভাবনা সবচাইতে বেশী।

এখনো ইনজুরি থেকে পুরোপুরি সুস্থ না হয়ে ওঠা মোহামেদ সালাহ এর ফিটনেসের উপরেই নির্ভর করছে মিশর এর আশা ভরসা। যদিও কোচ হেক্টর কুপার সালাহকে প্রথম ম্যাচ থেকেই পাওয়া যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন, কিন্তু তাঁর পরেও সালাহ না খেলতে পারলে কুপারকে নতুন করে পরিকল্পনা সাজাতে হতে পারে। গ্রুপ ‘এ’ তে মিশর এর গ্রুপসঙ্গী রাশিয়া, সৌদি আরব ও উরুগুয়ে।

বিশ্বকাপ ২০১৮ : টিম প্রিভিউ - মিশর

স্কোয়াড প্রিভিউ দেখুন আরও –

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

20 − ten =