মরিনহোর বচন ও আমার কিছু কথা

আহসানুল হক –

Jose Mourinho: ‘The best team lost and the most defensive team won.’‪#‎CFC‬

প্রতিক্রিয়া: এ কথাটা বলার পর থেকেই টুকটাক কিছু মন্তব্য দেখছি “রক্ষণাত্মক ফুটবল” নিয়ে.. অাজকে কি আর্সেনাল রক্ষণাত্মক ফুটবল খেলেছে? পরিসংখ্যান বলবে আর্সেনাল বেশি শট অন টার্গেট নিয়েছে হাইলাইটস বলবে আর্সেনাল যে গোলটা করেছে তার চেয়েও সহজ অন্তত তিনটা সুযোগ নষ্ট করেছে..

2B0ACD4F00000578-3182996-image-a-13_1438528413381

যদি বলেন বল পজেশনের পরিসংখ্যানের কথা তাইলে হয়ত বলতে পারেন যে চেলসির বল পজেশন আর্সেনাল থেকে বেশি ছিল। তবে যদি খেলা দেখে থাকেন তবে নিশ্চয়ই ধারনা করতে পারছেন ৪৩%-৫৭% এর পরিসংখ্যান আসলে বাস্তব ব্যাপারটা বোঝাতে পারছে না.. কেন?
একটা সহজ উদাহরন দেই.. দুই দলের ডিফেন্স লাইন কোথায় ছিল চিন্তা করে দেখেন.. আর্সেনালের প্রায় পুরো ম্যাচেই ডিফেন্স লাইন ছিল নিজ অর্ধের মাঝামাঝিতে.. রেমি তো প্রথমার্ধে প্রায় সৌরভ গাঙ্গুলী ছিল। আর চেলসির ডিফেন্স লাইন নিজেরা বল পজেশনে থাকা অবস্থাতেও নিজেদের বক্সের সামান্য বাইরে ছিল। টেরি-ক্যাহিল দুই জনই বার বার ফল ব্যাক করছিল.. এখানে উল্লেখযোগ্য যে ধারাভাষ্যকাররা বারবারই বলছিল এটা চেক এর জন্য নতুন অভিজ্ঞতা হবে। কারন সে এতবছর ডিপ ডিফেন্স লাইনের সাপোর্ট পেয়ে এসেছে।

Arsenal-v-Chelsea-Community-Shield

কেন এরকম হল? আসল ব্যাপারটা হল আর্সেনাল গ্যাঁট হয়ে বসে ডিফেন্ড করেনি, বরং অসাধারন কাউন্টারপ্রেসিং এর নিদর্শন দেখিয়েছে। চেলসিকে তাদের কমফোর্ট জোন থেকে বেরিয়ে সাহসী ফুটবল খেলার চ্যালেঞ্জ দিয়েছে। এখানেই চেলসি ব্যর্থ। সৃষ্টিশীলতাই যেখানে শেষ কথা সেখানে আর্সেনাল আজকে চেলসিকে অনেক পেছনে ফেলেছে। আর্সেনাল এর পাসিং বিল্ডআপ অনেক দ্রুত এবং অর্থবহ ছিল। অন্যদিকে চেলসি আর্সেনালের দ্রুতগতিতে ক্লোজড ইন করে আনার জবাব বের করতে পারে নি। তারা শুরু করেছে দুইজন হোল্ডিং মিডফিল্ডার (মাতিচ-রামিরেস) এর সামনে একজন অ্যাডভান্স সেন্ট্রাল মিড (সেস্ক) কে খেলিয়ে, তারা কেউই ফাইনাল পাস গুলো দেবার জায়গা বের করতে পারে নি।
হ্যাজার্ড তার নামের প্রতি এবং তার দলের প্রত্যাশার প্রতি সুবিচার করতে পারে নি :3 পক্ষান্তরে বেলেরিন তার গতির ব্যাবহার করে হ্যাজার্ডকে বাক্সবন্দি করে রেখেছিল প্রায়.. আর কোকুলান এর গেম রিডিং ক্ষমতা সম্পর্কে জানা থাকলেও প্রায় সময়েই অবাক হয়ে যাই অসাধারন সব ইন্টারসেপশন দেখে!

সে যাই হোক.. আমার প্রতিক্রিয়া জানানোর জন্যেই এই লেখা… আমি মনে করি চেলসিই সাবধানি অ্যাপ্রোচ নিয়ে খেলতে নেমেছিল। এটার জন্য তারা সৃষ্টিশীলতার সাথে কম্প্রোমাইজ করেছে…অন্যদিকে আর্সেনাল মাত্র একজন হোল্ডিং মিডফিল্ডার নিয়ে খেলতে নেমেছে, সৃষ্টিশীলতার সাথে কম্প্রোমাইজ করেনি। হ্যা.. অক্সের বদলির পর হোল্ডিং মিডফিল্ডার দুইজন হয়েছে তাও তখনও ডিফেন্স লাইন নিচে নামেনি!
এটার ফলাফল স্কোরলাইনে প্রতিফলিত হয়েছে। তাই মরিনহো এর কথার প্রতিক্রিয়ায় বলব আসলে বেস্ট দলই জিতেছে এবং নেতিবাচক অ্যাপ্রোচ নিয়ে খেলা শুরু করা দলই হেরেছে।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

5 − four =