বাংলার ভেনিসের দুর্বল সেনাবাহিনী

তাদের প্রভাব এদেশের সব সেক্টরে। তাদেরকে অনেক কিছু বলে হাসি ঠাট্টা করা হলেও আসলে তাদের অবদান মোটেই ফেলে দেওয়ার মতো না। বাংলার ভেনিস খ্যাত বরিশালের মানুষের কথা বলছিলাম। এদের দল গতবার শিরোপার খুব কাছে গিয়ে মোহাম্মদ সামির ‘বদৌলতে’ শিরোপা হারালেও এবার আর অত উচু গলায় শিরোপার আওয়াজ তোলার মতো অবস্থায় নেই তারা। দল হারিয়েছে অনেক নির্ভর যোগ্য খেলোয়াড়কে।

সাব্বির রহমান গতবার সেমিতে দুর্দান্ত খেলেছিলেন গতবার। এবার তিনি রাজশাহীর রাজাদের দলে চলে গেছেন। গতবারের চমক জাগানো অধিনায়ক রিয়াদ নেই। মুশফিক নেতৃত্ব দিলে এই দলের পক্ষে বাজি ধরাই মুশকিল হবে, তিনি যদি তার রক্ষনাত্মক অধিনায়কত্ব পরিবর্তন না করেন।

বরিশালের নেতৃত্বে থাকছেন মুশফিকুর রহিম
বরিশালের নেতৃত্বে থাকছেন মুশফিকুর রহিম

ব্যাটসম্যান মুশফিক নিঃসন্দেহে দলের বড় সম্পদ। থিসারা পেরেরা ব্যাট হাতে পাওয়ার হিটার, বল হাতেও কার্যকর। পরীক্ষিত যোদ্ধা নাফিস আছেন এবারেও। আছেন ইওরকার বিশেষজ্ঞ রনি এবং ঘূর্ণি জাদুকর তাইজুল। তবে কামরুল ইসলাম রাব্বি বোলারদের সহজ শিকার এবং বিপক্ষের ব্যাটসম্যানদের রানবন্যার কারন হতে পারেন- এ আশঙ্কা আছেই।

এই দলটার গভীরতা কম। অন্য দলের মতো সব্যসাচী নির্ভর না, অনেকটা প্রাচীনপন্থী বিশেষজ্ঞ নির্ভর, কিন্তু এটা এখনকার যুগের ক্রিকেটে সঠিক কৌশল না, বলতে বাধ্য হলাম। তবে কোচ হিসাবে আছেন সাবেক বাংলাদেশ কোচ, বিশ্বজয়ী ডেভ হোয়াটমোর, এটা একটা বড় প্লাস পয়েন্ট বরিশাল বুলসের।

গত আসরের চমক আবু হায়দার রনিকে এবার রংপুর রাইডার্স থেকে নিয়ে এসেছে বরিশাল বুলস
গত আসরের চমক আবু হায়দার রনিকে এবার রংপুর রাইডার্স থেকে নিয়ে এসেছে বরিশাল বুলস

ও হ্যাঁ, বরিশালের মানুষ যদি আশা করে প্রতি ম্যাচেই শেষ ওভারে চার বলে চার ছক্কা হাঁকিয়ে কেউ জিতিয়ে দেবে, তবে আছেন গত টি টুয়েন্টি বিশ্বকাপের নায়ক ব্রাফেট। তবে এত দিবাস্বপ্ন না দেখাই মনে হয় উত্তম!

বরিশাল বুলস স্কোয়াড

  • মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান, বাংলাদেশ) – অধিনায়ক
  • শাহরিয়ার নাফিস (ব্যাটসম্যান, বাংলাদেশ)
  • তাইজুল ইসলাম (বোলার, বাংলাদেশ)
  • শামসুর রহমান (ব্যাটসম্যান, বাংলাদেশ)
  • আবু হায়দার রনি (বোলার, বাংলাদেশ)
  • আল-আমিন হোসেন (বোলার, বাংলাদেশ)
  • নাদিফ চৌধুরী (অলরাউন্ডার, বাংলাদেশ)
  • থিসারা পেরেরা (অলরাউন্ডার, শ্রীলঙ্কা)
  • কার্লোস ব্রাফেট (অলরাউন্ডার, ওয়েস্ট ইন্ডিজ)
  • দিলশান মুনাবীরা (ব্যাটসম্যান, শ্রীলঙ্কা)
  • ফজলে রাব্বী (ব্যাটসম্যান, বাংলাদেশ)
  • মাহাদী হাসান (অলরাউন্ডার, বাংলাদেশ)
  • মোহাম্মদ নাওয়াজ (অলরাউন্ডার, পাকিস্তান)
  • মনির হোসেন (বোলার, বাংলাদেশ)
  • শাহীন হোসেন (ব্যাটসম্যান, বাংলাদেশ)
  • রুম্মান রইস (বোলার, পাকিস্তান)
  • কামরুল ইসলাম রাব্বী (বোলার, বাংলাদেশ)
  • ধীমান ঘোষ (উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান, বাংলাদেশ)
  • জোশুয়া কব (ব্যাটসম্যান, ইংল্যান্ড)
  • রায়াদ এমরিত (অলরাউন্ডার, ওয়েস্ট ইন্ডিজ)

সম্ভাব্য একাদশ : মুশফিক, রনি, আল-আমিন, নাফিস, ব্রাফেট, পেরেরা, নাদিফ, কব, মাহাদী, তাইজুল, মুনাবীরা

কোচ : ডেভ হোয়াটমোর

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

15 − 2 =