পড়াশুনা আমাকে তালাক দিছে!

নাইট ডিউটি ছিলো। তারপর গেছিলাম গ্রামের বাড়ি। বাংলাদেশের খেলা খুব অল্প দেখেছি। প্রস্তুতি ম্যাচ হারার পর রূপলকে বলেছিলাম, মাশরাফি ক্যাপ্টেন থাকলে ২২০ রানও যথেষ্ট হতো। অন্য কথায় আসি। ইয়াসির শাহকে দেখে মুগ্ধ হচ্ছি। যত ইনকন্সিটেন্টই হোক, একটা রিস্ট স্পিনার দলে থাকা সবসময়ই একটা বোনাস। ইমরান তাহির উইকেট পেলেও টেস্টের জন্যে ভালো না কোনোদিনও। মানে আমার ভালো লাগেনি। মন মাতানো ফ্ল্যাইট না দিতে থাকলে ভাল্লাগে! বাই দ্যা ওয়ে, মোহালির পিচ নিয়ে কদ্দুর সমালোচনা হয়েছে তা জানিনা। সময় পাইনি দেখার। এলগার বলেছে প্রথম ইনিংসে তার ইনিংসটা তার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে কঠিন আর চ্যালেঞ্জিং ছিলো। পিচের কথা টেনে এই কথাটা গাভাস্কারকে বলাতে গাভাস্কারকে বলতে শুনলাম, আমরা যখন আফ্রিকা-নিউজিল্যান্ডে যাই তখন যদি ওরা ঘাসের আস্তরণ রেখে উইকেট প্রস্তুত করতে পারে তাহলে আমাদের স্পিন সহায়ক উইকেট বানাতে দোষের কী?

রাতে অল স্টারস টি টুয়েন্টি আছে। আগারকারের ইনক্লুশন বাদ দিলে পুরো ব্যাপারটা দুর্দান্ত লেগেছে। আমাদের ছোটকালে এটার উদ্যোগ নেওয়া হলে সরাসরি রিচার্ডস-সোবার্স-কপিল-ইমরানদের দেখতে পারতাম! রাতে পিএসজি, চেলসি, ম্যান ইউয়ের ম্যাচ আছে।

পড়াশুনা আমাকে তালাক দিছে।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

5 × 1 =