এক পেনাল্টি নিয়ে যত গল্প!

১৯৫৮ সালে আর্জেন্টিনার প্রভিন্সিয়াল এক লীগে রেফারি ৮৯ মিনিট ৪০ সেকেন্ড এর সময় সম্পুর্ন ভুয়া এক পেনাল্টি দেয়।ওই ম্যাচ ছিল আবার খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এস্ট্রেলা পোলার আর ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন দেপর্টিভো বেলগ্রানোর ওই ম্যাচ ড্র হলেও বেলগ্রানো চ্যাম্পিয়ন হয়।কিন্তু এস্ট্রেলা পোলারের জিততেই হবে চ্যাম্পিয়ন হতে হলে।যে রেফারি ম্যাচ পরিচালনা করতেছিল সে বেলগ্রানোকে সবসময় সুবিধা দিত,সেই রেফারি আমার ম্যাচ টিকেট নিয়ে জুয়াও খেলত।তো দর্শক অপেক্ষা করতে লাগল যে রেফারি হার্মেনিও সিলভা বেলগ্রানোর পক্ষে কখন পেনাল্টি দেয়।যেহেতু ম্যাচ ড্র হলেও বেলগ্রানো লীগ জিতে তাই হয়তো হার্মেনিও সিলভার পেনাল্টি দেয়ার ইচ্ছা কম ছিল।৮৫ মিনিট পর্যন্ত খেলা ১-১ ছিল।৮৭ মিনিটে এস্ট্রেলা পোলার ফ্রিকিক থেকে গোল দিয়ে বসলে রেফারির সেই ইচ্ছা আর থাকিনি।তখনকার দিনে পেনাল্টি নেয় হত গোলবার থেকে ১২ পা হেঁটে,রেফারি সেটাও করে নাই কারণ সময় ছিল না। ম্যাচ শেষ হবার ২০ সেকেন্ড ওই পেনাল্টি দিয়ে রেফারি আর মাঠে স্বাভাবিক থাকতে পারে নাই।এস্ট্রেলার রাইট ব্যাক এসে এমন এক ঘুষি মারেন যে রেফারি হার্মেনিও সিলভা সাথে সাথেই অজ্ঞান হয়ে যায়।ওই রেফারি আবার মৃগী রোগীও ছিল।ওইদিন আর কোনো খেলাই হয় নাই।অবশ্য খেলা তো দুরের কথা পুলিশ,মেয়র এসে মাঠের পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে।এই ম্যাচের রেজাল্ট কি হবে তা শেষ পর্যন্ত আদালতে সমাধান করা হয়।আদালতের রায় “যে ২০ সেকেন্ড বাকী ছিল খেলার সেটা এক সপ্তাহ পরে হবে মানে আগামী রবিবার।আর বেলগ্রানোর পক্ষে দেয়া পেনাল্টি রয়ে গেল”। “এস্ট্রেলা পোলার” মুলত ছিল বিলিয়ার্ড ক্লাব।ছোটোখাটো পানশালাও বলতে পারেন।ফুটবল তারা খেলত কারণ রবিবার বিকেলে এর চেয়ে ভালো অন্য কিছু করার ছিল না।তো ফুটবল তাদেরকে খুব বেশি টানতো না।আর কেনই বা টানবে এস্ট্রেলা পোলার সবসময় লীগ টেবিলের তলানিতে থাকতো।কিন্তু এবার তো পরিস্থিতি ভিন্ন।এবার তারা লীগ চ্যাম্পিয়ন হলেও হতে পারে। অন্যদিকে দেপর্তিভো বেলগ্রানো বর্তমান চ্যাম্পিয়ন। সবচেয়ে সফল দল।লীগ জিতাটাকে একেবারে নিজেদের পৌত্রিক সম্পত্তি বানিয়ে ফেলেছিল বেলগ্রানো। আবার সেই পেনাল্টিতে ফিরে যাই।তারমানে এস্ট্রেলা পোলার এর কিপার গাতো ডিয়াজ এক সপ্তাহ পেলেন পেনাল্টি সেইভ করা নিয়ে ভাবার জন্যে অন্যদিকে দেপর্তিভো বেলগ্রানোর পেনাল্টিটেকার কন্সটান্তেও নিজের প্রস্তুতির জন্য সময় পেলেন।২০ সেকেন্ড খেলার জন্যে মানে একটা পেনাল্টির জন্যে পাক্কা সাতদিন।সবাই আশ্চর্য হলেও তাই হয়েছিল। এই এক পেনাল্টি নিয়ে ঘটেছিল অনেক গল্প।মানু্ষের জীবনে এসেছিল অনেক পরিবর্তন।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

ten + six =