ন্যাশনালিসম

কোন দূর দেশ বা দূর দেশের ক্লাব ট্রফি জিতলে আমরা যেভাবে আনন্দে আত্মহারা হয়ে যাই, নিজের দেশের ট্রফি অর্জনে যে কি খুশি হব সেটা ভেবে খুব ভাল লাগে। আল্লাহ যেন কিছু দেখে যাওয়ার মত তৌফিক দান করেন।

অন্য দেশের ক্লাব সাপোর্ট করি, তবে অনেকের মত আনন্দে আত্মহারা হতে পারি না। দেশ বা ক্লাবকে ডিফেন্ড করে হুদাই তর্ক করতে ভাল লাগে না। মনেহয় আমার তো কিছু না, সবই পরপর লাগে।
এই ফিলিং টা আসছে ২০০২ বিশ্বকাপের পর। অনেক উৎসাহ নিয়ে ব্রাজিলের পতাকা কিনলাম, চালের উপর উঠে নিজেই লাগাইলাম, যতদিন বিশ্বকাপ আসর চলল ততদিন উৎসবের মত কাটল। ব্রাজিল বিশ্বকাপ জিতল; অনেক খুশি হইলাম। ১/২ দিন আলোচনা হইল; কিন্তু তারপরেই সব শেষ। প্রিয় দল বিশ্বকাপ জেতার পরও সকল আমেজ শেষ, কারণ দেশ টা আমার না। নিজের দেশ হইলে বিশ্বকাপের আমেজ শেষ হয়ে গেলেও ট্রফির আমেজ শেষ হইত না। ফুটবলে এখনো ব্রাজিল সাপোর্ট করি, একটা ক্লাব কেও সাপোর্ট করি, প্রিয় খেলোয়ারও আছে, তবে তাদের কে নিয়া লাফালাফি করার ইচ্ছাটা আর আসেনা। আর বিশ্ব ক্রিকেটে বাংলাদেশ আছে, অন্য টিম বা প্লেয়ার নিয়া লাফালাফি করার তো প্রশ্নই আসে না।

ন্যাশনালিসম টা ভাল ভাবেই জেঁকে বসেছে।

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

twelve + 10 =