তামিম ইকবাল : দেশের ইতিহাসের সেরা ব্যাটসম্যানের জন্মক্ষণে…

তামিম ইকবাল : দেশের ইতিহাসের সেরা ব্যাটসম্যানের জন্মক্ষণে...

তামিম ইকবাল একমাত্র এশিয়ান ব্যাটসম্যান যার টেস্টে ২০০, ওয়ানডে ক্রিকেটে ১৫০ ও টি২০ তে ১০০ রানের ইনিংস রয়েছে। শচিন টেন্ডুলকার, ভিরাট কোহলি, সনাৎ জয়াসুরিয়া, ইনজামাম-উল-হক বা সাঈদ আনোয়ারদের মত উপমহাদেশীয় বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানদেরও যে কীর্তি নেই! ভাবা যায়?

যেকোনো একটি নির্দিষ্ট ভেন্যুতে তামিমের রয়েছে সর্বোচ্চ ওয়ানডে রানের রেকর্ড। হোম অফ ক্রিকেট মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে ৭৬ ওয়ানডে ম্যাচে তামিম ইকবাল এর রান সংখ্যা ২৫৫৭।

তামিম ইকবাল তৃতীয় সর্বকনিষ্ঠ ক্রিকেটার হিসেবে টেস্টে (২০ বছর ৩৫৮ দিন) ও ওয়ানডে (১৯ বছর ১০০ দিন) ক্রিকেটে ১০০০ রান পূরণ করেন!

তামিম ইকবাল প্রথম বাংলাদেশী ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটে ১০০০০ রান করেন। ক্রিকেটের তিন ফরম্যাট মিলিয়ে আমাদের তামিম ইকবালের রান ১১৪৪৩; বাংলাদেশী ব্যাটসম্যানদের মধ্যে যা সর্বোচ্চ।

তামিম ইকবালের টেস্ট ক্রিকেটে রান ৩৯৮৫। টেস্ট শতক ৮ টি ও টেস্টে অর্ধশতক ২৫ টি। লর্ডসে মাত্র ৯৪ বলে করা সেঞ্চুরিটি যেকোনো বাংলাদেশী ব্যাটসম্যানদের মধ্যে দ্রুততম। তামিম একমাত্র বাংলাদেশী ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডে ক্রিকেটে ৬০০০ রান করেন। ওয়ানডেতে ৪১ অর্ধশতকের পাশাপাশি করেছে ৯ শতক। এর সবকিছুই যেকোনো বাংলাদেশী ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সর্বোচ্চ। টি২০ ক্রিকেটে তামিম করেছেন ১৪৪০ রান।

তামিমের খুলনায় খেলা ২০৬ রানের ইনিংস টেস্ট ক্রিকেটে আমাদের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। ওয়ানডে ১৫৪ রানের ইনিংস সর্বোচ্চ এবং যেকোনো বাংলাদেশী ব্যাটসম্যানদের একমাত্র ১৫০+ রানের ইনিংসও। আর তামিমের টি২০ ক্রিকেটে ১০৩ রান আমাদের একমাত্র টি২০ সেঞ্চুরি।

মাত্র ১৮ বছরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট শুরু করা তামিম আজ ২৯ বছরে পদার্পণ করলেন। লাল সবুজের জার্সিতে মাঠ মাতাচ্ছেন প্রায় ১১ বছর। বিশ্বকাপের অভিষেক ম্যাচে জহির খানের মত ব্যাটসম্যানকে ডাউন দ্য উইকেটে এসে পুল করে ছক্কা মারার স্পর্ধা দেখানো সেই তামিম ইকবাল, আমাদের ব্যাটিংয়ের প্রায় সব রেকর্ড তার দখলে চলে এসেছে। তবে তার এখনো অনেক পথ পাড়ি দেওয়া বাকী!

ব্যাট হাতে তামিম ইকবাল এখন পুরাতন মদের মতো সুস্বাদু হচ্ছেন! যত বেশিদিন যাবে তার স্বাদ আরও বাড়বে। এখন শুধু রেকর্ড বইটার প্রতিটি পৃষ্ঠা আবার নতুন করে লিখানোর।ব্যাট হাতে শিল্পীর তুলির আঁচড় চলতে থাকুক। আমাদের এখনো অনেক কিছুই জয় করা বাকী; একটা বিশ্বকাপও।

২৯ তম জন্মদিবসে শুভেচ্ছা আর অনেক শুভকামনা রইল তামিম ইকবাল খান।

@রিফাত এমিল

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

five + 19 =