জমে উঠুক বিপিএল ৪

যেহেতু বিপিএলে ময়মনসিংহ দল নাই, সেহেতু সাকিব যেই দলেই যাবে সেই দলই সাপোর্ট করে আসছি সব সময়। এমনকি নিজের বিভাগ যখন ঢাকা ছিল তখনো। এবারেও তার ব্যাতিক্রম হবে না।
সাকিব এখন ঢাকা ডাইনামাইটসের আইকন। পুরনো বিভাগের দলে সবচেয়ে প্রিয় খেলোয়ার খেলছে। খাপে খাপ মিলে গেল। তাই, ঢাকা ডাইনামাইটস ছাড়া অন্য কাওকে কি সাপোর্ট করা যায়!!!

নেত্রকোণার ছেলে আবু হায়দার রনি আছে বরিশাল বুলসে, আর ময়মনসিংহের ছেলে মাহমুদুল্লাহ আছে খুলনা টাইটানসে। তাই এই দুটি দলের উপর একটা সফট কর্ণার থাকবেই।

বিপিএলের মজাটাই এই এলাকানিসমে। নিজের প্রিয় দলের প্রতি যত ভালবাসা দেখাবেন টুর্নামেন্ট ততই জমজমাট হয়ে উঠবে। ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা বাংলাদেশ থেকে কত দূরে, তবুও এই দেশে তাদের কে নিয়ে এত মাতামাতি হয় শুধুমাত্র এগ্রেসিভ সাপোর্টের কারনে। বিপিএলেও আসুক এইরকম এগ্রেশন। (তবে তা যেন অবশ্যই মাত্রার ভেতর থাকে। দিন শেষে আমরা সবাই একই দেশের অংশ।) ফেসবুক ভরে যাক সাপোর্টে, চায়ের স্টলে আলোচনা হোক। আয়োজনে ত্রুটি থাকলেও সাপোর্ট আর ভালবাসায় যেন ত্রুটি না থাকে।

সবশেষে বলতে চাই, টুর্নামেন্ট টা আমাদের, যে দলই জিতুক আমাদেরই জয়। তবে এই টুর্নামেন্টে সব ডিপার্ট্মেন্টে যেন আমাদের খেলোয়াদের ডমিনেশন থাকে। বিদেশিদের ঘাড়ে ভর করে শিরোপা জেতায় আমি কোন আনন্দ পাই না। আমি কখনই চাইবো না তাসকিনের ওভারে চারটা ছয় মেরে এন্ড্রু রাসেল ঢাকা কে জিতিয়ে দিক। আমার দেশের বোলারদের বল বিদেশিরা খেলতে পারছে না, আর আমার দেশের ব্যাটসম্যান বিদেশিদের মেরে তক্তা বানিয়ে দিচ্ছে এইটা দেখার মত শান্তি আর কিছুতেই নাই।

 

কমেন্টস

কমেন্টস

মন্তব্য করুন

1 × three =